khelaprotidin.com 2022 08 10T015231.039

ডিমের সাহায্যে অদ্ভুত টেকনিক দিয়ে ধরছে মাগুর মাছ,যুবকটির এমন প্রতিভা তাক লাগিয়ে দিয়েছে নেট দুনিয়া ভিডিওটি ভাইরাল..

jwppfOn
jwppfOn
jwppfOn
jwppfOn
jwppfOn

কখন কি নিজের হাতে মাছ ধরেছেন? আপনি চাইলেই মাছ ধরতে পারবেন না মাছ ধরার জন্য অবশ্যই আপনাকে কিছু কৌশল জানতে হবে। অন্যান্য সব কৌশলগুলোর মত হ্যান্ড ফিশিং ঠিক তেমনি একটি কৌশল। হ্যান্ড ফিশিং এর মাধ্যমে মাছ ধরে ভিডিও ভাইরাল হয়েছে অনেক তার মধ্যে অন্যতম একটি ভিডিও হচ্ছে এটি । এটি ইউটিউবে তুমুল পরিমাণ ভাইরাল হয়েছে। মাছ ধরা সত্যি খুব আনন্দের একটি কাজ। তাই দুইজন যুবক নিজের হাতে মাছ ধরে সেটি ভিডিও করে ছেড়ে দিয়েছে ইউটিউব এ। আর সেই ভিডিও দেখতে অনেক দর্শক ভিড় করছে। আপনি চাইলে যে দেখে আসতে পারেন সেই ভিডিওটি।

jwppfOn
jwppfOn
jwppfOn
jwppfOn
jwppfOn

আপনার খালি হাতে একটি মাছ ধরা এটি ক্যাম্প ফায়ারের আশেপাশের গল্প শোনার মতো শোনাচ্ছে, এটি নিশ্চিত হওয়ার জন্য একটি লম্বা গল্প। তবে,হ্যান্ড ফিশিং এর কাজ এবং প্রচুর লোক এটি করে। আপনি ক্যাটফিশের জন্য নুডলিংয়ের কথা শুনে থাকতে পারেন, তবে অন্য ধরনের মাছগুলি কেবল আপনার হাতে ধরা যায় এবং বাস্তবে হ্যান্ড ফিশিং যথেষ্ট সাধারণ যে কোনও কোনও অঞ্চলে এটি নির্দিষ্ট মাছ ধরার নিয়ম রয়েছে।

jwppfOn
jwppfOn
jwppfOn
jwppfOn
jwppfOn

মাগুর (বৈজ্ঞানিক নাম: Clarias batrachus) (ইংরেজি: walking catfish) হচ্ছে Clariidae পরিবারের Clarias গণের একটি স্বাদুপানির মাছ।মাগুর বাংলাদেশের বহুল প্রচলিত মাছগুলোর মধ্যে একটি যার মূল প্রাপ্তিস্থান দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়া।এর স্থানীয় নাম মজগুর, মচকুর বা মাগুর। আন্তর্জাতিকভাবে এটি ওয়াকিং ক্যাটফিস নামে পরিচিত। এই নামের কারণ হলো এটি শুষ্ক মাটির উপর দিয়ে প্রতিকূল পরিবেশ বা খাদ্য সংগ্রহের জন্য হেঁটে যেতে পারে। এই বিশেষ হাঁটার জন্য মাগুর মাছের বুকের কাছে পাখনা থাকে যা ব্যবহার করে এটি সাপের মত চলাচল করতে পারে। এই মাছের অতিরিক্ত শ্বাসযন্ত্র আছে যার মাধ্যমে এটি বাতাস থেকে শ্বাস নিতে পারে।

jwppfOn
jwppfOn
jwppfOn
jwppfOn
jwppfOn

মাগুর মাছ সাধারণত ৩০ সে.মি পর্যন্ত লম্বা হয়ে থাকে। এর সর্বোচ্চ দৈর্ঘ্য ৪৭ সে.মি হতে পারে। মাছের গায়ে কোন আঁশ থাকেনা। এরা অস্থিময়, মাথা অবনত এবং দুটি খাঁজ বিদ্যমান৷ পিঠের পাখনা লম্বা এবং চার জোড়া শুড় আছে৷ মাথা চ্যাপ্টা, মুখ প্রশস্ত, গায়ের রং লালচে বাদামী বা ধূসর কালো রংয়ের। কোন কোন ক্ষেত্রে পরিপক্ব স্ত্রী মাছের গায়ের রং ধূসর এবং পুরুষ মাছগুলির গায়ে হালকা বলয় থাকে। স্ত্রী মাছে কোন বলয় থাকে না। মাছের পৃষ্টদেশে ও পায়ুতে বড় বড় পাখনা থাকে।এই মাছ সর্বোচ্চ ১.১ঌ কেজি পর্যন্ত হতে পারে।
ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন

jwppfOn
jwppfOn
jwppfOn
jwppfOn
jwppfOn

মাগুর মাছ বাংলাদেশ ছাড়াও ভারত, মায়ানমার, থাইল্যান্ড, ইন্দোচীন, ফিলিপাইন, হংকং, দক্ষিণ চীন এবং ইন্দোনেশিয়াতে পাওয়া যায়।[২] এটি মূলতঃ গ্রীষ্মমন্ডলীয় মাছ এবং পানির তাপমাত্রা ১০-২৮ ডিগ্রী সেলসিয়াস এর জন্য উপযুক্ত তাপমাত্রা। মাছ সাধারণত পানির তলদেশে খাল, বিল, নদী-নালা, হাওড়-বাওড়, ধান ক্ষেতের কর্দমাক্ত পানি এমনকি উপকূলীয় এলাকায় ঈষৎ লোনা পানিতে স্বাভাবিকভাবে বিচরণ করে।