জাতীয় দলের স্কোয়াডে আসছে পরিবর্তন যাদের কপাল পুড়ছে জানালেন সভাপতি পাপন

বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ দলের বিশ্বকাপ জয়ের স্মৃতি এখনও চকচকে নতুন। বিশ্বের সব বাঘা বাঘা দলকে হারিয়ে ফাইনাল নিশ্চিতের পর ভারতের বিপক্ষে ফাইনালে আগ্রাসী ভূমিকায় থাকা বাংলাদেশের যুবারা ট্রফিটাও এনেছে নিজেদের ঘরে। সাফল্য যে সকল ক্রিকেটারদের নখদর্পে তাদেরকে তো পরিচর্চা করা বোর্ডের অন্যতম দায়িত্ব। সেই দায়িত্বও অবশ্য পালন করে যাচ্ছে বোর্ড।

দীর্ঘ সময় বিশ্বকাপজয়ী তরুণ ক্রিকেটারদের নিয়ে ক্যাম্প করার পর আয়ারল্যান্ড ইমার্জিং দলের বিপক্ষে টেস্ট, ওয়ানডে ও টি-২০ সিরিজে গড়া হয়েছে দল। যেখানে অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপজয়ী ক্রিকেটারদের আধিপত্য ছিল চোখে পড়ার মত। সবগুলো ম্যাচেই জয়লাভ করেছিল বাংলাদেশের তরুণ ক্রিকেটাররা।

অন্যদিকে বাংলাদেশ দলের সিনিয়র ক্রিকেটাররা তিন ফরম্যাটে খেলতে চান না এমনটা জানিয়েছেন খোদ বোর্ড প্রেসিডেন্ট। সাকিব আল হাসান নাকি আরও বেশ আগে থেকেই জানিয়ে দিয়েছিলেন টেস্ট ফরম্যাটে খেলতে অনিচ্ছুক তিনি।

Advertisements

এবার বোর্ড প্রেসিডেন্ট নাজমুল হাসান পাপন জানালেন বিকল্প হিসেবে তরুণ ক্রিকেটারদের নিয়ে জাতীয় দল সাজাতে চান তিনি। পাপন বলেন, ‘’কারও কারও কোনো ফরম্যাটে খেলার ইচ্ছা কম, বা হয়ত আত্মবিশ্বাস নেই। তাই বলেছি, মে-জুন মাসের মধ্যে যদি জেনে যাই কে কোন ফরম্যাট খেলতে চায় না তাহলে সেই অনুযায়ী দল করতে পারব। খেলোয়াড় তৈরি আছে এটা নিশ্চিত করতে পারি।‘’

Advertisements

তরুণ ক্রিকেটারদের বিশ্বমানের সুবিধা প্রদান করার কথা জানিয়ে পাপন আরও বলেন, ‘’হয়ত এসেই সাকিব-তামিমের মত পারফর্ম করতে পারবে না। কিন্তু তাদের সেই সামর্থ্য আছে। ইমার্জিং কাপে দেখলেন তরুণ এবং কী দারুণ। ওদের মানসিকতা এভাবে তৈরি করতে হবে, তাহলে দুই বছর পর ভালো দল গড়া সম্ভব। বিশ্বমানের সুবিধা দরকার, সেটা আমরা দিব তাদের।‘’

বর্তমান সময়ে বাংলাদেশ জাতীয় দলে একজন ফিনিশারের অভাব স্পষ্ট চোখে পড়ার মত। সৌম্য সরকারকে টপ অর্ডার থেকে ৭ নম্বরে ব্যাটিং করানোর চেষ্টা করা হলেও ব্যর্থ তিনি। ফলে তার বিকল্প হিসেবে হয়ত তরুণ ক্রিকেটার শামিম হোসেন হতে পারেন সেরা পছন্দ। এছাড়া চারদিনের ম্যাচে ১৩ উইকেট নেয়া স্পিনার তানভীর ইসলামও রয়েছেন বিসিবির রাডারে।

Related Post