অবশেষে মুস্তাফিজুরের কপাল পুরতে যাচ্ছে বাংলাদেশ দলে

অবশেষে মুস্তাফিজুরের কপাল পুরতে যাচ্ছে বাংলাদেশ দলে

চোট জর্জর বাংলাদেশ দল। দুই উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান নুরুল হাসান সোহান ও লিটন দাস জিম্বাবুয়ে সফর থেকে ছিটকে গেছেন। সব শেষ ওয়ানডেতে শুক্রবার ফিল্ডিং করতে গিয়ে আঘাত পেয়েছেন শরিফুল ইসলাম। ব্যাটিংয়ের সময় হাতে চোট পান মুশফিকুর রহিম। এবার সে দলে যুক্ত হয়েছে আরেক পেসার মুস্তাফিজুর রহমানের নাম।

বাংলাদেশ জাতীয় দলের ফিজিও মোজাদ্দেদ আলফা সানি জানিয়েছেন, শরিফুল আর মুশফিক শঙ্কা মুক্ত। আগামীকাল রোববার (৭ আগস্ট) ওয়ানডে সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে পাওয়া যাবে তাদেরকে। তবে অ্যাঙ্কেলের চোটে পড়া মুস্তাফিজকে বিশ্রাম দেওয়ায় তাকে ছাড়াই মাঠে নামতে হবে। সঙ্গে গত ম্যাচে একজন বাঁহাতি স্পিনারের যে অভাববোধ হয়েছে, সেই আক্ষেপ ঘোচাতে তাইজুল ইসলাম বা নাসুম আহমেদের একজনকে ফেরানো হবে।

শনিবার হারারেতে সংবাদমাধ্যমকে বাংলাদেশ দলের স্পিন বোলিং কোচ রঙ্গনা হেরাথ বলছিলেন, ‘একজন স্পিন কোচ হিসেবে একাদশে বাড়তি স্পিনার দেখতে চাই আমি। একই সঙ্গে আমাদের বিপক্ষ নিয়েও ভাবতে হবে পরিকল্পনা করতে হবে। আমি নিশ্চিত তাইজুল বা নাসুমের যেকোনো একজন কালকের ম্যাচে খেলবে।’

জিম্বাবুয়ের সঙ্গে বাংলাদেশ ক্রিকেটের পার্থক্য স্পষ্ট। পরিসংখ্যান, শক্তিমত্তা বা বর্তমান অবস্থান; সব দিক থেকেই প্রতিপক্ষের থেকে এগিয়ে টাইগাররা। তবুও টি-টোয়েন্টি সিরিজ ১-২ ব্যবধানে হারের পর ৩ ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজের শুরুটাও লাল-সবুজের প্রতিনিধিদের হলো হার দিয়ে।

দলের এমন অবস্থা নিয়ে হেরাথ বলেন, ‘একজন ক্রিকেটার, ব্যাক্তি ও দলের সদস্য হিসেবে আমার ক্যারিয়ারে এমন অনেক পরিস্থিতিতে পড়েছি (বাংলাদেশের বর্তমান অবস্থার মতো), কিন্তু সব কিছুই খেলার অংশ। মূল বিষয় হলো আমরা কতটা শক্ত ভাবে ফিরব আসতে পারি। আমরা এ ব্যাপারে সতর্ক। আমার বিশ্বাস কালকের ম্যাচে আমরা অবশ্যই শক্ত ভাবে ফিরব।’

সঙ্গে যোগ করেন হেরাথ, ‘হারাটা সবসময়ই কষ্টের। কিন্তু এটা খেলার অংশ। আমাদের নতুন করে পরিকল্পনা করতে হবে এবং ম্যাচে জয়ে ফিরতে হবে।’

You May Also Like

About the Author: