ছিটকে গেল লিটন দেখেনিন দ্বিতীয় ওয়ানডে ম্যাচে সেরা ১১ সদস্যের একাদশে থাকছে কারা

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে বাংলাদেশ সবশেষ কবে ওয়ানডে ম্যাচে হেরেছিল সেটা মনে করার জন্য হয়তো ইতিহাসই খুজে বেড়াতে হবে। খুঁজে না বেরিয়ে যে কোন উপায়ই নেই, কারণ গত 8 বছরেও বাংলাদেশে তাদের বিপক্ষে কোন ম্যাচে হারেনি।

তবে অবশেষে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে পরাজয়ের স্বাদ পেয়েছে টাইগাররা। ইনোসেন্ট কাইয়া এবং সিকান্দার রাজার দুর্দান্ত ব্যাটিংয়ে ভর করে, বাংলাদেশের দেয়া ৩০৪ রানের লক্ষ্য ৫ উইকেট হাতে রেখে টপকে যায় তারা!

আর তাতে প্রথম ম্যাচে হেরে ৩ ম্যাচ সিরিজে ১-০ তে পিছিয়ে গেছে টাইগাররা। সিরিজ নিশ্চিত করতে এখন বাকি দুই ম্যাচে জয়ের কোনো বিকল্প নেই সফরকারীদের সামনে।

এই ম্যাচে পরাজয়ের পাশাপাশি আরও বড় একটি ধাক্কা বাংলাদেশের জন্য। লিটন দাসের ইনজুরি গুরুতর। ব্যাটিং করার সময় দৌড়ে রান নিতে গিয়ে পেশিতে টান অনুভব করেন এবং শেষ পর্যন্ত স্ট্রেচারে করে মাঠের বাইরে নিয়ে যাওয়া হয় তাকে।

৮১ রান করে তখন অপরাজিত ছিলেন তিনি! এরপরে আর মাঠে নামতে পারেননি লিটন দাস। সিরিজ থেকেই ছিটকে গেছেন তিনি। এই প্রসঙ্গে বিসিবির ফিজিও সানি জানান। ‘আজকে আমাদের দলের ওপেনার লিটন কুমার দাস ব্যাটিং করতে গিয়ে হ্যামস্ট্রিংয়ে আঘাতপ্রাপ্ত হন।

ম্যাচ মধ্যবর্তী সময়ে আমরা তাকে স্ক্যান করতে পাঠাই। স্ক্যান রিপোর্টে আসে তার গ্রেট টু মাসল স্ট্রেইন। এই ধরনের ইনজুরির জন্য ৩-৪ সপ্তাহ মাঠের বাইরে থাকতে হয়। এই সিরিজে লিটনকে আমরা পাচ্ছি না।’

ব্যাট করতে গিয়ে হালকা ইঞ্জুরি হয় মুশফিকের, তবে তিনি শঙ্কামুক্ত। সানি আরও বলেন, ‘ব্যাটিংয়ের সময় মুশফিক ভাইও বৃদ্ধাঙ্গুলে আঘাতপ্রাপ্ত হন। কিন্তু এটা বড় ধরনের কোনো কিছু মনে হচ্ছে না। আশা করি ইনশাআল্লাহ পরের ম্যাচে আমরা তাকে পাচ্ছি।’

চোট সমস্যা শরিফুলেরও রয়েছে। ‘শরিফুলের ক্ষেত্রে তাৎক্ষণিক ইনজুরি থাকার কারণে কিছুটা অবশবোধ করছিল। আশা করি ইনশাআল্লাহ ভালো কোনো খবর দিতে পারবো।’

যেহেতু মুশফিকুর রহিমের কোন সমস্যাই নেই এবং লিটন দাস নিশ্চিতভাবেই একাদশে থাকছেন না পরবর্তী ম্যাচে. তাই যেমন হতে পারে দ্বিতীয় ওয়ানডেতে বাংলাদেশের একাদশ-

ওপেনার হিসেবে তামিমের সঙ্গে যুক্ত হতে পারেন এনামুল হক বিজয়।এর আগেও বিজয় এবং তামিম ইকবাল ওপেনিং করেছিলেন বাংলাদেশের হয়ে। তাই এই জুটিকে ফিরিয়ে আনা হতে পারে দ্বিতীয় ম্যাচে। বিজয়ের জন্যে সুযোগ তার আসল জায়গায় পারফর্ম করার।

তিন নাম্বারে ফিরে আসতে দেখা যেতে পারে নাজমুল হাসান শান্ত কে। লিটনের বদলে সুযোগ পাবেন তিনি। এরপর মুশফিক, মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ ,আফিফ হোসেন, মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত, মেহেদী হাসান, তাসকিন আহমেদ এবং মোস্তাফিজুর রহমান একাদশে থাকছেন নিশ্চিতভাবেই।যদি শেষ পর্যন্ত ইনজুরির কারণে ছিটকে যায় শরিফুল ইসলাম তবে তার পরিবর্তে একাদশে সুযোগ পেতে পারে হাছান মাহমুদ।

You May Also Like

About the Author: