সাপের মত লম্বা অদ্ভুদ আকারের মাছ ধরা পড়ল বড়শিতে, এই মাছ ধরার ভিডিওটি মূহুর্তেই ভাইরাল সোস্যাল মিডিয়ায়..

বাঙ্গালীদের খাদ্যাভ্যাসের সাথে মাছ ওতপ্রোতভাবে জড়িত। মাছে ভাতে কথাটি যেন একদম সত্য। বর্ষাকালে মাছ ধরার মজাই অন্যরকম। এই সময়ে নদী-নালা, খাল-বিল, ডোবা-পুকুর পানি বেশি থাকে। আর আমরা সকলেই জানি বেশি পানিতে মাছ তার প্রান খুজে পায়। আবার গ্রামের ধান ক্ষেতে বর্ষা মৌসুমে প্রচুর পরিমাণে মাছ পাওয়া যায়। গ্রাম্য এলাকায় বর্ষাকালে বিভিন্ন হাওর বাওর ও ডোবা থেকে মাছ ধরে পারিবারিক চাহিদা মেটায়। তখন তাদের মাছের চাহিদা মেটাতে বাজারের ওপর নির্ভর করতে হয় না।

মাছ এমন একটি খাবার যা অল্প খরচে পুষ্টির চাহিদা মেটানো সম্ভব। মাছ ধরা এক ধরনের শিল্প। চাইলেই সকলেই মাছ শিকার করতে পারে না। সময়ের ব্যবধানে ও উন্নত প্রযুক্তির মাধ্যমে মাছ শিকার সহজ হলেও। গ্রামীণ ও প্রাচীন পদ্ধতি গুলো মাছ শিকার করার কিছু সহজ মাধ্যম । গ্রাম্য পদ্ধতিতে মাছ শিকার করতে এক ধরনের ধৈর্যের পরীক্ষা হয়। অঞ্চলভেদে বিভিন্ন জায়গায় মাছ শিকার করার একক পদ্ধতি বিদ্যমান।

ইউটিউব কিংবা বিভিন্ন সামাজিক মাধ্যমের কারণে আমরা বিভিন্ন অঞ্চলের বিভিন্ন মাছ ধরা ও তাদের মাছ ধরার বিভিন্ন পদ্ধতি দেখতে পারি। এই সোশ্যাল মিডিয়া আমাদের অন্যদের প্রাচীন পন্থা ও তাদের অবস্থান সম্পর্কে জানতে সাহায্য করে। শুরুর দিক সোশ্যাল মিডিয়া শুধু মাত্র যোগাযোগের মাধ্যম হলেও । বর্তমানে নানান জনের নানান ভিডিও আপলোডের মাধ্যমে সহজেই আমরা বিভিন্ন ধরনের আজ ধরার চিত্র সম্পর্কে জানতে পারি ।

মাছ ধরার অনেকগুলো প্রাচীন পদ্ধতি রয়েছে। টেকনোলজির উন্নতির ফলে মাছ ধরার বিভিন্ন নতুন নতুন পদ্ধতি আবিষ্কার হয়েছে। যারা যারা খুব সহজে অল্প সময়ে অধিক মাছ ধরা সম্ভব। তবে এই পদ্ধতিগুলো উন্নত বিশ্বের অধিকাংশ ব্যবহার করা হয়। আমাদের দেশে এখনো বেশীরভাগ সময়ই দেখা যায় বিভিন্ন প্রাচীন পদ্ধতি গুলো ব্যবহার করা হয়। বিশেষ করে গ্রামাঞ্চলে প্রাচীন পদ্ধতি গুলো বেশিরভাগ দেখা যায়। এর মধ্যে একটি প্রাচীনতম পদ্ধতি হচ্ছে বরশি দিয়ে মাছ ধরা।

বরশি দিয়ে মাছ ধরার কিছু সুবিধা রয়েছে এগুলো হচ্ছে চাইলে একজন মানুষ একাই মাছ ধরতে পারবে এবং এতে পরিশ্রম কম হয়। আজকের এই ভিডিওটিতে একজন লোক বরশি দিয়ে নদীতে মাছ ধরতে যায়। তিনি টোপ হিসেবে ব্যবহার করেন আটা। বিশেষ করে মিঠা পানির মাছ আটা দিয়ে মাঝেমধ্যে ধরা হয়। তবে সকল প্রকার মাছ আটা খায় না। লোকটি মাছ ধরার জন্য অভিনব পদ্ধতিতে কিছু বরশি তৈরি করা।
ভিডিও দেক্তে এখানে ক্লিক করুন

সাধারণত আমরা বরশি তৈরিতে বাশের ব্যবহার করে থাকি। কিন্তু ভিডিওটিতে বরশি তৈরিতে কিছু খালি বোতল এর ব্যবহার করা হয়েছে। এই পদ্ধতিতে বরশি তৈরি করলে সহজে বহন করা সম্ভব লোকটি নদীতে গিয়ে বরশি গুলোতে টোপ লাগিয়ে এক এক করে নদীতে ফেলেন। এবং বিভিন্ন প্রকার দেশীয় মাছ এক এক করে বর্ষি গুলোতে আটকে পড়ে। তিনি কিছুক্ষণের মধ্যে অনেকগুলো মাছ ধরতে পারেন। এই দেশীয় মাছগুলো সচরাচর পাওয়া যায় না।

বর্তমানে বাজারে বিভিন্ন চাষের মাছ দেশি মাছ বলে বিক্রি করা হয়। তবে যারা গ্রাম অঞ্চলে বসবাস করে কিংবা নদ-নদী খাল-বিল এর তীরবর্তী এলাকায় বসবাস করে তারা মাঝেমধ্যে জেলেদের কাছ থেকে কিনে অথবা নিজেরা ধরে খেতে পারে। এই ভিডিওটিতে ব্যবহার করা অভিনব পদ্ধতিটির কারণে ভিডিওটি খুব তাড়াতাড়ি নেট দুনিয়ায় ভাইরাল হয়ে যায়। লোকটি কিভাবে মাছ ধরে এবং কোন পদ্ধতি ব্যবহার করেছেন তা দেখতে নিচের লিংকের মাধ্যমে ভিডিওটি দেখতে পারেন।

You May Also Like

About the Author: