সিনিয়রদের বিশ্রামের নাম করে দল থেকে বিদায় করছে না তো বিসিবি?

বাংলাদেশ ক্রিকেট যে আজ এই পর্যন্ত এসেছে তার পেছনে যাদের অবদান আছে তাদের মধ্যে সবচেয়ে বেশি তামিম, সাকিব, রিয়াদ, মাশরাফি, মুশফিকের। কিন্তু একটা বিষয় এখন সবার কাছে স্পষ্ট হয়ে গেছে তা হলো আমাদের ক্রিকেটাররা কি প্রাপ্য সম্মান পাচ্ছে। শুরুটা হয় মাশরাফির টি-২০ থেকে অবসর দিয়ে। এরপর মাশরাফির ওয়ানডে অধিনায়কত্ব ছাড়া। তার দল থেকে বাদ পড়া। এই নিয়েতো কত জল ঘোলা করলো বিসিবি।

আবার এখন তামিম ইকবালের টি-২০ অবসর। এই নিয়ে আছে অনেক রাগ অভিমান। শুধু এক কোচের কথায় নাচতে থাকে বোর্ড। আর দলের সিনিয়ার ক্রিকেটারদের করা হচ্ছে অসম্মান। এখন নতুন করে শুরু হয়েছে মুশফিক আর রিয়াদকে নিয়ে।

এই তো চলমান সফরে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে শেষ টি-টোয়েন্টি ম্যাচের অধিনায়ক মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত। একটু বিস্ময়কর, না? তবে সে ম্যাচের জন্য মাহমুদ উল্লাহ রিয়াদের টি-টোয়েন্টি দলে ফেরার বিস্ময়টা হাজারগুণ বেশি। বাংলাদেশ ক্রিকেটে এমনই সার্কাস চলছে। কেন এমন হচ্ছে?

আচ্ছা আমাদের বোর্ড রিয়াদকে ডেকে যদি বলতো, “আমরা নতুন করে পরিকল্পনা সাজিয়েছি, সে পরিকল্পনায় নতুন ক্যাপ্টেন নিতে চাই।” রিয়াদ যদি আনুষ্ঠানিক ভাবে ঘোষণা করতো, “আমি আর ক্যাপ্টেন থাকতে চাই না”। বোর্ড যদি বলতো, ” আমরা রিয়াদের সিদ্ধান্তকে সম্মান জানাই।”

একজন ১৫ বছর ক্রিকেট খেলা খেলোয়াড়কে কি এতটুকু সম্মানের পরিবেশ তৈরি করে দেয়া সম্ভব নয়??

★ রিয়াদকে বিশ্রাম দিলেন (তার মানে বিশ্রাম শেষে সে আবার অধিনায়ক হবার কথা)★ সোহানকে অধিনায়ক দিলো (যার দলে থাকা নড়বড়ে ছিলো।)★ মোসাদ্দেককে অধিনায়ক দিলো (তার দলে থাকা পুরাই অনিশ্চিত)★ ২ ম্যাচ শেষে মাহমুদউল্লাহ দলে ফিরলেন( বিশ্রাম শেষে দলে নিয়মিত অধিনায়কও টিমে আছে, অথচ সে অধিনায়ক নন!)

এগুলো সুন্দর ভাবে করা কি যায়না? নাটকের শীর্ষ পর্যায়ে বিসিবি!

প্রত্যেকটা সিনিয়র খেলায়াড়কে একই পন্থায় অপমান করছে বোর্ড। এটা পাপনের গোয়ার্তমি ছাড়া আর কিছু নয়। সে শুধু তার ইগোকে জিতাচ্ছে! হেরে যাচ্ছে বাংলার ক্রিকেট!

You May Also Like

About the Author: