সতীর্থদের শরীরী ভাষা পছন্দ হয়নি কোহলির

ম্যাচের শুরুতেই ভারতকে অনেকটা কোণঠাসা করে ফেলেছিল ইংল্যান্ড। অমন কঠিন মুহূর্তে হাল ধরেন অধিনায়ক বিরাট কোহলি। চোখজুড়ানো ব্যাটিংয়ে দলকে এনে দেন লড়াইয়ের পুঁজি। কিন্তু এমন মাস্টারক্লাস ব্যাটিংয়ের পরও দলকে জেতাতে পারলেন না। বাজে ফিল্ডিংয়ের জন্য হারতে হয়েছে ভারতকে। ম্যাচ শেষে অধিনায়ক জানালেন, সতীর্থদের শরীরী ভাষা পছন্দ হয়নি তাঁর।

আহমেদাবাদের নরেন্দ্র মোদি স্টেডিয়ামে গতকাল মঙ্গলবার সিরিজের তৃতীয় টি-টোয়েন্টিতে ভারতকে আট উইকেটে হারিয়েছে ইংল্যান্ড।

হারের পর কোহলি বলেন, ‘আমরা সম্মানজনক স্কোর করতে পারলেও আমাদের ম্যাচে ফিরে আসার লড়াইয়ে বাধা হয়ে দাঁড়ায় আমাদের ফিল্ডিং। দলের শরীরী ভাষা একেবারেই ঠিক ছিল না।’

ব্যাটিং নিয়ে অধিনায়কের মন্তব্য, ‘এই উইকেটে ব্যাট করা কঠিন ছিল। ইংল্যান্ডের বোলারেরা সঠিক জায়গায় বল করে গিয়েছে। বিশেষ করে প্রথম ছয় ওভারে। আমাদের জুটি সেভাবে গড়ে ওঠেনি। আসলে দলের কাজে না এলে ভালো খেলেও লাভ হয় না। আমি বেশিক্ষণ ব্যাট করতে চেয়েছিলাম। কারণ, আমি জানতাম এই উইকেটে একবার নিজেকে মানিয়ে নিতে পারলে ভালো খেলা সম্ভব।’

ম্যাচটিতে টস হেরে আগে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই বিপদে পড়ে ভারত। ২৪ রানের মাথায় গুরুত্বপূর্ণ তিন উইকেট হারিয়ে ফেলে স্বাগতিকেরা। দলের কঠিন মুহূর্তে দায়িত্ব নেন কোহলি। সতীর্থদের নড়বড়ে দিনে ৪৬ বলে খেলেন ৭৭ রানের অপরাজিত ইনিংস। বাকিদের মধ্যে কেউ পার করতে পারেননি ২৫-এর ঘর। সেখান থেকে দলকে উদ্ধার করেন কোহলি। মাঠের চারপাশে খেলেন দারুণসব শট। ৭৭ রানের ইনিংসে আটটি বাউন্ডারি হাঁকান তিনি, ছক্কা হাঁকান চারটি। তাঁর ব্যাটে চড়ে নির্ধারিত ওভারে ১৫৬ রানের সংগ্রহ পায় ভারত।

জবাব দিতে নেমে বাটলারের ঝড়ে ১৮.২ ওভারেই জয় তুলে নেয় ইংল্যান্ড। ৫২ বলে ৮২ রানের ইনিংস খেলেন বাটলার। পাঁচ বাউন্ডারি ও চার ছক্কায় সাজানো ছিল তাঁর ইনিংস। এ ছাড়া ২৮ বলে ৪০ রান করেন জনি বেয়ারস্টো।

সংশ্লিষ্ট খবর

Leave a Comment