নুরুলের ২৬ বলে ৪২ রানের পরেও যে ভুলে ম্যাচ হারল বাংলাদেশ

শুরুতে দারুণ উজ্জীবিত দেখাচ্ছিলো বাংলাদেশ ক্রিকেট দলকে; কিন্তু সময় যত গড়িয়েছে জিম্বাবুয়ের ব্যাটাররা তত চেপে বসেছে টাইগার বোলারদের ওপর। শেষ পর্যন্ত বাংলাদেশের বিপক্ষে সর্বোচ্চ রানের রেকর্ডই গড়ে ফেললো স্বাগতিকরা। নুরুল হাসান সোহানদের সামনে জয়ের জন্য ২০৬ রানের লক্ষ্য বেধে দিয়েছে স্বাগতিক জিম্বাবুয়ে।

হারারে স্পোর্টস ক্লাব মাঠে টস জিতে ব্যাট করতে নেমে ওয়েসলি মাধভিরে এবং সিকান্দার রাজার ঝড়ো ইনিংসের ওপর ভর করে ৩ উইকেট হারিয়ে ২০৫ রান সংগ্রহ করে স্বাগতিক জিম্বাবুয়ে।

বাংলাদেশের বিপক্ষে এর আগে টি-টোয়েন্টিতে জিম্বাবুয়ের সর্বোচ্চ রান ছিল ১৯৩। এবার সেটাকে ছাড়িয়ে গেলো তারা। আর নিজেদের ক্রিকেট ইতিহাসে টি-টোয়েন্টিতে সর্বোচ্চ রান ছিল ২৩৬, সিঙ্গাপুরের বিপক্ষে। ২০৫ রান টি-টোয়েন্টিতে তাদের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রানের ইনিংস।

ওয়েসলি মাধভিরে এবং সিকান্দার রাজা মিলে চতুর্থ উইকেট জুটিতে ৯১ রান যোগ করেন স্বাগতিকদের ইনিংসে। ৪৬ বলে ৬৭ রান করে দলীয় ১৯০ রানের মাথায় আহত হয়ে মাঠ ছাড়েন ওয়েসলি মাধভিরে। ২৬ বলে ৬৫ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলেন সিকান্দার রাজা। ৭টি বাউন্ডারির সঙ্গে ৪টি ছক্কার মার মারেন তিনি।

এছাড়া ৩৩ রান করেন শন উইলিয়ামস, ২১ রান করেন ক্রেইগ আরভিন এবং ওপেনার রেগিস চাকাভা করেন ৮ রান। বাংলাদেশের হয়ে মোস্তাফিজুর রহমান নেন ২ উইকেট এবং মোসাদ্দেক হোসেন নেন ১ উইকেট।জবাবে ব্যাট করতে নেমে দ্বিতীয় ওভারেরই মুনিম শাহরিয়ারের উইকেট হারায় বাংলাদেশ, দ্বিতীয় উইকেটের জুটিতে এনামুল বিজয়কে নিয়ে দূর্দান্ত জুটি গড়েছিল বাংলাদেশ ।

লিটনের ক্যাচ ছাড়লেও সেটা বুজতে পারেনি বাংলাদেশের এই ওপেনার। লিটনের এই ভুলেই শেষ পর্যন্ত হারতে হয় বাংলাদেশ। অধিনায়ক নুরুল হাসানের অপ্রতিরোধ্য ব্যাটিং এর পরেও ১৭ রানে ম্যাচ হারতে হয় বাংলাদেশকে। লিটনের রান আউট না হলে ম্যাচের চিত্র হয়ত ভিন্ন হতো।

You May Also Like

About the Author: