প্রথম টি-২০তে সিকান্দার রাজার ব্যাটিং ঝড়ে উরে গেল বাংলাদেশ

নুরুল হাসান সোহানের অধীনে বাংলাদেশের নতুন এক শুরু। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে টস হেরে ফিল্ডিং করতে নামে বাংলাদেশ। আগে ব্যাট করতে নেমে ওয়েসলি মাধেভের এবং সিকান্দার রাজার ঝড়ো ইনিংসে ভর করে বড় সংগ্রহ পেয়েছে জিম্বাবুয়ে। নির্ধারিত ২০ ওভারে ৩ উইকেটে ২০৫ রানের পুঁজি দাঁড় করায় স্বাগতিকরা।

টস হেরে ফিল্ডিংয়ে নেমে শুরুটা বেশ দারুণ করেছিল নুরুল হাসান সোহানের দল। ইনিংসের তৃতীয় ওভারেই পেসার মুস্তাফিজুর রহমান তুলে নেন জিম্বাবুয়ের ওপেনার রেগিস চাকাবাহকে। ইনিংসের তৃতীয় ওভারের চতুর্থ বলে মুস্তাফিজুর রহমানকে উড়িয়ে মারতে গিয়ে মিড উইকেটে নাজমুল হোসেন শান্তর তালুবন্দি হন চাকাবাহ। আউট হওয়ার আগে ১১ বলে ৮ রান করেন তিনি।

এরপর ক্রেইড আরভিন এবং ওয়েসলি মাধেভের মিলে প্রাথমিক ধাক্কা কাটিয়ে ওঠার চেষ্টা করেন। তবে এই জুটিকে বড় হতে দেননি মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত। ৭ম ওভারে প্রথম বলে জিম্বাবুয়ের অধিনায়ক ক্রেইগ আরভিনকে বোল্ড করেন এই অলরাউন্ডার। আউট হওয়ার আগে ২১ রান করেন আরভিন। স্বাগতিকরা ৪৩ রানে হারায় দ্বিতীয় উইকেট।

তবে তৃতীয় উইকেটে ঘুরে দাঁড়ায় স্বাগতিকরা। ওয়েসলি মাধেভের এবং শন উইলিয়ামস তৃতীয় উইকেটে ঝড়ো ৫৬ রানের জুটে গড়লে বড় সংগ্রহের পথে থাকে স্বাগতিকরা। উইলিয়ামস ১৯ বলে ৪টি চার এবং একটি ছক্কায় ৩৩ রান করে ফেরেন। ইনিংসের ১৩তম ওভারে দলীয় ৯৯ রানে শন উলিয়ামসকে বোল্ড করেন মুস্তাফিজুর রহমান। এতেই ভাঙে এই জুটি।

চতুর্থ উইকেটে ব্যাট করতে আসেন সিকান্দার রাজা। ওয়েসলি মাধেভেরকে সঙ্গে নিয়ে ঝড়ো এক জুটি। চতুর্থ উইকেটে এই জুটি মাত্র ৪৩ বলে তোলে ৯১ রান। অর্ধশতক তুলে নেন মাধেভের এবং সিকান্দার দুইজনই। মাধেভের অর্ধশতক ছুঁতে ৩৭ বল খেললেও সিকান্দার রাজা অর্ধশতক ছুঁয়ে ফেলেন মাত্র ২৩ বলে। শেষ পর্যন্ত মাধেভের ৪৬ বলে ৬৭ রান করে রিটায়ার্ড হার্ট হন। তবে ২৬ বলে ৬৫ রানে অপরাজিত থেকে মাঠ ছাড়েন সিকান্দার রাজা। ৭টি চার আর ৪টি ছক্কায় ইনিংস সাজান সিকান্দার রাজা।

শেষ পর্যন্ত এই দুইয়ের ব্যাটে ভর করে উইন্ডিজের সংগ্রহ দাঁড়ায় ৩ উইকেটে ২০৫ রানের। বাংলাদেশের হয়ে খরুচে ছিলেন প্রায় সব বোলারই। তাসকিন আহমেদ ৪ ওভারে ৪২ রান দিয়ে ছিলেন উইকেটশূন্য। এছাড়া নাসুম আহমেদ ৪ ওভারে ৩৮, মোসাদ্দেক হোসেন ৩ ওভারে ২১ রানে এক উইকেট আর শরিফুল ইসলাম ৪ ওভারে ৪৫ রান দিয়ে ছিলেন উইকেটশূন্য। টাইগার বোলারদের ভেতর সর্বোচ্চ ২টি উইকেট নেন মুস্তাফিজুর রহমান। ৪ ওভারে এই পেসার ৫০ রান দিয়ে নেন দুটি উইকেট।

You May Also Like

About the Author: