যে কারণে ২০২২ কাতার বিশ্বকাপ জিতবে আর্জেন্টিনা জানালেন তেভেজ

মেসি-স্কালোনি জুটিতে ভর করে গত কয়েক বছরে বদলে গেছে আর্জেন্টিনা। সাম্প্রতিক সময়ে দুর্দান্ত ফর্মে আছে আলবিসেলেস্তেরা।

তারচেয়েও বড় কথা, মেসির ‘শেষ’ বিশ্বকাপ ঘিরে দলটি এখন অনেক বেশি ঐক্যবদ্ধ। মূলত এ কারণে কাতার বিশ্বকাপ ঘিরে স্বপ্ন বুনতে শুরু করেছেন দলটির সমর্থকরা।

এবার মেসির সাবেক সতীর্থ কার্লোস তেভেজও জানালেন, ১৯৮৬ সালের পর এই প্রথম আর্জেন্টিনার বিশ্বকাপ জেতার জোর সম্ভাবনা দেখছেন তিনি। এমন চিন্তার পেছনের কারণটাও জানিয়েছেন সাবেক ম্যানচেস্টার সিটি তারকা। একসময় ইউরোপীয় ক্লাব ফুটবল কাঁপানো এই ফরোয়ার্ডের চাওয়া, মেসির হাতেই উঠুক এবারের বিশ্বকাপ। আধুনিক ফুটবলের ‘সবচেয়ে বড়’ তারকার যে এটাই শেষ বিশ্বকাপ!

‘টিওয়াসি স্পোর্টস’-কে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে তেভেজ বলেন, ‘কাতারে মেসির হাতে বিশ্বকাপ উঠতে দেখলে খুব খুশিই হবো। আমি একটি ঐক্যবদ্ধ দল দেখতে পাচ্ছি, যারা একসঙ্গে ছুটি কাটাতে যাচ্ছে এবং এটা মোটেই স্বাভাবিক নয়। আমাদের বিশ্বকাপ জেতার ভালো সম্ভাবনা আছে। ‘

কোচ স্কালোনির অধীনে প্রায় অজেয় ফুটবলশক্তি হয়ে উঠেছে আর্জেন্টিনা। বিশ্বকাপের আগে দলটির স্কোয়াডও বেশ গোছালো। এমনকি পিএসজিতে বাজে সময় কাটানো মেসি জাতীয় দলের জার্সি গায়ে দিলেই যেন একেবারে বদলে যান। দলটিকে গত কোপা আমেরিকার শিরোপাও জিতিয়েছেন সাবেক বার্সা ফরোয়ার্ড। এরপর ইউরোজয়ী ইতালির বিপক্ষে ফাইনালিসিমাতেও আর্জেন্টিনার জয়ে গুরুত্বপূর্ণ অবদান ছিল তার। দল হিসেবেও আর্জেন্টিনা আছে অবিশ্বাস্য ফর্মে। সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে টানা ৩২ ম্যাচ ধরে অপরাজিত তারা।

স্কালোনির দলটির বিশেষত্ব হচ্ছে, আক্রমণভাগের পাশাপাশি রক্ষণভাগেও শক্তিমত্তা বাড়িয়েছে তারা। বলা হয়, একবিংশ শতাব্দীতে এটাই আর্জেন্টিনার সবচেয়ে পরিপূর্ণ রক্ষণভাগ। আর দলটির নেতা হিসেবে মেসি তো আছেনই। আর্জেন্টিনার আক্রমণভাগকে বিশ্বমানের পর্যায়ে নেওয়ার পেছনে সবচেয়ে বেশি অবদান তো তারই।

তার নেতৃত্বে দলটি এখন একসূত্রে গাঁথা পরিবারের মতো। মেসির জন্মদিনে তাদের যেমন একসঙ্গে আনন্দ করতে দেখা যায়, তেমনই সতীর্থ লেয়ান্দ্রো পারেদেসের জন্মদিনেও সবাইকে দেখা একফ্রেমে। এটাই বদলে যাওয়া আর্জেন্টিনা, যে দলটিকে ঘিরে স্বপ্ন দেখছেন তেভেজও।

You May Also Like

About the Author: