ব্রেকিং নিউজঃ আবারো কোহলিকে পিছনে ফেললেন বাবর আজম

গত কয়েক বছর ধরেই ধারাবাহিকভাবে ভালো ব্যাটিং করছেন পাকিস্তানের অধিনায়ক বাবর আজম। ২০১৫ সালে এই ব্যাটসম্যানের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষেক হয়। তারপর থেকে তিনি সীমিত ওভারের ক্রিকেটে বিরাট প্রভাব ফেলেছেন পাকিস্তানের এই ওপেনিং ব্যাটসম্যান। একইসঙ্গে কিংবদন্তি ভারতীয় ব্যাটসম্যান বিরাট কোহলিকে হারিয়ে টি-২০ ক্রিকেটে একটি বিশেষ রেকর্ড গড়েছেন বাবর আজম। আসলে, আইসিসি সর্বশেষ টি-২০ র‍্যাঙ্কিং প্রকাশ করেছে আর সেখানে বাবর আজম টি-২০ ক্রিকেটে শীর্ষে রয়েছেন। এভাবে টি-২০ ক্রিকেটে দীর্ঘতম সময় ধরে আইসিসি র‌্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষে থাকার রেকর্ড গড়েছেন তিনি।

গত ১০৩০ দিন ধরে টি-২০ র‌্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষে রয়েছেন পাকিস্তানি অধিনায়ক বাবর আজম। এর আগে এই রেকর্ডটি ছিল ভারতীয় ব্যাটসম্যান বিরাট কোহলির নামে। ভারতীয় অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যান বিরাট কোহলি ১০১৩ দিন ধরে ICC T20 র‌্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষে ছিলেন। আসলে, বাবর আজম সীমিত ওভারের ক্রিকেটে খুব সফল খেলোয়াড় হলেও বাবর আজম টেস্ট ক্রিকেটে নিজেকে এখনও প্রমাণ করতে পারেননি তিনি। তাই র‍্যাঙ্কিং যাই বলুক না কেন, অনেকেই বিরাটকেই সেরা ব্যাটসম্যানের তকমা দেন।

আসলে, বাবর আজম বলেছিলেন যে তিনি টেস্ট ক্রিকেটে আরও ভালো করতে চান। তিনি বলেন, “প্রত্যেক ব্যাটসম্যানের স্বপ্ন ক্রিকেটের তিন ফরম্যাটেই এক নম্বর হওয়া। টেস্ট ক্রিকেটে আরও ভালো করার জন্য আমি প্রতিনিয়ত কঠোর পরিশ্রম করছি।” তিনি আরও বলেন, “আপনি যদি একজন খেলোয়াড় হিসেবে এক বা দুটি ফর্ম্যাটে শীর্ষে থাকেন, তার মানে এই নয় যে বাকি বিষয়গুলো হালকাভাবে নেওয়া উচিত। কঠিন লড়াই করেই সব কিছুতেই এক নম্বরে যাওয়াটাই আসল চ্যালেঞ্জ।”

উল্লেখযোগ্যভাবে, বাবর আজম একদিনের আন্তর্জাতিক ফর্ম্যাটেও এক নম্বর ব্যাটসম্যান। বাবরই একমাত্র ব্যাটসম্যান যিনি আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের তিনটি ফর্ম্যাটেই আইসিসি র‌্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষ দশে স্থান পেয়েছেন। বাবর আজম সম্প্রতি টেস্ট ক্রিকেটে চতুর্থ স্থান পেয়েছেন কারণ কেন উইলিয়ামসন খারাপ সময়ের মধ্য দিয়ে যাচ্ছেন। বাবর আজম এখন শুধু জো রুট, মার্নাস লাবুসচেন এবং স্টিভ স্মিথের পিছনে রয়েছেন। তবে আগামীদিনে তিনি সবাইকে টপকে এক নম্বরে চলে গেলে অবশ্যই অবাক হওয়ার কিছুই থাকবে না।

You May Also Like

About the Author: