টেস্ট হেরে সরাসরি যে বিষয়টাকে দায়ি করলেন অধিনায়ক সাকিব

টপ অর্ডারের ব্যর্থতায় প্রথম ইনিংসে ১০৩ রানে গুটিয়ে যায় বাংলাদেশ। প্রথম সেশনে ৬ উইকেট হারানোয় ওখানেই ম্যাচ থেকে ছিটকে পড়েছে বাংলাদেশ- মনে করেন অধিনায়ক সাকিব আল হাসান। টেস্টে ব্যাটিং ইউনিটের ক্রমাগত এই ব্যর্থতা কিছুতেই মেনে নিতে পারছেন না তিনি।

সাকিব টস সেশনে জানিয়েছিলেন, প্রথমে বোলিং করতে চেয়েছিল বাংলাদেশ। টস জিতে বাংলাদেশকে ব্যাটিংয়ে পাঠিয়ে নতুন বলের ফায়দা লুটেছে ক্যারিবীয়রা। তবে এতে পুরোটাই বাংলাদেশের ব্যর্থতা- মনে করেন সাকিব।

তিনি বলেন, ‘টস অনেক বড় ভূমিকা রেখেছে। তবে এটা নিয়ে অভিযোগ করা যাবে না। টস আমাদের হাতে ছিল না। আমাদের এটা মেনে নিয়ে ভালো ব্যাটিং করতে হত। উইকেট কঠিন ছিল ব্যাটিংয়ের জন্য। তবে আমরা আরও ভালোভাবে প্রয়োগ ঘটাতে পারলে প্রথম সেশনে ৬ উইকেট হারাতাম না। ২ উইকেট হারালেও চলত। এরপর উইকেট ক্রমশ ভালো হতে থাকে।’

‘এই এক সেশনই আমাদের শেষ করে দিয়েছে। পুরো ম্যাচেই আমরা ব্যাকফুটে ছিলাম। অনেক জায়গায় উন্নতি করতে হবে। তবে বোলারদের পারফরম্যান্সে খুশি।’

টেস্টে ব্যাটিং ইউনিটের লাগাতার ব্যর্থতা সাকিব মেনেই নিতে পারছেন না। ব্যাটারদের বোলারদের ম্যাচ জেতানোর মত পুঁজি এনে দিতে বারবার ব্যর্থ হওয়ার কারণে ম্যাচ হারতে হচ্ছে বাংলাদেশকে। অথচ ব্যাটাররা ভালো করলে জয়ের সমীকরণ যে কঠিন নয়, মনে করিয়ে দিলেন সেই কথা

তিনি বলেন, ‘এটা মেনে নেওয়ার মত না। আর আমরা এখন এমন নিয়মিতই করছি। টেস্টে গত ৪-৫ ম্যাচে এমন হচ্ছে। এটা কোনোভাবেই মেনে নেওয়ার মত নয়। ব্যাটারদের রান করার পথ খুঁজতে হবে, উইকেটে টিকে থাকার উপায় খুঁজতে হবে। তাতে অন্তত টিকে থাকতে পারবেন। তখন না বোলাররা ম্যাচ জেতাবে! এই সহজ সমীকরণটা নিয়েই আমাদের কাজ করতে হবে, উন্নতি করতে হবে।’

You May Also Like

About the Author: