অবশেষে ওয়েস্ট ইন্ডিজের মাটিতে কপাল পুড়লো টাইগারদের

সাকিবকে আক্রমণ ও রক্ষণের মাঝে ভারসাম্য বজায় রেখে খেলার পরামর্শ দিয়েছেন দলের প্রধান কোচ রাসেল ডমিঙ্গো।

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে প্রথম টেস্টে ব্যাট হাতে বাংলাদেশের একজনই বলার মতো পারফর্ম করেছেন। তিনি এই ফরম্যাটে টাইগারদের নতুন অধিনায়ক সাকিব আল হাসান। দুই ইনিংসেই অর্ধশতকের দেখা পেয়েছেন। তার ব্যাটেই অন্তত ইংনিস পরাজয় থেকে রক্ষা পেয়েছে বাংলাদেশ। তবে দুই ইনিংসেই সাকিব আক্রমণাত্নক খেলতে গিয়ে আউট হয়েছেন। তাই দলের প্রধান কোচ রাসেল ডমিঙ্গো সাকিবকে আক্রমণ ও রক্ষণের মাঝে ভারসাম্য বজায় রেখে খেলার পরামর্শ দিয়েছেন।

বাংলাদেশের বিপক্ষে সিরিজের প্রথম টেস্ট জিততে ওয়েস্ট ইন্ডিজের প্রয়োজন আর মাত্র ৩৫ রান। হাতে আছে এখনও ৭ উইকেট। আর সময়ের হিসাব! সেটা আর না কষলেও চলবে। ৩৫ রান করতে পাক্কা দুই দিন সময় পাচ্ছে ক্যারিবীয়রা। তবে জয়ের জন্য ক্যারিবীয়দের চতুর্থ দিন পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হত না। যদি না সাকিব ও নুরুল হাসান সোহান মিলে দ্বিতীয় ইনিংসে কিছুটা প্রতিরোধ গড়ে না তুলতেন।

দ্বিতীয় ইনিংসে সাকিব ও সোহান জুটির ১২৩ রানের ওপর ভর করে ইনিংস পরাজয় এড়িয়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে ৮৩ রানের লক্ষ্য দিতে পেরেছে বাংলাদেশ। তবে দ্বিতীয় ইনিংসে বাংলাদেশের সংগ্রহ আরেকটু বড় হতেও পারত। কেমার রোচের বলে আক্রমণাত্নক না খেলে সাকিব যদি আরেকটু ধীরস্থির মেজাজে খেলতেন। প্রথম ইনিংসেও ফিফটির পর আলজারি জোসেফকে তুলে মারতে গিয়ে প্যাভিলিয়নের পথে ধরতে হয়েছিল। তাই দলের প্রধান কোচ রাসেল ডমিঙ্গোর আশা, সাকিব আক্রমণ ও রক্ষণের মাঝে ভারসাম্য খুঁজে বের করে খেলবেন।

এই প্রসঙ্গে ডমিঙ্গো বলেন, “দেখুন সাকিব সবসময় ভালো ইন্টেন্সিটি ও ভালো ইন্টেন্ট নিয়ে খেলতে যায়। আমরা চাইনি সে স্লগ খেলুক, সে চেয়েছে ভালো ক্রিকেট শট খেলতে। আমার মনে হয় সে বোলারদের কিছু চাপ ফেরত দিতে চেয়েছে। তবে সে সতর্ক ছিল যে যদি শুরুর ধাপটা পার করতে পারে তবে সে চড়াও হতে পারবে বোলারদের উপর। সে ৭ নম্বরে ব্যাট করে তবে এই ম্যাচে ৬ নম্বরে করছে। টপ সিক্সে খেলায় তাকে ডিফেন্স ও অ্যাটাকের মধ্যে ভারসাম্য খুঁজে নিতে হত।”

ডমিঙ্গো চান সাকিব পরিস্থিতি বিবেচনা করে আক্রমণাত্নক ও রক্ষণাত্নক ক্রিকেট খেলুক। কোচ হিসেবে সাকিবের বডি শেইপ, পজিশন ও মাথার অবস্থান নিয়ে নিজের কাজের কথা উল্লেখ করেন এই কোচ। তিনি বলেন, “কখনো আপনাকে ডিফেন্সিভ হতে হয় কখনো কাউন্টার অ্যাটাক করতে হয়। এ নিয়ে কোনো সন্দেহ নেই। আমি শুধু নিশ্চিত করতে চেয়েছি সে তার শেইপ, পজিশন ও হেড যেন ধরে রাখে। কারণ সে কোয়ালিটি ব্যাটার।”

You May Also Like

About the Author: