একই দলে খেলবেন কোহলী-বাবর-শাকিব! তৈরি হয়েছে সম্ভাবনা

২০২৩ সালে ফের শুরু হবে অ্যাফ্রো-এশিয়ান কাপ। এশিয়ার সেরা ক্রিকেটারদের নিয়ে দল তৈরি করবে এসিসি। সংস্থার আশা বাধা হবে না রাজনীতি। একই দলের হয়ে খেলবেন বিরাট কোহলী এবং বাবর আজম? এশিয়ান ক্রিকেট কাউন্সিলের (এসিসি) পরিকল্পনা সফল হলে ভারত এবং পাকিস্তানের ক্রিকেটারদের দেখা যেতে পারে এক সাজঘরে।

ভারত-পাকিস্তান দ্বিপাক্ষিক সিরিজ রাজনৈতিক কারণে বন্ধ কয়েক বছর। আইপিএলেও পাক ক্রিকেটারদের প্রবেশ নিষিদ্ধ। আইসিসি বা এসিসির প্রতিযোগিতাগুলিতেই শুধু মুখোমুখি হয় চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী দু’দেশ। এই পরিস্থিতিতে একই দলের হয়ে কি কোহলী, বাবররা খেলবেন? আবার অ্যাফ্রো-এশিয়া কাপ শুরু করতে চাইছে এসিসি। এশিয়ার সেরা একাদশের সঙ্গে খেলা হবে আফ্রিকার সেরা একাদশের। ২০০৭ সালের পর এই প্রতিযোগিতা আর হয়নি।

২০০৫ সালে শুরু হয়েছিল এই প্রতিযোগিতা। ২০২৩ সালে আবার অ্যাফ্রো-এশিয়া কাপ আয়োজন করতে চায় এসিসি। এই পরিকল্পনা বাস্তবায়িত হলে একই দলের হয়ে খেলবেন রোহিত শর্মা, মহম্মদ রিজওয়ান, শাকিব আল হাসান, রশিদ খানরা। কোন দেশের কত জন ক্রিকেটার দলে সুযোগ পাবেন, বা কে নেতৃত্ব দেবেন, সে প্রশ্ন পরের। ভারত, পাকিস্তান, শ্রীলঙ্কা, বাংলাদেশ এবং আফগানিস্তানের ক্রিকেটারদের নিয়ে এশীয় একাদশ তৈরি হবে।

এসিসির অন্যতম কর্তা প্রভাকরণ থানরাজ বলেছেন, ‘‘ক্রিকেট বোর্ডগুলো এখনও আমাদের নিশ্চিত করেনি। বিষয়টা পরিকল্পনার স্তরে রয়েছে। সংশ্লিষ্ট সব ক্রিকেট বোর্ডের সঙ্গে আমরা কথা বলছি। আমাদের প্রধান লক্ষ্য ভারত-পাকিস্তানের সেরা ক্রিকেটারদের নিয়ে শক্তিশালী দল তৈরি করা।’’ এসিসির আশা অ্যাফ্রো-এশিয়া কাপ আয়োজন করতে সমস্যা হবে না। ভারত-পাকিস্তানের ক্রিকেটাররা এক দলের হয়ে খেললে স্পনসর বা সম্প্রচারকারী পাওয়া যাবে সহজে।

ভারতীয় উপমহাদেশে ক্রিকেট নিয়ে নতুন উন্মাদনা তৈরি হবে। এসিসি কর্তারা মনে করছেন, এক দলের হয়ে খেলতে ক্রিকেটারদের বাধা দেবে না দু’দেশের বোর্ড। খেলার সঙ্গে রাজনীতি জুড়ে দেওয়া হবে না।

You May Also Like

About the Author: