মিরাজের দূর্দান্ত বোলিং নৈপুণ্যে ক্যারিবীয়দের থেকে রক্ষা বাংলাদেশের

অ্যান্টিগায় প্রথম টেস্টের প্রথম দিন শেষে সংবাদ সম্মেলনে টাইগার অধিনায়ক সাকিব আল হাসান যে দুইটি অপশনের কথা বলেছিল তার দ্বিতীয়টিই ঘটেছে৷ নেতাসহ পুরো দলের লক্ষ্য ছিল স্বাগতিকদের ২৫০ রানের মধ্যে আটক করা৷ শেষ পর্যন্ত উইন্ডিজ তুলতে পেরেছে ২৬৫৷

পেসারদের স্বর্গরাজ্যে মেহেদি মিরাজের দূর্দান্ত বোলিংয়ে বড় লিডের হাত থেকে রক্ষা পেয়েছে সফরকারীরা৷ প্রায় ১১ ওভারের টানা স্পেলে নিয়েছেন ৪ উইকেট৷ যার ফলে ১৬২ রানের লিড নিয়ে শেষ হয় উইন্ডিজের প্রথম ইনিংস৷

পড়ন্ত বিকেলে বাংলাদেশ ব্যাট করতে নামলে উইকেট শূণ্য দিন কাটাতে খুব একটা পটু নয়৷ ব্যতিক্রম হয়নি এবারেও৷ স্বাগতিকদের অলআউট করে ব্যাট করতে নেমে ২০ ওভারে দল হারিয়েছে তামিম ও মিরাজের উইকেট৷ বাংলাদেশ এখনও ক্যারিবীয়দের চেয়ে পিছিয়ে আছে ১১২ রানে। জয় ১৮ ও শান্ত ৮ রানে অপরাজিত আছেন।

এর আগে ২ উইকেটে ৯৫ রান নিয়ে দ্বিতীয় দিনের খেলা শুরু করেছিল উইন্ডিজ৷ বল হাতে দারুণ করেছেন পেসাররা৷ সুযোগ এসেছিল, তবে সেটি কাজে লাগাতে পারেনি বাংলাদেশ৷ এবাদত হোসেনের করা বল এনক্রুমাহ বোনারের ব্যাট ছুঁয়ে জমা পড়েছিল উইকেটরক্ষক নুরুল হাসান সোহানের হাতে। যদিও বাংলাদেশের ফিল্ডাররা আবেদনই করেননি। ফলে উইকেট বঞ্চিত হতে হয় টাইগারদের।

এরপর আরেকবার বেঁচে যান বোনার৷ খালেদ আহমেদের করা ওভারের চতুর্থ বলটি বোনারের ব্যাটে লেগে চলে যায় উইকেটকিপার ও স্লিপের ফাঁক গলে। বল চলে যাওয়ার পর দুজনই একে অপরের দিকে চেয়েছিলেন।

বড় লিডের স্বপ্ন দেখা দলটির স্বপ্নের পথে বাঁধা হয়ে দাঁড়ান অধিনায়ক সাকিব৷ পানি পানের বিরতির পর বোল্ড করেন বোনারকে৷

বাংলাদেশ বোলারদের কঠিন পরীক্ষা নেওয়া ব্র্যাথওয়েট মধ্যাহ্নভোজ বিরতির পর এলবিডব্লিউ হয়ে আউট হন খালেদের বলে ৷ ৬ রানের জন্য শতক হয়নি ক্যারিবীয় অধিনায়কের৷ তার আগে ভালো বল করেও উইকেটের দেখা পাচ্ছিল না পেসাররা৷ তখন দেখা যায় সাইড লাইনের বাইরে থেকে খালেদ আহমেদকে বলের সিম দেখিয়ে পরামর্শ দিচ্ছেন অ্যালান ডোনাল্ড৷

এরপরের গল্পটা শুধুই মিরাজের৷ ডান হাতের ম্যাজিকে আউট করেন কাইল মেয়ার্স, জশুয়া দা সিলভা,, আলজারি জোসেফ,জেইডেন সেলসকে ৷

সংক্ষিপ্ত স্কোর-

বাংলাদেশ (প্রথম ইনিংস)- ১০৩/১০ (৩২.৫ ওভার) (তামিম ২৯, লিটন ১২, সাকিব ৫০, এবাদত ৩; সেলেস ৩/৩৩, জোসেফ ৩/৩৩, রোচ ২/২১)

ওয়েস্ট ইন্ডিজ (প্রথম ইনিংস)- ২৬৫/১০ (১০২.৫ ওভার) (ব্র্যাথওয়েট ৯৪, ব্ল্যাকউড ৬৩, ক্যাম্পবেল ২৪, বোনার ৩৩; মিরাজ ৪/৫৯, খালেদ ২/৫৯)

বাংলাদেশ (দ্বিতীয় ইনিংস)- ৫০/২ (২০ ওভার) (তামিম ২২, জয় ১৮*, শান্ত ৮*; জোসেফ ২/১৪)

You May Also Like

About the Author: