ব্রেকিং নিউজঃ দ-আফ্রিকার ক্রিকেটারের ‘৬’ বছরের কারাদণ্ড

দক্ষিণ আফ্রিকায় ম্যাচ ফিক্সিংয়ে জড়িত থাকার অভিযোগে এক ক্রিকেটারকে ৬ মাসের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। কারাদণ্ডাদেশ পাওয়া ঐ ক্রিকেটারের নাম পুমেলেলা মাতশিকওয়ে। এর আগে তিনি ক্রিকেটীয় কর্মকাণ্ডে নিষিদ্ধ হয়েছিলেন।

দক্ষিণ আফ্রিকার ক্রিকেটে ফিক্সিংয়ের কারণে কারাদণ্ড পাওয়া দ্বিতীয় ক্রিকেটার পুমেলেলা। এর আগে ফিক্সিং কাণ্ডে হাজতবাস হয়েছিল গোলাম বদির। পুমেলেলাকে অবশ্য এখন হাজতবাসে যেতে হবে না। তার ৬ বছরের কারাদণ্ডের মধ্যে ৫ বছরই স্থগিত শাস্তি। এই ৫ বছরের মধ্যে কোনো অপরাধমূলক কর্মকাণ্ডে জড়ালে পুমেলেলার শাস্তি কার্যকর হবে। এছাড়া দক্ষিণ আফ্রিকার সব ধরনের ক্রিকেটীয় কর্মকাণ্ডে ১০ বছরের নিষেধাজ্ঞা চলছে তার।

২০১৫ সালে র‍্যাম স্ল্যাম টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্টে ফিক্সিংয়ে জড়িত থাকার অভিযোগ ওঠে পুমেলেলার বিরুদ্ধে। ২০১৬ সালে অভিযোগ আনা হয় ৩৭ বছর বয়সী এই পেসারের বিরুদ্ধে। সে বছরই পুমেলেলাসহ মোট ৬ ক্রিকেটারকে নিষিদ্ধ করে ক্রিকেট দক্ষিণ আফ্রিকা (সিএসএ)। সিএসএ জানায়, মোট ৪টি অভিযোগে দোষী সাব্যস্ত হয়েছেন পুমেলেলা। স্যাম স্ল্যামে টাকা নিয়ে এক বা একাধিক ম্যাচ গড়াপেটা করা,

ক্রিকেটকে কলঙ্কিত করে এমন উপায়ে আর্থিক লেনদেন, আকসুর কাছে আর্থিক লেনদেনের যথেষ্ট পরিমাণ তথ্য দিয়ে অপারগতা এবং ফিক্সিংয়ের ব্যাপারে তদন্তে আকসুকে সহায়তা না করা। বদি ও পুমেলেলা ছাড়াও সেই ফিক্সিং কাণ্ডে নিষেধাজ্ঞা পান থামি সোলেকিলে, জিন সাইমস, এথি বালাতি ও আলভিরো পিটারসেন। পুমেলেলা জাতীয় দলের হয়ে কখনও খেলার সুযোগ না পেলেও ৭৭টি প্রথম শ্রেণির ম্যাচ,

৫৭টি লিস্ট ‘এ’ ম্যাচ ও ২৪টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলেছেন।

You May Also Like

About the Author: