ব্রেকিং নিউজঃ ফেরার মঞ্চে সৌম্য-সাব্বির-মিঠুনরা

সৌম্য সরকার, সাব্বির রহমান বা মোহাম্মদ মিঠুন। এই তিনজন বাংলাদেশ ক্রিকেটে একটা সময় অপরিহার্য খেলোয়াড় ছিলেন। গত ২০১৯ বিশ্বকাপেও তারা ছিলেন এক দলের। সময়ের ব্যবধানে তারা আজ কেউই নেই জাতীয় দলে।

খুব বেশি আলোচনাও হয় না এই ত্রয়ীকে নিয়ে। কিন্তু জাতীয় দলে তাদের আবার ফিরতেই হবে। এজন্য তাদের ফেরার মঞ্চ তৈরি করে দিয়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। আনুষ্ঠানিকভাবে বাংলাদেশ টাইগার্সের দ্বিতীয় পর্ব সোমবার থেকে শুরু হয়েছে।

গতকাল মিরপুর শের-ই-বাংলায় রিপোর্টিংয়ের পর আজ থেকে শুরু হয়েছে স্কিল ট্রেনিং। সকালে ব্যক্তিগত ট্রেনিং শুরুর আগে ফিটনেস ট্রেনিং হয়। এরপর লম্বা সময় দলগত স্কিল ট্রেনিং।

সৌম্য, মিঠুন জাতীয় দল থেকে প্রায় একই সঙ্গে বাদ পড়েন। সাব্বির আরও আগে। তাদের প্রত্যেকের জন্য এই প্রস্তুতি ক্যাম্প জাতীয় দলে ফেরার মঞ্চ। এখানে ভালো করলেই কেবল খুলতে পারে জাতীয় দলের দুয়ার। নির্বাচক কমিটির হাবিবুল বাশার সুমন তাদের থেকে বড় প্রত্যাশা করছেন, ‘ওরা সব সময়ই আমাদের নজরে ছিল। কেউ আড়াল হয়নি। জাতীয় দল সব সময়ই চক্রের মতো। কখনও ভালো খেলবে। কখনও খারাপ। খারাপ করলে বাদ পড়বে। আবার ভালো করলে দলে ঢুকবে। ওদের জন্য ভালো একটি সুযোগ বাংলাদেশ টাইগার্স ক্যাম্প। এখানে ভালো করলে অবশ্যই ভালো কিছু হবে ওদের জন্য।’

শুধু তাদের জন্যই নয়, ৩৫ বছর বয়সী নাঈম ইসলামের জন্যও এটা বড় সুযোগ। এছাড়া ঘরোয়া ক্রিকেটে আলো ছড়ানো বেশ কয়েকজন ক্রিকেটারকে এবার সুযোগ দিয়েছে বোর্ড। তাদের মধ্যে অন্যতম সাজ্জাদুল হক রিপন, সাব্বির রহমান, মাইশিকুর রহমান রিয়েল। এছাড়া বেশ কিছু প্রতিশ্রুতিশীল ক্রিকেটারকেও ২৯ সদস্যের দলে নেওয়া হয়েছে। রাকিন আহমেদ, আশিক উল আলম, শাহীন আলম, পিনাক ঘোষ, আব্দুল হালিমকে ডেকেছেন নির্বাচকরা।

নিয়মিত স্কিল ট্রেনিংয়ের পাশাপাশি মাসব্যাপী এই ক্যাম্পে ম্যাচও খেলবেন ক্রিকেটাররা। এইচপি দলের বিপক্ষে সিলেটে তিনটি ওয়ানডে ম্যাচের পাশাপাশি একটি তিনদিনের ম্যাচও আছে। এছাড়া তাদের চাঙ্গা রাখতে সিনেমা দেখা, বাইরে ঘুরতে যাওয়ার পরিকল্পনাও করে রেখেছে বোর্ড।

You May Also Like

About the Author: