আফগানিস্থানের বিশ্বরেকর্ড আর ভাঙ্গা হলো না ভারতের

ভারতীয় দলকে প্রথম বার নেতৃত্ব দিলেন পন্থ। আইপিএলে দিল্লি ক্যাপিটালস দলকে নেতৃত্ব দিলেও ভারতীয় দলকে এই প্রথম বার নেতৃত্ব দিলেন তিনি। টস হেরে প্রথম ব্যাট করতে নামে ভারত। ইনিংসের শুরু থেকেই মারমুখী ছিলেন ভারতীয় ব্যাটাররা।

পাঁচ ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথম ম্যাচে ভারতের মাটিতেই ভারতকে ৭ উইকেটে পরাজিত করল দক্ষিণ আফ্রিকা। আগে ব্যাট করে ভারত সংগ্রহ করে ২১১ রান। জবাবে ৭ উইকেট ও পাঁচ বল হাতে জয় পেয়েছে প্রোটিয়ারা। টস জিতে আগে বোলিং করার সিদ্ধান্ত নেয় দক্ষিণ আফ্রিকা। ভারতকে দারুণ সূচনা এনে দেন রুতুরাজ গায়কোয়াদ ও ঈষাণ কিষাণ। তাদের ৫৭ রানের জুটি ভাঙেন ওয়েইন পার্নেল। ১৫ বলে ২৩ রান করে বিদায় নেন গায়কোয়াদ।

দ্বিতীয় উইকেটে ৮০ রানের বড় জুটি গড়েন কিষাণ ও শ্রেয়াস আইয়ার। কিষাণকে শিকার করে সেই জুটি ভাঙেন কেশব মহারাজ। অর্ধশতক হাঁকান কিষাণ। তার ব্যাট থেকে আসে ৪৮ বলে ৭৬ রান। তিনি এই ইনিংস খেলার পথে ১১টি চার ও তিনটি ছক্কা হাঁকান। শ্রেয়াস আউট হন ২৭ বলে ৩৬ রানের ইনিংস খেলে। অধিনায়ক রিশাভ পান্ট করেন ১৬ বলে ২৯ রান। শেষ দিকে টর্নেডো বইয়ে দেন হার্দিক পান্ডিয়া।

তিনি ১২ বলে ৩১ রানের অপরাজিত ইনিংস খেলেন। হার্দিকের ২৫৮.৩৩ স্ট্রাইকরেটের ইনিংসে ছিল দুইটি চার ও তিনটি ছক্কা। নির্ধারিত ২০ ওভারে চারটি উইকেট হারিয়ে ভারত সংগ্রহ করে ২১১ রান। জবাব দিতে নেমে তৃতীয় ওভারেই অধিনায়ক টেম্বা বাভুমাকে হারায় দক্ষিণ আফ্রিকা। ডুয়াইন প্রিটোরিয়াস ১৩ বলে ২৩ রানের ক্যামিও দেখিয়ে বিদায় নেন। উইকেটরক্ষক কুইন্টন ডি কক ১৮ বলে ২২ রান করে মাঠ ছাড়লে ৮১ রানে তিনটি উইকেট হারায় দক্ষিণ আফ্রিকা।

এরপর আর পেছনে ফিরে তাকাতে হয়নি সফরকারীদের। চতুর্থ উইকেটে ১৩১ রানের অবিচ্ছিন্ন জুটি গড়ে দক্ষিণ আফ্রিকাকে জয় এনে দেন ডেভিড মিলার ও র‍্যাসি ফন ডার ডুসেন। পাঁচ বল হাতে রেখেই ৭ উইকেটের বড় জয় পায় দক্ষিণ আফ্রিকা প্রথম ম্যাচ হেরে সিরিজ শুরু করল ভারত। দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে সাত উইকেটে হারলেন ঋষভ পন্থরা।

টানা ১৩টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ জিতে আফগানিস্থানের রেকর্ড ভেঙ্গে রেকর্ড গড়ার সুযোগ ছিল ভারতের সামনে। দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে হেরে সিরিজে ০-১ পিছিয়ে গেল ভারত।

You May Also Like

About the Author: