টি-টোয়েন্টি নিয়ে পরিকল্পনা বলার সুযোগই দেয়া হয় না: তামিম

দফায় দফায় বৈঠক করে টি-টোয়েন্টিতে তামিম ইকবালকে ফেরানোর চেষ্টা করেছিল বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। তবে চেষ্টা করেও ফেরানো যায়নি বাঁহাতি এই ওপেনারকে। বরং বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ (বিপিএল) চলাকালীন টি-টোয়েন্টি থেকে আরও ৬ মাসের বিরতির কথা জানিয়েছিলেন তামিম।

বিরতি নেয়ার সময় তামিম নিশ্চিত করেছিলেন ৬ মাস টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট নিয়ে ভাববেন না। সেই সঙ্গে নিজের ভাবনার কথাও বিসিবিকে জানিয়েছিলেন তিনি। অথচ সেই ঘোষণার ৪ মাস পর এসে বাংলাদেশের ওয়ানডে অধিনায়কের দাবি, টি-টোয়েন্টি নিয়ে পরিকল্পনা জানানোর সুযোগই দেয়া হয় না তাকে।

এ প্রসঙ্গে তামিম বলেন, ‘টি-টোয়েন্টি নিয়ে যে পরিকল্পনা আমার, আমাকে তো বলার সুযোগই দেওয়া হয় না। হয় আপনারা বলে দেন, না হয় অন্য কেউ বলে দেয়। ওটাই চলতে থাকুক (হাসি)। আমার তো বলার সুযোগ দেওয়া হয় না।’

‘এটা এতদিন ধরে আমি ক্রিকেট খেলি এতটুক আমি ডিজার্ভ করি,আমি কি চিন্তা করি না চিন্তা করি এটা আমার মুখ থেকে শোনা। কিন্তু হয় আপনারা কোনো ধরনা দিয়ে দেন, বা অন্য কেউ এসে বলে দেয়। যখন বলেই দেয় তখন আমার এখানে কিছু বলার নেই।’

তামিম সর্বশেষ আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি খেলেছেন ২০২০ সালের ডিসেম্বরে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে। সেই ম্যাচে ব্যাট হাতে ৪১ রানের ইনিংস খেলেছিলেন তিনি। এরপর টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ থেকেও নিজেকে সরিয়ে নিয়েছিলেন তিনি। সাসনে উঁকি দিচ্ছে আরও একটি বিশ্বকাপ।

আগামী অক্টোবর-নভেম্বরে অস্ট্রেলিয়াতে মাঠে গড়াবে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের এবারের আসর। এর আগে অবশ্য শ্রীলঙ্কা হবে এশিয়া কাপ। বিশ্বকাপের বছরে হওয়ায় এশিয়া কাপ হবে টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটে। সেখানে তামিমকে পাওয়া যাবে কিনা সেটি নিয়েই বারবার প্রশ্ন উঠছে।

You May Also Like

About the Author: