৪ নাম্বারে ব্যাটিং করতে বলায় ক্ষেপেছেন তামিম, রেগে মেগে য়া বললেন

হঠাৎ করেই আলোচনাটা মাথাচাড়া দিয়ে উঠলো। বাংলাদেশ দলের ব্যাটিং কোচ জেমি সিডন্স তামিম ইকবালকে ওপেনিং থেকে চার নম্বরে নামিয়ে খেলানোর চিন্তা করছেন। এ নিয়েই এখন বাংলাদেশের ক্রিকেটাঙ্গনে তোলপাড়।

সত্যিই কী তামিম ইকবালকে ব্যাটিং অর্ডারে চার নম্বরে নামিয়ে দেয়া হবে? নাকি তার আসল জায়গা ওপেনিংয়েই বহাল রাখা হবে- এটাই এখন টক অব দ্য ক্রিকেট।

আজ গুলশানে রবির ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর হিসেবে নাম ঘোষণা উপলক্ষে তামিম ইকবালের একটি অনুষ্ঠান ছিল। সেখানেই ব্যাটিং অর্ডারের এই আলোচনা নিয়ে মিডিয়ার মুখোমুখি হলেন তামিম। কিন্তু বিষয়টা নিয়ে যে ওয়ানডে দলের অধিনায়ক এতটাই বিরক্ত, তা তিনি নিজের কথায় বুঝিয়ে দিয়েছেন।

তামিমের কাছে মনে হয়েছে, প্রসঙ্গটাই অযাচিত। হঠাৎ কেন এই প্রসঙ্গ উঠে আসলো, তা তিনি নিজেও বুঝতে পারছেন না। আজ তামিমের কাছে জানতে চাওয়া হয়, ‘গতকাল যে প্রশ্ন উঠছিল যে আপনার চার নম্বরে খেলার বিষয়ে, জেমি সিডন্স যে মন্তব্য করেছেন, সে সম্পর্কে আপনার মতামত কী?’

জবাবে তামিম কিছুটা রাগের ভাবই দেখান। উল্টো প্রশ্ন করে বসেন, ‘আপনার (প্রশ্ন কর্তাকে) কী মনে হয়? আমার কী ওপেনিংয়ে খেলা উচিৎ নাকি চারে খেলা উচিৎ? আমার ট্র্যাক রেকর্ড কী বলে?’

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে বাংলাদেশের ব্যাটারদের সাম্প্রতিক পারফরম্যান্স নিয়ে ব্যাটিং কোচ জেমি সিডন্স শনিবার মিরপুরে মিডিয়ার মুখোমুখি হন। সেখানেই এক সাংবাদিক সিডন্সকে জিজ্ঞাসা করে বসেন, ‘আমাদের যারা সিনিয়ররা উপরের দিকে খেলে, তারা যদি নিচে নেমে এসে খেলে, তাহলে কেমন হবে?’

জবাব দিতে গিয়ে উপরের দিকে সিনিয়র হিসেবে সিডন্স ধরে নিয়েছেন তামিমকে এবং তার কথা ভেবেই উত্তরটা দেন এভাবে, ‘তামিমকে চারে নামাতে হলে আরেকজন ভালো ওপেনার লাগবে। আমার মনে হয়, চার নম্বরে সে (তামিম) দারুণ হবে।’ শনিবার জেমি সিডন্সের কাছে তোলা প্রশ্নের ধরণটা নিয়েও আজ বিরক্ত প্রকাশ করেছেন তামিম। তিনি বলেন, ‘আমি জানি না, যিনি প্রশ্নটা করছিলেন, জানি না তার মাথায় কি ছিল? আমার মনে হয়, ইট ওয়াজ এ স্টুপিড কোয়েশ্চেন।’

শনিবারই জেমির কথার জবাবে বাংলাদেশের একটি জাতীয় পত্রিকাকে সাক্ষাৎকারে তামিম জানিয়েছিলেন, দূরতম ভবিষ্যতেও এমন কোনো ভাবনা তার মধ্যে কাজ করছে না। মিডল অর্ডারে ব্যাট করার কোনো ইচ্ছাই তার মধ্যে নেই।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের তিন ফরম্যাট মিলিয়ে মোট ৪২৯ বার ব্যাট হাতে মাঠে নেমেছেন তামিম। এর মধ্যে ৪৩৮ বারই ইনিংসের সূচনা করেছেন তিনি। একবার, ২০১৭ সালে পচেফস্ট্রুমে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে টেস্ট ম্যাচের প্রথম ইনিংসে মিডল অর্ডারে নেমেছিলেন এই বাঁ-হাতি ওপেনার। তবে সেটি স্বাগতিক দলের প্রথম ইনিংসে চোট পাওয়ার কারণে।

ওই পত্রিকাকে তামিম বলেছিলেন, ‘জীবনে একবারই মিডল অর্ডারে খেলেছিলাম। সেবার পাঁচ নম্বরে নামতে হয়েছিল চোটের কারণে। ৩৯ রান করেছিলাম সম্ভবত।’

তামিম তো টি-টোয়েন্টি থেকে ৬ মাসের ছুটি নিয়েছেন। এখন কী তিনি এই ফরম্যাটে ফিরে আসবেন? আজ এ বিষয়ে জানতে চাওয়া হলে তামিম বলেন, ‘টি-টোয়েন্টি খেলা নিয়ে আমার সঙ্গে বোর্ডের পক্ষ থেকে কেউ কোনো কথা বলেননি।’

You May Also Like

About the Author: