ইতালির বিপক্ষে মাঠে নামার আগে বিশাল দুঃসংবাদ পেল আর্জেন্টিনা

কাতার বিশ্বকাপে যে দল নিয়ে মাঠে নামবে আর্জেন্টিনা, ইতালির বিপক্ষে ফাইনালিসিমায় দেখা যাবে তাদের সবাইকে। এই ম্যাচে অভিষেক হতে পারে অন্তত দু’জন নতুন ফুটবলারের। তবে স্কোয়াডে থাকলেও মাঠে নামার সম্ভাবনা খুবই ক্ষীণ পাওলো দিবালার।

বদলি হিসেবে হলেও অ্যাটাকিং থার্ডে বিশেষ গুরুত্ব দেয়া হতে পারে সাম্প্রতিক সময়ে সাড়া জাগানো হুলিয়ান আলভারেজকে। বিশ্বকাপের আগে ফাইনালিসিমা ছাড়া আপাতত কোনো ম্যাচ নেই আর্জেন্টিনার। ব্রাজিলের বিপক্ষে একটা সুপার ক্লাসিকো হওয়ার কথা থাকলেও আপাতত লাতিন প্রতিপক্ষের বিপক্ষে খেলতে আগ্রহ নেই স্ক্যালোনির দলের। ইউরোপ নিয়েই যত কাঁটাছেড়া তার। সেই আভাস পাওয়া যাচ্ছে ইতালি ম্যাচের আগেও।

উয়েফা-কনমেবল শ্রেষ্ঠত্বের ম্যাচে পূর্ণ শক্তির স্কোয়াড নিয়েই মাঠে নামছে আর্জেন্টিনা। ইনজুরির কারণে টটেনহ্যামের হয়ে পুরো মৌসুম মাঠে নামতে না পারলেও সেরা একাদশের রেসে আছেন ক্রিস্টিয়ান রোমেরো। ডিফেন্স লাইনে কোচের পছন্দের বাকি তিনজন ওতামেন্ডি, মলিনা এবং মার্কোস অ্যাকুনা। আর্জেন্টাইন রক্ষণ এখন বেশ মজবুত। সেরা একাদশের ফুটবলাররা নিজ নিজ ক্লাবে ম্যাচ টাইম পেয়েছেন যথেষ্ট। বেনফিকার হয়ে সদ্য সমাপ্ত মৌসুমে ৪৩ ম্যাচ খেলেছেন ওতামেন্ডি।

লা লিগায় সেভিয়ার হয়ে অ্যাকুনা মাঠে ছিলেন ৪১ খেলায়। আর ন্যাহুয়েল মলিনা উদিনেসে খেলেছেন ১৮ ম্যাচ। এর বাইরেও বেশ আলো ছড়িয়েছেন মার্কোস সেনেসি। এই ডিফেন্ডারের দ্বৈত নাগরিকত্ব থাকায় তার ইতালিতে খেলার গুঞ্জন ছিল। তবে এবার তার অভিষেক হতে যাচ্ছে আর্জেন্টিনার জার্সিতে। কোচের ৪-৩-৩ ফরমেশনে মিডফিল্ডে পছন্দের শীর্ষে অ্যাতলেটিকো মাদ্রিদ তারকা রদ্রিগো ডি পল। ৪৮ ম্যাচে তার গোল আছে ৪টি।

রিয়াল বেতিসের হয়ে কোপা দেল রে জেতা গুইদো রদ্রিগেজ আছেন বেশ ছন্দে। ভিয়ারিয়ালে গেল মৌসুমে ২২ ম্যাচ খেললেও মাঝমাঠে স্ক্যালোনির আস্থা জিওভান্নি লো সেলসো। অ্যাটাকিং থার্ডে লিওনেল মেসিকে কেন্দ্র করে সাজানো হচ্ছে রণকৌশল। পারফেক্ট নাইনে থাকছেন ইন্টার মিলান ফরোয়ার্ড লাউতারো মার্তিনেজ।ত্রিফলার শেষ শূল সদ্য পিএসজি ছাড়া ভেটেরান অ্যাঞ্জেল ডি মারিয়া। তবে স্কোয়াডে থাকলেও ম্যাচ টাইম পাওয়ার সম্ভাবনা নেই পাওলো দিবালার।

আর্জেন্টিনা দলে এই মুহূর্তে সবচেয়ে আলোচিত নাম হুলিয়ান আলভারেজ। ম্যানচেস্টার সিটি থেকে ধারে রিভার প্লেটে গিয়ে আলো ছড়িয়েছেন এই ফরোয়ার্ড। এক ম্যাচে ছয় গোল করে গড়েছেন বিরল এক রেকর্ড। এছাড়াও অ্যাস্টন ভিলা গোলরক্ষক এমিলিয়ানো মার্তিনেজের উপস্থিতি আকাশী-নীলদের যোগায় বাড়তি শক্তি।

You May Also Like

About the Author: