বারবার ব্যাটিং ধস, পরিবর্তন জরুরি বললেন ডোমিঙ্গো

লিটন দাস ও সাকিব আল হাসানের জুটিতে ম্যাচ বাঁচানোর আশা জাগিয়েছিল বাংলাদেশ। মাত্র ৫৩ রানে ৫ উইকেট পতনের পর দুজন মিলে ষষ্ঠ উইকেটে যোগ করেন ১০৩ রান। কিন্তু লিটনের বিদায় জুটি ভাঙার পর আর মাত্র ১৩ রান তুলতে গুটিয়ে যায় দল। ফলে শ্রীলঙ্কার সামনে দাঁড়ায় ২৯ রানের মামুলি লক্ষ্য।

মিরপুর টেস্টের দ্বিতীয় ইনিংসেই দুইবার ঘটলো ব্যাটিং ধস। প্রথমবার টপঅর্ডারের ব্যর্থতায় ২৩ রানে পড়ে ৪ উইকেট। পরে লেজের সারিতে ১৩ রানের ব্যবধানে সাজঘরে ফেরেন পাঁচ ব্যাটার। এর আগে প্রথম ইনিংসেও ২৪ রানে ৫ উইকেট হারিয়ে ভয়াবহ বিপদে পড়ে গিয়েছিল স্বাগতিকরা।

শুধু এই ম্যাচ নয়, সাম্প্রতিক সময়ে প্রায় নিয়মিতই ঘটছে বাংলাদেশের ব্যাটিং ধসের ঘটনা। সবশেষ দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে দুই ম্যাচের দ্বিতীয় ইনিংসে ৫৩ ও ৮০ রানে গুটিয়ে গিয়েছিল মুমিনুল হকের দল। এর আগে ঘরের মাঠে পাকিস্তানের বিপক্ষেও ছিল ৮৭ রানে অলআউট হওয়ার ঘটনা।

সবমিলিয়ে ব্যাটিং নিয়ে একদমই স্বস্তির সুযোগ নেই বাংলাদেশের। এমনকি দলের হেড কোচ রাসেল ডোমিঙ্গোও জানেন না, কী কারণে এভাবে ব্যর্থ হচ্ছেন ব্যাটাররা, পারছেন না ব্যাটিং ধস ঠেকাতে। তবে টাইগারদের হেড কোচ জানিয়েছেন, এ অবস্থা থেকে উত্তরণে পরিবর্তন আনা জরুরি।

ম্যাচ শেষে সংবাদ সম্মেলনে ডোমিঙ্গো বলেছেন, ‘আমরা যদি এর (ব্যাটিং ধস) কারণ জানতাম, তাহলে তো এটি হতো না। তবে আমাদের অবশ্যই কিছু করতে হবে। সেটি হতে পারে ব্যাটিং অর্ডারে পরিবর্তন আনা। মানে দেখুন, দুই ইনিংসে ২০ রানে ৪ ও ২৫ রানে ৫ উইকেট- এই অবস্থা থেকে আপনি টেস্ট জিততে পারবেন না।’

তিনি আরও যোগ করেন, ‘আমাদের অবশ্যই এ বিষয়ে নজর দিতে হবে এবং কিছুতে পরিবর্তন আনতে হবে। গত ছয় থেকে আট মাসে এটি অনেকবার হয়েছে। কিছু তো বদলাতে হবেই। সেটি ব্যাটিং অর্ডারে পরিবর্তন হোক কিংবা একাদশে দুই-একটি পরিবর্তন। আমাদেরকে সামনের দিকে এগিয়ে যেতে হবে।’

You May Also Like

About the Author: