দলকে প্লঅফে উঠাতে না পারায় বেধড়ক পিটুনি খেলেন শিখর ধাওয়ান! নেট দুনিয়ায় ভাইরাল(ভিডিও)

Untitled design 2022 05 27T112433.670

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ আইপিএলের লিগ পর্বের শেষ ম্যাচের পর অরেঞ্জ ক্যাপের লড়াইয়ে চার নম্বরে উঠে আসেন পাঞ্জাব কিংসের ওপেনার শিখর ধাওয়ান। এ বারের আইপিএলে ১৪টি ম্যাচে খেলে ৪৬০ রান করেছেন ধাওয়ান। তার সর্বোচ্চ রান অপরাজিত ৮৮।

গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচে ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের ইতিহাসে প্রথম ব্যাটার হিসেবে শিখর ধাওয়ান ৭০০টি চার বা বাউন্ডারি মারার রেকর্ড গড়েন। এই তালিকায় শিখর ধাওয়ানের পরে রয়েছেন অজি তারকা ওপেনার ডেভিড ওয়ার্নার ও ভারতের এবং আরসিবি প্রাক্তন অধিনায়ক বিরাট কোহলি। ওয়ার্নারের দখলে রয়েছে ৫৭৭টি আইপিএলের চার। এবং বিরাট আইপিএল কেরিয়ারে মেরেছেন ৫৭৬টি চার।

এই তালিকায় চার ও পাঁচ নম্বরে রয়েছেন যথাক্রমে – ভারত ও মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের অধিনায়ক রোহিত শর্মা (৫১৯টি চার) ও ভারতের এবং চেন্নাই সুপার কিংসের প্রাক্তন ক্রিকেটার, মিস্টার আইপিএল নামে পরিচিত সুরেশ রায়না (৫০৬টি চার)। যিনি ৭০০টি চার মেরেছেন।

এখন আসা যাক অন্য একটি বিষয়ে, বর্তমানে সময়ে পাঞ্জাব কিংস ও ভারতীয় দলের ওপেনার শিখর ধাওয়ান মাঝেমধ্যেই নানানরকম ভিডিও শেয়ার করে থাকেন তার সোশ্যাল মিডিয়া একাউন্টগুলি থেকে। এবার তার শেয়ার করা একটি বিশেষ ভিডিও নিয়ে আলোচনা চলছে নেট দুনিয়ায়। এই বিশেষ ভিডিওটিতে শিখর ধাওয়ানের বাবাকে তার ছেলেকে লক্ষ্য করে লাথি, ঘুষি ছুড়তে দেখা যায়।

ধাওয়ান তার ইনস্টাগ্রাম একাউন্ট থেকে এই ভিডিও শেয়ার করেছেন। শিখর ধাওয়ানের মারধর খাওয়ার এই ভিডিও দেখার পর নেটিজেনদের অনেকেই অবাক হয়ে গিয়েছিলেন। তারা প্রশ্ন তুলেছিলেন যে কেন তাদের প্রিয় গব্বরের সাথে এমন করা হচ্ছে। তবে পুরো ভিডিওটি দেখলেই বোঝা যাবে যে গোটাটাই আসলে করা হয়েছে মজার ছলে।

সেইজন্যই শিখর ধাওয়ান নিজে তার ইনস্টাগ্রামে এই মজার ভিডিওটি পোস্ট করেছেন। এর আগেও তিনি তার বাবার সাথে মজা করে তার এরকম মার খাওয়ার অনেক ভিডিও শেয়ার করেছিলেন। এই ভিডিওতে শিখর ধাওয়ানের বাবা মহিন্দর পল মজার ছলে নিজের ছেলেকে লাথি, ঘুষি মারতে থাকেন। পোস্টস ধাওয়ান লেখেন, “নক আউটে কোয়ালিফাই না করতে পারায় বাবার দ্বারা নক আউট!”

দেখুন ভিডিওটি-

এদিকে এই ভিডিওর কমেন্ট বক্সে অনেক ভক্তকে মজার ছলে বিভিন্ন মজার কমেন্টস করতে দেখা যায়!

উল্লেখ্য, আইপিএল ২০২২-এও পাঞ্জাব কিংস প্রত্যাশা পূরণ করতে ব্যর্থ হয়েছে। তবে শিখর ধাওয়ান ব্যাট হাতেই ভালোই রানে ছিলেন, ১৪ ম্যাচ খেলে তিনি ৩৮.৩৩ গড়ে ৪৬০ রান করেছেন। কিন্তু পাঞ্জাবকে প্লে অফে তুলতে ব্যর্থ হন তিনি।

You May Also Like