প্রথম সেশনে লড়াইটা সমানে সমান

ঢাকা: চট্টগ্রাম টেস্টের পঞ্চম দিনের প্রথম সেশনের লড়াইটা সমানে সমান। শ্রীলঙ্কার লিড ৬০। দলটির সংগ্রহ ১২৮ রানে ৪ উইকেট।

দিনের শুরুতেই আগ্রাসী ব্যাটিং করে লিড এনে দিয়েছিলেন কুশল মেন্ডিস। ক্রিজে আছেন দিমুথ করুনারত্নে ৪৪ ও ধনাঞ্জয়া ডি সিলভা ১২ রানে। এই সেশনে তারা ২ উইকেট হারিয়ে ৮৯ রান যোগ করেছে। ২টি উইকেটই নেন তাইজুল।

শ্রীলঙ্কার বড় ভরসা এঞ্জেলো ম্যাথিউজ। প্রথম ইনিংসে ১৯৯ রান করে লঙ্কানদের বড় সংগ্রহ এনে দিয়েছেন। তবে দ্বিতীয় ইনিংসে আর সুবিধে করতে পারলেন না।

ক্রিজে নেমেই ধুঁকছিলেন। টানা ১৪ বলে রানের খাতাই খুলতে পারেননি। ব্যক্তিগত ইনিংসের ১৫ তম বলে তাইজুলকে উড়িয়ে মারতে গিয়ে ধরা খেলেন তাইজুলের হাতেই। লঙ্কানদের স্কোর ৪ উইকেট হারিয়ে ১১৩ রান। সফরকারীদের লিড ৪৫ রান। অধিনায়ক করুনারত্নে এখনো টিকে আছেন।

শ্রীলঙ্কার উইকেট তুলছেন তাইজুল ইসলাম একাই। গতকাল দুটি উইকেটেই অবদান ছিল তাইজুলের। সরাসরি থ্রোতে ওশাদা ফার্নান্দোকে রানআউট করার পর অসাধারণ ডেলিভারিতে বোল্ড করেছেন নাইটওয়াচম্যান লাসিথ এম্বুলদেনিয়াকে।

সকালে কুশল মেন্ডিসকেও বোল্ড করে ফেরালেন সেই তাইজুলই। মাত্র ২ রানের জন্য পাননি ফিফটি। শুরু থেকেই ভোগাচ্ছিলেন। সমানতালে রান তুলছিলেন পেস-স্পিনে। যদিও চল্লিশের ঘরে যাওয়ার পর কিছুটা শান্ত। ফিফটি থেকে যখন ২ রান দূরে তখন আক্রমণে তাইজুল।

তার ফ্লাইট ডেলিভারি ফরোয়ার্ড ডিফেন্স করতে চেয়েছিলেন মেন্ডিস, কিন্তু বল ব্যাট ছুঁয়ে ভেঙে দেয় স্ট্যাম্প। ৮ চার ও ১ ছয়ে ৪৩ বলে ৪৮ রান করেন এই ডানহাতি ব্যাটসম্যান।

কুশল মেন্ডিসের আগ্রাসী ব্যাটিংয়ে দিনের শুরুতেই লিড নেয় শ্রীলঙ্কা। ২৯ রানে পিছিয়ে থেকে দিন শুরু করেছিল তারা। শুরু থেকেই কুশল খেলেন আগ্রাসী। দিনের প্রথম ওভার থেকেই কুশলের মার শুরু।

You May Also Like

About the Author: