উইকেট বিলিয়ে ফিরলেন শান্ত

জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে বাংলাদেশের বিপক্ষে সিরিজের প্রথম টেস্টে নিজেদের প্রথম ইনিংসে ৩৯৭ রান করে শ্রীলঙ্কা। জবাবে তৃতীয় দিনে ব্যাটিং করছে বাংলাদেশ।

উইকেট বিলিয়ে ফিরলেন শান্ত:

কনকাশন সাব হয়ে নামা কাসুন রাজিথা প্রথম ওভারেই সাফল্য পেয়েছেন। তার প্রথম ওভারের চতুর্থ ডেলিভারি ব্যাটের কানায় লাগিয়ে উইকেটরক্ষক ডিকওয়েলাকে ক্যাচ দিয়ে ফিরেছেন নাজমুল হোসেন শান্ত। ফেরার আগে শান্ত করেন এক রান।

তামিমের দশম টেস্ট সেঞ্চুরি:

জয় ফিরলেও দেখেশুনে খেলে ১৬২ বলে ক্যারিয়ারের দশম টেস্ট সেঞ্চুরি হাঁকিয়েছেন তামিম। টেস্টে তিন বছর এবং ১৬ ইনিংস পর সেঞ্চুরির দেখা পেয়েছেন বাঁহাতি এই ওপেনার। শেষবার তামিম সেঞ্চুরি করেছিলেন নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে, হ্যামিল্টনে (১২৬)।

জয়ের দেয়াল ভাঙলেন আসিথা ফার্নান্দো:

সেঞ্চুরির দিকে আস্তে আস্তে আগাতে থাকা তামিমকে বেশ ভালোভাবেই সঙ্গ দিচ্ছিলেন জয়। কিন্তু মধ্যাহ্নভোজ বিরতির একটু পর আউটসাইড লেগ দিয়ে আসা আসিথা ফার্নান্দোর একটি লেংথ ডেলিভারি জয়ের ব্যাট ছুঁয়ে উইকেটরক্ষক নিরোশান ডিকওয়েলার গ্লাভসে চলে যায়।

ফেরার আগে ১৪২ বলে ৫৮ রান করেন জয়। ইনিংসে ছিল নয়টি চারের মার। উদ্বোধনী জুটি টিকেছে ১৬২ রান।

ছিটকে গেলেন বিশ্ব ফার্নান্দো, কনকাশন সাব কাসুন রাজিথা:

চলমান টেস্ট ম্যাচটির দ্বিতীয় দিন ৩২৮ রানের মধ্যে আট উইকেট ফেলে দিয়ে শ্রীলঙ্কাকে ভালোভাবেই চেপে ধরেছিল বাংলাদেশ। এরপর সাকিব, নাঈমদের সামনে ঢাল হয়ে দাঁড়ান বিশ্ব ফার্নান্দো। ডাবল সেঞ্চুরির দিকে আগাতে থাকা অ্যাঞ্জেলো ম্যাথুসকে ভালোভাবেই সঙ্গ দিচ্ছিলেন তিনি।

বিশ্বকে অবশ্য ফেরানোর সুযোগ হাতছাড়া করে বাংলাদেশ। তার সহজ একটি ক্যাচ ছেড়েছেন মুশফিকুর রহিম। সাকিবের বলে মিড অনে ক্যাচ তুলে দিয়েছিলেন বিশ্ব। তা লুফে নিতে ব্যর্থ হন মুশফিক। দেখতে দেখতে ৭৭ বল খেলে ফেলেন তিনি।

তাকে আউট করতে পারেননি বাংলাদেশের কোনো বোলার। লঙ্কানদের ইনিংসের শেষভাগে শরিফুলের একটি শর্ট বল মাথায় লাগলে আহত হন বিশ্ব। এরপর চা বিরতি শেষে আর মাঠেই আসেননি তিনি। রিটায়ার্ড হার্ট হয়েই মাঠ ছাড়েন বাংলাদেশের সামনে দেয়াল হয়ে দাঁড়ানো বাঁহাতি এই পেসার।

ম্যাচের তৃতীয় দিন জানা গেলো, এই টেস্ট থেকে ছিটকে গেছেন বিশ্ব। তার জায়গায় কনকাশন সাব হয়ে মাঠে নেমেছেন কাসুন রাজিথা।

জয়ের হাফ সেঞ্চুরি, সেঞ্চুরির প্রত্যাশায় তামিম:

তামিমের চেয়ে আরও বেশি সাবধানী ভঙ্গিমায় খেলছেন জয়। দেখতে দেখতে ১১০ তম বলে হাফ সেঞ্চুরি পান তিনি। ২১ বছর বয়সী জয়ের এটাই ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় হাফ সেঞ্চুরি। এখনও উইকেটশুন্য বাংলাদেশ। সেঞ্চুরির প্রত্যাশায় আছেন তামিম।

তামিমের হাফ সেঞ্চুরিতে দিনের সূচনা:

তৃতীয় দিনের শুরুতেই দারুণ এক হাফ সেঞ্চুরি হাঁকিয়েছেন ওপেনার তামিম ইকবাল। টেস্ট ক্রিকেটে নিজ স্বভাবসুলভ ব্যাটিংই করছেন তামিম। আগের দিনের ৩৫ রানে থাকা এই ব্যাটার দিনের পঞ্চম ওভারেই হাফ সেঞ্চুরি পূর্ণ করেন।

তামিম ও মাহমুদুল হাসান জয়ের এই জুটি শতরান ছাড়িয়েছে। ২০১৭ সালের মার্চে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে সর্বশেষ শতরানের জুটি পায় বাংলাদেশ। সেবার তামিম ও সৌম্য সরকার মিলে গড়েছিলেন ১১৮ রানের জুটি। তারপর ৩১ টেস্ট ম্যাচ শেষে আবারও শতরানের উদ্বোধনী জুটি পেল বাংলাদেশ।

সংক্ষিপ্ত স্কোর-

শ্রীলঙ্কা প্রথম ইনিংস- ৩৯৭/১০ (১৫৩ ওভার) (ম্যাথুস ১৯৯, চান্দিমাল ৬৬, কুশল মেন্ডিস ৫৪; নাঈম ৬/১০৫, সাকিব ৩/৬০)।
বাংলাদেশ প্রথম ইনিংস- ১৭৩/২ (৫৫ ওভার) (তামিম ১০২*, মুমিনুল ১*)।

You May Also Like

About the Author: