বিয়ের পর প্রথম ম্যাচেই ভাল খেলায় খুশি নাইম

চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে প্রথম টেস্টের দ্বিতীয় দিনে সফরকারীরা লম্বা স্কোরের দিকে এগোলে ইনিংসের ১১৪তম ওভারে জোড়া আঘাত করেন নাঈম। তুলে নেন সেট ব্যাটসম্যান চান্দিমাল ও নতুন ব্যাটসম্যান নিরোশান ডিকবেলাকে। ক্যারিয়ারের ২১ তম হাফসেঞ্চুরি তুলে নেয়া চান্দিমালকে এলবিডব্লিউ করে সাজঘরে ফেরান নাইম। তার আউটে ভাঙে ১৩৬ রানের জুটি। এরপরই নিরোশানকে বোল্ড করেন তিনি। ৩ বলে ৩ রান করে ফেরেন নিরোশান। ইনিংসে নাঈমের চতুর্থ শিকার এটি। আর এতেই নিজের ক্যারিয়ার সেরা বোলিং ফিগার তাঁর।

সংবাদ সম্মেলনে নাঈম বলেন, ‘বিয়ের পর তো সিরিজ হয়েছে, ওগুলোয় ছিলাম না। এখন প্রথম ম্যাচ আল্লাহর রহমতে ভালো হয়েছে, আলহামদুলিল্লাহ। অবশ্য বউ কল দেয় নাই।’

এমন পারফরম্যান্সের পর স্ত্রীর ফোন না পেয়ে নাঈমের অভিমান হতেই পারে। সেটাই তিনি সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে জানিয়ে দিলেন স্ত্রীকে। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে আজ তিনি ৩০ ওভার বল করে চারটি মেডেনসহ ১০৫ রান দিয়ে নিয়েছেন ৬ উইকেট। এটা তার ক্যারিয়ারের সেরা বোলিং।

তিনি বলেন, সবাই ভালো বোলিং করেছে। তবে আমার চেয়ে অন্য দুইজন কম রান দিয়েছেন। গতকাল আমি রান আটকাতে পারি নি। আজ সকালে সকলের সঙ্গে কথা বলেছি বিষয়টি নিয়ে। সে অনুযায়ী মাঠে বোলিং করেছি। তিনি আরও বলেন, মিরাজ ভাই যখন ইনজুরিতে পড়লেন খবরটি শুনে আমার খুব খারাপ লেগেছিল। উনার পরিবর্তে আমি যখন খেলছি তখন চেষ্টা ছিল শতভাগ এফোর্ড দেওয়া। দিন শেষে ফলাফল যাই আসুক। যাতে আমি বলতে পারি আমি শতভাগ চেষ্টা করেছি।

You May Also Like

About the Author: