৬ জন ক্রিকেটার যারা খুবই অল্প বয়সে প্রাণ হারিয়েছেন

ক্রিকেট মানুষকে বিনোদনের শেষ পর্যায় নিয়ে যায় আবার কখনও কখনও খেলার মাঠে হোক বা মাঠের বাইরে এমন কিছু মর্মান্তিক দুর্ঘটনা ঘটে যায় যা গোটা বিশ্বের ক্রিকেটপ্রেমীদের হতবাক করে তোলে। এদিন অস্ট্রেলিয়ার কিংবদন্তি অলরাউন্ডার অ্যান্ড্রু সাইমন্ডস গাড়ি দুর্ঘটনায় তার প্রাণ হারিয়েছেন।

খবরটি জানার পরেই এক নিমেষে ক্রিকেটমহলে শোকের ছায়া নেমে এসেছে। অতীতেও বেশ কিছু ক্রিকেটার খুবই অল্প বয়সে মর্মান্তিক দুর্ঘটনায় প্রাণ হারিয়েছেন, এবার তাদের সম্পর্কে জেনে নেওয়া যাক।

১) অ্যান্ড্রু সাইমন্ডস:
অস্ট্রেলিয়ার বিখ্যাত অলরাউন্ডার অ্যান্ড্রু সাইমন্ডস এদিন গাড়ি দুর্ঘটনায় মৃত্যুবরণ করেছেন, যা গোটা ক্রিকেট বিশ্বে নেমে এসেছে শোকের ছায়া। জানা যায় তার গাড়িটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে উল্টে যাওয়ায় এই বিপত্তি ঘটে। তিনি নিজেই গাড়ি চালাচ্ছিলেন। ঘটনাস্থলে দ্রুত উদ্ধার কর্মীরা পৌঁছালেও সাইমন্ডসকে বাঁচানো যায়নি। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল মাত্র ৪৬ বছর। সম্প্রতি কিংবদন্তি শেন ওয়ার্নকেও হারিয়েছে অস্ট্রেলিয়া।

২) রুনাকো মর্টন:
২০১২ সালে ক্যারিবিয়ান ক্রিকেটার রুনাকো মর্টন মাত্র ৩৩ বছর বয়েসেই পৃথিবীকে বিদায় জানিয়ে দেন। ত্রিনিদাদ থেকে বাড়ি ফেরার সময় তার গাড়িটি একটি খুঁটির সাথে জোরে ধাক্কা মারে এবং তিনি সাথে সাথে মারা যান। ওয়েস্ট ইন্ডিজ দলের হয়ে তিনি ১৫ টেস্ট, ৫৬ ওয়ানডে এবং ৭টি আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলেছেন।

৩) হ্যান্সি ক্রোনিয়ে:
দক্ষিণ আফ্রিকার বিখ্যাত অধিনায়ক হ্যান্সি ক্রোনিয়ের ম্যাচ ফিক্সিংয়ের কারণে তার ক্রিকেট ক্যারিয়ার শেষ হয়ে যায়। এরকিছু সময় পর তিনি বিমান দুর্ঘটনার কবলে পড়লে তিনি মারা যান। তার মৃত্যু বড়ই রহস্য এবং বিমানটি কি কারণে দুর্ঘটনা ঘটেছিল তা কখনো প্রকাশ্যে আসেনি। দক্ষিণ আফ্রিকার হয়ে হ্যান্সি ক্রোনিয়ে ৬৮ টেস্ট ও ১৮৮টি ওয়ানডে ম্যাচ খেলেছেন।

৪) ফিলিপ হিউজ:
অস্ট্রেলিয়ার তরুণ ক্রিকেট তারকা ফিলিপ হিউজ সিডনি ক্রিকেট গ্রাউন্ডে একটি ম্যাচ চলাকালীন বাউন্সারের আঘাতে মাথায় বল লাগে এবং সাথে সাথে অজ্ঞান হয়ে যান। এরপর টানা দুদিন চিকিৎসা চলে, তবুও তাকে বাঁচানো যায়নি। মাত্র ২৫ বছর বয়েসেই পৃথিবীকে বিদায় জানিয়ে দেন। অস্ট্রেলিয়ার জাতীয় দলের হয়ে তিনি ২৬ টেস্ট ও ২৫টি ওয়ানডে ম্যাচ খেলেছিলেন।

৫) বেন হলিওক:
ইংল্যান্ড ক্রিকেট দলের খেলোয়াড় বেন হলিওক মাত্র ২৪ বছর বয়সেই পৃথিবী ছেড়ে চলে যান। একটি গাড়ি দুর্ঘটনায় তিনি প্রাণ হারান। তিনি ইংল্যান্ডের হয়ে মাত্র ২ টেস্ট ও ২০টি ওয়ানডে ম্যাচ খেলেছিলেন। তিনি ছিলেন ইংল্যান্ডের প্রাক্তন অধিনায়ক অ্যাডাম হলিওকের ছোট ভাই।

৬) রমন লাম্বা:
১৯৯৮ সালে ঢাকায় বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামে ঘরোয়া ক্রিকেট খেলেছিলেন রমন লাম্বা। বিনা হেলমেটে ফরওয়ার্ড শর্ট লেগে ফিল্ডার হিসেবে দাঁড়িয়েছিলেন কিন্তু ওই ইনিংসের একটি বল বাকি থাকতেই ব্যাটসম্যানের জোরালো শট তার মাথায় এসে লাগে। গুরুতর অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি করা হলে তিন দিন পর তাঁর মৃত্যুর খবর আসে। তিনি ভারতের হয়ে ৪ টেস্ট ও ৩২টি ওডিআই ম্যাচ খেলেছিলেন।

You May Also Like

About the Author: