এফএ কাপের শিরোপা খরা কাটাতে মরিয়া লিভারপুল

ইয়ুর্গেন ক্লপের কোচিংয়ে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ, প্রিমিয়ার লিগের শিরোপা জিতেছে লিভারপুল। কিন্তু এফএ কাপ দলটির জন্য বড় এক ধাঁধা হয়েই আছে। ২০০৬ সালের পর এই প্রতিযোগিতায় শিরোপার ছোঁয়া পায়নি ক্লাবটি। এবার খুব কাছে এসে খালি হাতে ফিরতে চায় না তারা।
এফএ কাপের ফাইনালে শনিবার চেলসির মুখোমুখি হবে লিভারপুল। ২০১৫ সালে ক্লপ দায়িত্ব নেওয়ার পর এই প্রথম প্রতিযোগিতাটির ফাইনাল খেলতে যাচ্ছে দলটি।

এখানে জিতলে ইংল্যান্ডের প্রথম দল হিসেবে মৌসুমে বড় চার শিরোপা জয়ের পথে আরেক ধাপ এগিয়ে যাবে লিভারপুল। গত ফেব্রুয়ারিতে লিগ কাপ জিতেছিল তারা। উঠেছে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালেও। সেই সঙ্গে রয়েছে প্রিমিয়ার লিগের শিরোপা লড়াইয়ে। যদিও ম্যানচেস্টার সিটি তাদের থেকে এগিয়ে আছে অনেকটাই।

এর আগে সাতবার এফএ কাপের শিরোপা জিতেছে লিভারপুল। এবার দিয়ে ১৫তম ফাইনাল খেলতে যাচ্ছে তারা। সবশেষ তারা ফাইনালে উঠেছিল ১০ বছর আগে। চেলসির বিপক্ষে শিরোপা লড়াইয়ের আগে শুক্রবার সংবাদ সম্মেলনে ক্লপ বললেন, দীর্ঘ খরা কাটাতে চান এবার।

“এমন না যে, আমরা ফাইনালে যেতে চাইনি। আমাদের শুধু এটা করার সামর্থ্য ছিল না। (সব শিরোপার) লক্ষ্যে এগোনোর মতো স্কোয়াড ছিল না আমাদের।”

“এটা আমাদের প্রথম ফাইনাল এবং আমরা সত্যি, সত্যিই শিরোপা জিততে মরিয়া। তবে আমরা জানি, আমাদের প্রতিপক্ষও খুব ভালো দল।”

চেলসিকে হারিয়েই লিগ কাপ জিতেছিল লিভারপুল। টাইব্রেকারে নির্ধারণ হয়েছিল ম্যাচের ভাগ্য। টমাস টুখেলের দলটিকে নিয়ে তাই যথেষ্ট সতর্ক ক্লপ।

“তারা কাপ বিশেষজ্ঞ… আমরা চেলসিকে হারাইনি (লিগ কাপে)। আমরা টাইব্রেকারে জিতেছিলাম। আমি আগেও কয়েকবার বলেছি, ভাগ্য ছাড়া কোনো সুযোগ নেই। ওই দিন ভাগ্য আমাদের সঙ্গে ছিল।”

“এটি (এফএ কাপ) একটি বিশেষ ম্যাচ এবং কারও জন্য তাদের ক্যারিয়ারের সবচেয়ে বড় ম্যাচ। আমরা এটি উপভোগ করতে চাই এবং আমাদের দর্শকদের মাঝেও সেটা ছড়িয়ে দিতে চাই। এই সুযোগ কাজে লাগাতে সত্যিই আমরা উন্মুখ।”

চোটের কারণে ফাবিনিয়োকে এই ম্যাচে পাচ্ছে না লিভারপুল। তবে ক্লপ আশাবাদী, রিয়াল মাদ্রিদের বিপক্ষে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ ফাইনালের আগে ফিট হয়ে উঠবেন ব্রাজিলিয়ান মিডফিল্ডার।

You May Also Like

About the Author: