হঠাৎ বাংলাদেশের মিরপুর স্টেডিয়াম পরিদর্শনে আইপিএল দল, জল্পনা

তাঁদের সঙ্গে ছিলেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) কর্মকর্তারা। শোনা যাচ্ছে, শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে অনুশীলনের সুবিধা কেমন, তা যাচাই করতে এসেছেন আইপিএলে প্রথম সংস্করণে চ্যাম্পিয়ন হওয়া দলটির কর্মকর্তারা। তবে এ বিষয়ে এখনো নিশ্চিত করে কিছু জানা যায়নি।

এর আগে কলকাতা নাইট রাইডার্সের কর্মকর্তারাও একবার দেখে গিয়েছিলেন শেরেবাংলা স্টেডিয়াম। কিন্তু পরে আর তাঁরা যোগাযোগ করেননি। এদিকে ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ আইপিএল-এ আসরে বাংলাদেশ থেকে খেলবেন ২ জন ক্রিকেটার। কলকাতা নাইট রাইডার্স এর হয়ে খেলবেন সাকিব আল হাসান এবং রাজস্থান রয়েলসের হয়ে খেলবেন মোস্তাফিজুর রহমান।

এবারের আইপিএলের নিলামেই ৬ বাংলাদেশি ক্রিকেটারের নাম চূড়ান্ত তালিকায় থাকলেও দল পেয়েছেন ঐ দুজনই, ৩ জনকে নিলামের জন্য ডাকাই হয়নি। প্রতিবারের চিত্রই এটা, তবে এই পরিস্থিতির উন্নতি চান আইপিএলের অন্যতম দল রাজস্থান রয়্যালসের চেয়ারম্যান রঞ্জিত বার ঠাকুর।

তার মতে, আইপিএলের প্রতিটি দলে অন্তত একজন করে বাংলাদেশি খেলোয়াড় রাখা উচিৎ। আজ বাংলাদেশ সফরে এসে সাংবাদিকদের রাজস্থান রয়্যালসের চেয়ারম্যান বলেন, “ক্রিকেটারের নাম উল্লেখ করবো না। এখানেও অনেক ভালো ক্রিকেটার আছে, স্পিন ও ব্যাটিং অলরাউন্ডারের জন্য বাংলাদেশ হতে পারে আইপিএলের মূল উৎস।

আরও ৪-৫ জনকে যদি আমরা নিতে পারতাম এখান থেকে খুব ভালো হতো। বাংলাদেশি ক্রিকেটাররা দল পাওয়ার মতো উল্লেখ করে রঞ্জিত বার ঠাকুর বলেন, “আইপিএলের নিয়মে একটা দলে ৮ জন বিদেশি নেওয়া যায়। ৮টি দল একটা করে বাংলাদেশের ক্রিকেটার নিলেও ৮ জনের দল পাওয়া উচিৎ, কারণ পাকিস্তান তো নেই।

এখানকার স্পিনার ও অলরাউন্ডাররা বেশ ভালো। ২ কোটি রুপিতে মুস্তাফিজুর রহমানকে দলে নিয়েছে রাজস্থান রয়্যালস, ৩ কোটি ২০ লাখ রুপিতে সাকিব আল হাসানকে দলে নিয়েছে কলকাতা নাইট রাইডার্স। মুশফিকুর রহিমকে নিলামে উঠানো হলেও কেউই তাকে দলে নেওয়ার জন্য আগ্রহ দেখায়নি, নিলামে তোলাই হয়নি মাহমুদউল্লাহ রিয়াদদের।

সংশ্লিষ্ট খবর

Leave a Comment