লা লিগার শীর্ষে অ্যাতলেটিকো, রোমার বিপক্ষে এসি মিলানের জয়

জয়ে ফিরেছে অ্যাতলেটিকো মাদ্রিদ। লা লিগায় ভিয়ারিয়ালকে ২-০ গোলে হারিয়েছে সিমিওনের দল। ২৩ ম্যাচে ৫৫ পয়েন্ট নিয়ে শিরোপার দৌড়ে সবার ওপরেই আছে অ্যাতলেটিকো। অন্যদিকে, সিরিআ’য় রোমাকে ২-১ গোলে হারিয়েছে এসি মিলান।

উড়তে উড়তে ছন্দপতন। লা লিগায় এটাই এখন আক্ষেপ অ্যাতলেটিকো মাদ্রিদ সমর্থকদের। টানা জয়ে শিরোপার পথে বীরদর্পে এগিয়ে যাচ্ছিল রোজি ব্লাঙ্কো। তবে হঠাৎ করেই খেই হারিয়েছে সিমিওনের দল। লিগে লেভান্তে খরা কাটাতে না কাটাতেই অ্যাতলেটিকো দুর্গে হানা চেলসির। ফলাফল চ্যাম্পিয়ন্স লিগেও হার।

শিরোপার স্বপ্নে বিভোর অ্যাতলেটিকো মাদ্রিদ একটা জয়ের খোঁজে ছিল দিশেহারা। অবশেষে ভিয়ারিয়ালের বিপক্ষে এলো সে ক্ষণ। ম্যাচে ২৫ মিনিটে পেদ্রেজার আত্মঘাতী গোলের সুবাদে লিড পায় অ্যাতলেটিকো মাদ্রিদ।

৬৯ মিনিটে সে যাত্রাকে রঙিন করে তোলেন জোয়াও ফেলিক্স। ভিয়ারিয়ালকে খুঁজে পাওয়া যায়নি পুরো ম্যাচে। প্রতিপক্ষের দুর্বলতার সুযোগে লা লিগায় জয়ে ফেরে অ্যাতলেটিকো মাদ্রিদ। ২৩ ম্যাচে ৫৫ পয়েন্ট নিয়ে রাজত্ব এখনও ধরে রেখেছে রোজি ব্লাঙ্কো।

এদিকে সিরিআ’য় রোমা-এসি মিলান ম্যাচে পরতে পরতে ছিল রোমাঞ্চের ছোঁয়া। এবার লিগে শিরোপার দৌড়ে ভালোই এগোচ্ছে ইন্টার মিলান ও এসি মিলান। পুরনো দুই শত্রু এবার শিরোপার যোগ্য দাবিদার। তাদের পেছনে ছুটছে য়্যুভেন্তাস।

হাইভোল্টেজ ম্যাচে, রোমাকে হারাতে পারলেই ইন্টারের সঙ্গে কমে আসবে ব্যবধান। তাই রোমার মাঠ স্তাদে অলিম্পিকোতে শুরু থেকেই সতর্ক রসোনেরি। ৪৩ মিনিটে পেনাল্টি থেকে গোল করেন কেসি। রোমার মাঠে হতাশ স্বাগতিকরা। উৎসবে মাতে এসি মিলান।

৭ মিনিট পরই উৎসব থামিয়ে সমতা ফেরান ভেরেটর্ট। ‘কি করবেন ভেবে না পাই কুল’ অবস্থা তখন স্টেফানো পিওলির। কিন্তু না। কোনো বিপর্যয় হতে দেননি রেবিচ। ৫৮ মিনিটে তার গোলেই ২-১ এ এগিয়ে যায় এসি মিলান। অলিম্পিকোতে আর গোল হয়নি। দারুণ জয়ের উৎসবে মাতে এসি মিলান।

সংশ্লিষ্ট খবর

Leave a Comment