চ্যাম্পিয়ন্স লিগের সর্বোচ্চ গোলদাতার তালিকা প্রকাশ,মেসি,নেইমার,এমবাপ্পে ও রোনালদোর অবস্থান

চ্যাম্পিয়ন্স লিগের সর্বোচ্চ গোলদাতাকে দেওয়া হয়ে থাকে ‘উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগ গোল্ডেন বুট’ পুরস্কার। চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ইতিহাসে মাত্র ১২ জন ফুটবলার একের অধিক বার সর্বোচ্চ গোলদাতার গোল্ডেন বুট জিততে সমর্থ হয়েছেন। চ্যাম্পিয়ন্স লিগে সর্বোচ্চবার এই গোল্ডেন বুট জিতেছেন ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো।

পাঁচবার চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জয়ী রোনালদো মোট সাতবার এই টুর্নামেন্টের এক আসরে সর্বোচ্চ গোলদাতা হয়েছেন। দ্বিতীয় সর্বোচ্চবার এই গৌরবের অধিকারী হয়েছেন লিওনেল মেসি। মোট ছয়বার ইউসিএল গোল্ডেন বুট জিতেছেন মেসি।

চ্যাম্পিয়ন্স লিগে ২০০৭-০৮ মৌসুম থেকে শুরু করে ২০১৮-১৯ মৌসুম পর্যন্ত এই টুর্নামেন্টের প্রতি আসরে সর্বোচ্চ গোলদাতা ছিলেন হয় রোনালদো নতুবা মেসি। মাঝখানে এক মৌসুমে নেইমার অবশ্য এই তালিকায় ঢুকে পরেছিলেন। ২০১৪-১৫ মৌসুমে ১২ গোল করে নেইমার, মেসি ও রোনালদোর সঙ্গে ইউসিএল গোল্ডেন বুট ভাগাভাগি করেছিলেন।

চ্যাম্পিয়ন্স লিগের সর্বোচ্চ গোলদাতা ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো এক আসরে সর্বোচ্চ গোলের রেকর্ডেরও মালিক। ২০১৩-১৪ মৌসুমে লা দেসিমা জয়ের পথে সিআর সেভেন গুণে গুণে ১৭ বার প্রতিপক্ষের জালে বল পাঠিয়েছিলেন। সাম্প্রতিক কালে ২০১৯-২০ মৌসুমে রবার্ট লেভানদোভস্কি ১৫ গোল করে গোল্ডেন বুট জিতেছিলেন।

১৯৯২ সালে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ নামধারণের পর থেকে সর্বোচ্চ গোলদাতাদের তালিকা দেখা যাক-

১৯৯২: রোমারিও (পিএসভি আইন্দহোভেন): ৯ ম্যাচে ৭ গোল করে এই ব্রাজিলিয়ান গোল্ডেন বুট জিতে নেন।

১৯৯৩-৯৪: রোনাল্ড কোম্যান (বার্সেলোনা), ওয়েন্টন রাফের (ওয়ের্ডার ব্রেমেন): একমাত্র ডিফেন্ডার হিসেবে বার্সেলোনার এই ডাচ তারকা গোল্ডেন বুট জিতেছিলেন। কোম্যান ও রাফের দুজনই সে আসরে ৮টি করে গোল করেছিলেন।

১৯৯৪-৯৫: জর্জ উইয়াহ (পিএসজি): লাইবেরিয়ার বর্তমান প্রেসিডেন্ট জর্জ উইয়াহ ১৯৯৪-৯৫ সিজনে পিএসজির হয়ে ১০ ম্যাচে ৭ গোল করে সর্বোচ্চ গোলদাতা হন। ১৯৯৫ সালের ব্যালন ডি’অর জিতেছিলেন আফ্রিকার ইতিহাসের অন্যতম সেরা এই ফুটবলার।

১৯৯৫-৯৬: জারি লিটমানান (আয়াক্স): ফিনল্যান্ডের স্ট্রাইকার আয়াক্সের হয়ে ১০ ম্যাচে ৯ গোল করেছিলেন।

১৯৯৬-৯৭: মিলিঙ্কো প্যানটিচ (অ্যাতলেতিকো মাদ্রিদ): অ্যাতলেতিকো মাদ্রিদের পক্ষে ৫ গোল করে গোল্ডেন বুট জিতেছিলেন প্যানটিচ।

১৯৯৭-৯৮: আলেসান্দ্রো দেল পিয়েরো (য়্যুভেন্তাস): য়্যুভেন্তাসের ইতিহাসের অন্যতম সেরা খেলোয়াড় দেল পিয়েরো ৯৭-৯৮ মৌসুমে ১০ ম্যাচে ১০ গোল করে গোল্ডেন বুট জিতেছিলেন।

১৯৯৮-৯৯: আন্দ্রেই শেভচেঙ্কো (ডায়নামো কিয়েভ), ডোয়াইট ইয়র্ক (ম্যান ইউনাইটেড): নিজ নিজ দলের হয়ে শেভচেঙ্কো ও ইয়র্ক ৮ গোল করে করেছিলেন।

১৯৯৯-০০: মারিও জারদেল (পোর্তো), রিভালদো (বার্সেলোনা), রাউল (রিয়াল মাদ্রিদ): চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ইতিহাসে প্রথমবার একইসঙ্গে তিনজন ফুটবলার সর্বোচ্চ গোলদাতা হয়েছিলেন। তারা প্রত্যেকেই ১০ গোল করে করেছিলেন।

২০০০-০১: রাউল (রিয়াল মাদ্রিদ): ১২ ম্যাচে ৭ গোল করে গোল্ডেন বুট জিতেছিলেন এই স্প্যানিয়ার্ড।

২০০১-০২; ২০০২-০৩: রুদ ভ্যান নিস্টেলরুই (ম্যান ইউনাইটেড): ২০০১-০২ মৌসুমে ১৪ ম্যাচে ১০ গোল করেছিলেন এই ডাচ স্ট্রাইকার। পরের মৌসুমে আরও ক্ষুরধার হয়ে ১২ গোল করে টানা দুই মৌসুম গোল্ডেন বুট জেতেন তিনি।

২০০৩-০৪: ফার্নান্দো মোরিয়েন্তেস (মোনাকো): ১২ ম্যাচে ৯ গোল করে সেরা গোলদাতা হন এই স্প্যানিয়ার্ড।

২০০৪-০৫: রুদ ভ্যান নিস্টেলরুই (ম্যান ইউনাইটেড): এক মৌসুম বিরতি দিয়ে ৮ গোল করে আবার গোল্ডেন বুট জেতেন ভ্যান নিস্টেলরুই।

২০০৫-০৬: আন্দ্রেই শেভচেঙ্কো (এসি মিলান): ১২ ম্যাচে ৯ গোল করেছিলেন ইউক্রেনিয়ান স্ট্রাইকার।

২০০৬-০৭: রিকার্ডো কাকা (এসি মিলান): চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জেতার পথে ১৩ ম্যাচে ১০ গোল করেছিলেন ব্রাজিলিয়ান সুপারস্টার কাকা।

২০০৭-০৮: ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো (ম্যান ইউনাইটেড): ৮ গোল করে নিজের প্রথম গোল্ডেন বুট জেতেন রোনালদো।

২০০৮-০৯; ২০০৯-১০; ২০১০-১১; ২০১১-১২: লিওনেল মেসি (বার্সেলোনা): একটানা চার বার সেরা গোলদাতার গোল্ডেন ভবুট ঘরে তোলেন বার্সেলোনার আর্জেন্টাইন জাদুকর লিওনেল মেসি। এই চার মৌসুমে যথাক্রমে ১২ ম্যাচে ৯ গোল, ১১ ম্যাচে ৮ গোল, ১৩ ম্যাচে ১২ গোল এবং ১০ ম্যাচে ১৪ গোল করেন।

২০১২-১৩; ২০১৩-১৪: ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো (রিয়াল মাদ্রিদ): মেসিকে পেছনে ফেলে রোনালদো আবার গোল্ডেন বুট নিজের করে নেন। ১২-১৩ মৌসুমে ১২ ম্যাচে ১২ গোল করা রোনালদো পরের মৌসুমে গড়েন চ্যাম্পিয়ন্স লিগের এক মৌসুমে সর্বোচ্চ গোলের রেকর্ড। লা দেসিমা জয়ের পথে মাত্র ১১ ম্যাচে ১৭ গোল করেন তিনি।

২০১৪-১৫: ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো (রিয়াল মাদ্রিদ), লিওনেল মেসি (বার্সেলোনা), নেইমার (বার্সেলোনা): সময়ের সেরা তিন তারকা সেবার সমান ১০ গোল করেছিলেন।

২০১৫-১৬; ২০১৬-১৭; ২০১৭-১৮; ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো: রিয়াল মাদ্রিদের টানা তিন চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জয়ের রেকর্ডের পথে প্রতিবার দলের সর্বোচ্চ গোলদাতা ছিলেন সিআর সেভেন। তিন সিজনে যথাক্রমে ১২ ম্যাচে ১৬ গোল, ১৩ ম্যাচে ১২ গোল ও ১৩ ম্যাচে ১৫ গোল করে করেছিলেন তিনি।

২০১৮-১৯: লিওনেল মেসি(বার্সেলোনা): ১০ ম্যাচে ১২ গোল করে তিন মৌসুম পর আবার ইউসিএল গোল্ডেন বুট জেতেন মেসি।

২০১৯-২০: রবার্ট লেভানদোভস্কি (বায়ার্ন মিউনিখ): ১০ ম্যাচে ১৫ গোল করে দীর্ঘ এক দশক পর রোনালদো-মেসির রাজত্ব ভেঙ্গে গোল্ডেন বুট জেতেন লেভানদোভস্কি।

২০২০-২১: আর্লিং হালান্ড (বরুশিয়া ডর্টমুন্ড): বরুশিয়ার নরওয়েজিয়ান স্ট্রাইকার ৮ ম্যাচে ১০ গোল করে সর্বোচ্চ গোলদাতা হন।

You May Also Like