শচিনকে টপকে সর্বকালের সেরা হলেন বাবর আজম

images 35

২০১৫ সালে মাত্র ২০ বছর বয়সে ওয়ানডে ক্রিকেটে জাতীয় দলের হয়ে আবির্ভাব। এরপর সময় যতই গড়িয়েছে বাবর আজম নিজেকে নিয়ে গেছেন অন্য মাত্রায়। ব্যাট হাতে পাকিস্তানের ভরসার প্রতীক হয়েছেন টেস্ট ও টি-টোয়েন্টি ম্যাচে। তার অধীনে বিশ্বকাপে প্রথমবারের মতো চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ভারতকে হারিয়েছে পাকিস্তান।

এদিকে ভারতের কিংবদন্তি ক্রিকেটার শচীন টেন্ডুলকারকে সর্বকালের সেরা ওয়ানডে র‌্যাংকিংয়ে তিনি টপকালেন মাত্র ছয় বছরের ক্যারিয়ারে। ওয়ানডেতে বাবর আজমের অভিষেক হয়েছিল ২০১৫ সালে ঘরের মাঠে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে। ওই ম্যাচে তিনি করেছিলেন ৫৪ রান। আর ৮৬ ম্যাচ শেষে বাবরের গড় ৫৯.১৮। এই সংস্করণে তার মোট সংগ্রহ ৪২৬১ রান। ১৬টি সেঞ্চুরির সঙ্গে হাঁকিয়েছেন ১৮টি অর্ধশতক।

আইপিএল ইতিহাসে প্রথমবার যে বিরল নজির স্থাপন করলো মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সআইপিএলে কোহলির আউট নিয়ে বিতর্ক; মেজাজ হারালেন কোহলি! (ভিডিও)পাঁচবারের চ্যাম্পিয়ন মুম্বাইয়ের চারে চারসবশেষ অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজের তিন ম্যাচে ২৭৬ রান করার পথেও শতক ছিল দুটি। এমন পারফরম্যান্সে টেন্ডুলকারকে তো বটে, উপরের দিকে থাকা বাকিদেরও পেছনে ফেলতে খুব বেশি দেরি হবে না বাবরের।

সর্বকালের সেরার এই ওডিআই র‌্যাঙ্কিংয়ে ৯০০ রেটিং পয়েন্ট পাওয়া ব্যাটসম্যান আছেন ১২ জন। কাঁটায় কাঁটায় ৯০০ রেটিং পয়েন্ট নিয়ে ১২তম দক্ষিণ আফ্রিকার সাবেক ওপেনার গ্যারি কারস্টেন। ৯৩৫ রেটিং পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে ওয়েস্ট ইন্ডিজের কিংবদন্তি ভিভ রিচার্ডস।

এ সময়ের ব্যাটসম্যানদের মধ্যে ৯ শতাধিক বেশি রেটিং পয়েন্ট আছে শুধু ভারতের বিরাট কোহলির। ৯১১ রেটিং পয়েন্ট নিয়ে তিনি তালিকার ছয় নম্বরে। ওয়ানডেতে সর্বকালের সেরার র‌্যাঙ্কিংয়ে শীর্ষ দশে দক্ষিণ এশিয়া থেকে জায়গা পেয়েছেন তিন ব্যাটার। ৯৩১ রেটিং পয়েন্ট নিয়ে দুইয়ে পাকিস্তানি কিংবদন্তি ‘এশিয়ার ব্র্যাডম্যান’খ্যাত জহির আব্বাস, ভারতের বিরাট কোহলি ছয়ে ও সাতে পাকিস্তানের জাভেদ মিয়াঁদাদ।

বর্তমান আইসিসির ওয়ানডে ব্যাটার র‌্যাংকিং তালিকার শীর্ষ ব্যাটার বাবর, সর্বকালের শীর্ষ ১৫ ব্যাটার র‌্যাঙ্কিংয়ে দক্ষিণ এশিয়া থেকে জায়গা পেয়েছেন চতুর্থ ব্যাটার হিসেবে।

You May Also Like