দেখে নিন কত বছরের সাজা হবে নাসির-তামিমার…?

ডিভোর্স পেপার ছাড়াই অন্যের স্ত্রীকে বিয়ে করার অভিযোগে ক্রিকেটার নাসির হোসেন ও তামিমা সুলতানা তাম্মির বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে। আজ বুধবার ঢাকা মহানগর হাকিম

মোহাম্মদ জসীমের আদালতে রাকিব হাসান বাদী হয়ে এ মামলা আবেদন করেন। আদালত বাদীর জবানবন্দি গ্রহণ করে ৩০ মার্চের মধ্যে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনকে (পিবিআই) তদন্ত করে প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দেন।

মামলায় অভিযোগে দণ্ডবিধির ৪৯৪/৪৯৭/৪৯৮ ও ৫০০ ধারার কথা উল্লেখ করা হয়েছে। এ ধারাগুলোর সর্বোচ্চ শাস্তি সাত বছরের কারাদণ্ড।

দণ্ডবিধির ৪৯৪ ধারায় স্বামী বা স্ত্রীর জীবদ্দশায় পুনরায় বিয়ে করায় ৭ বছরের পর্যন্ত যেকোনো মেয়াদের সশ্রম বা বিনাশ্রম কারাদণ্ডে দণ্ডিত হবে। এ ছাড়া অর্থদণ্ডেও দণ্ডিত হবেন অপরাধী।

মামলায় উল্লেখিত ৪৯৭ ধারাটি ব্যভিচারের। এই অপরাধ প্রমাণিত হলে দোষীকে সাত বছর পর্যন্ত যেকোনো মেয়াদের সশ্রম বা বিনাশ্রম কারাদণ্ডে অথবা অর্থদণ্ডে অথবা উভয় দণ্ডেই দণ্ডিত করা যাবে। তবে নারী স্ত্রী ব্যক্তিটি দুষ্কর্মের সহায়তাকারী হিসেবে দণ্ডিত হবে না।

মামলার ৪৯৮ ধারায় কোনো বিবাহিতা নারীকে অপরাধমূলক উদ্দেশ্যে প্রলুব্ধকরণে দুই বছর পর্যন্ত যেকোনো মেয়াদের সশ্রম বা বিনাশ্রম কারাদণ্ডে অথবা অর্থ দণ্ডে অথবা উভয়বিধ দণ্ডেই দণ্ডিত হবে। এ ছাড়া মামলায় উল্লেখিত

৫০০ ধারায় মানহানির অভিযোগ আনা হয়েছে। এই অপরাধেও দোষী দুই বছর পর্যন্ত যেকোনো মেয়াদের বিনাশ্রম কারাদণ্ডে অথবা অর্থদণ্ডে অথবা উভয়বিধ দণ্ডেই দণ্ডিত হবে।

সংশ্লিষ্ট খবর

Leave a Comment