সাকিবকে বাংলাদেশ দলের চুক্তি থেকে চূড়ান্ত ভাবে বাদ দিচ্ছে বিসিবি নিচ্ছে বড় সিদ্ধান্ত

‘বাংলাদেশের প্রাণ সাকিব আল হাসান’ এই লাইনটা যেন ছোটবেয়ালায় পড়া আদর্শলিপি বইয়ের স্বরবর্ণ মুখস্ত করার মতই মুখে মুখে রয়েছে ক্রিকেটভক্তদের। অন্তত দেশের ক্রিকেটভক্তদের মধ্যে যারা সাকিবকে আলাদাভাবে ভালোবাসেন কিংবা পছন্দ করেন তাদের মুখে বহুল ব্যবহৃত লাইন হচ্ছে এটি। তবে সেই বহুল পরিচিত ‘বাংলাদেশের প্রাণ সাকিব আল হাসান’ লাইনের অর্থে কিছুটা ভাটা পড়তে যাচ্ছে এবার!

গত বছরে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের কেন্দ্রিয় চুক্তিতে ছিলেন না সাকিব। জুয়ারির প্রস্তাব গোপন করার কারনে বিশ্ব ক্রিকেটের নিয়ন্ত্রক সংস্থা আইসিসি সাকিবকে নিষেধাজ্ঞা দেয়ার কারনেই মূলত কেন্দ্রীয় চুক্তিতে ছিলেন না তিনি। নতুন বছরে নতুন চুক্তিতে সাকিব থাকছেন সেটা যেন ছিল জলের মতই পরিস্কার। তবে সেই জল এবার ঘোলা হতে শুরু করেছে।

সাকিব আল হাসান সাদা পোশাকের ফরম্যাটে দেশের হয়ে না খেলে আইপিএলে খেলতে আগ্রহ প্রকাশ করেন। সেই লক্ষ্যে বিসিবির তরফ থেকে ছুটিও নিয়ে রেখেছেন সাকিব। দেশের ক্রিকেটের নিয়ন্ত্রক সংস্থাও কোনো কার্পণ্য না করে ছুটি দিয়েছেন সাকিবকে।

class="tie-appear" src="https://i.imgur.com/Hjjwsnc.jpg" />

তবে নতুন বিপত্তি হল আগামী কয়েকদিনের মধ্যেই নতুন বছরের জন্য বিসিবির কেন্দ্রিয় চুক্তি নবায়ন হচ্ছে ক্রিকেটারদের সাথে। এই চুক্তিতে সাকিবের নাম থাকবে কিনা সেটা নিয়ে ধোঁয়াশা সৃষ্টি হয়েছে। বোর্ডের তরফ থেকে এখনও এ ব্যাপারে কোনো কিছু না জানানো হলেও সূত্রের খবর অন্তত সাদা পোশাকের ফরম্যাটে সাকিব থাকছেন না সেটা একপ্রকার নিশ্চিত।

শুধু সাদা পোশাক নয়, অন্যান্য ফরম্যাটের চুক্তিতে সাকিবকে দেখা যাবে কিনা সেটা নিয়েও সংশয় সৃষ্টি হয়েছে। এর কারন হিসেবে জানা গেছে বিসিবি তাদের কেন্দ্রীয় চুক্তিতে এমন ক্রিকেটারদেরকে আনতে চাচ্ছে যারা তিন ফরম্যাটেই খেলতে আগ্রহী।

বিসিবির কেন্দ্রীয় চুক্তিতে কারা থাকবেন সেটা নিয়ে জরুরি একটি বৈঠকও অনুষ্ঠিত হবে দু-একদিনের মধ্যেই। আর সেই বৈঠকেই নির্ধারন করা হবে সাকিবের কেন্দ্রীয় সম্পর্কে। শেষ পর্যন্ত সাকিব বোর্ডের চুক্তিতে থাকেন কিনা তা জানতে হয়ত আরও কিছু সময় অপেক্ষা করতে হবে।

Related Post