লিটনকে শ্রীলঙ্কার ক্রিকেটার বানাল আইসিসি!

বাংলাদেশ-আফগান ওয়ানডে সিরিজ শেষে ওয়ানডের হালনাগাদ র‍্যাঙ্কিং প্রকাশ করেছে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট সংস্থা-আইসিসি। ওয়ানডে সিরিজে ভালো পারফরম্যান্সের পুরস্কার হিসেবে ক্যারিয়ারসেরা র‍্যাঙ্কিংয়ে অবস্থান করছেন লিটন দাস। তবে আইসিসির ওয়েবসাইটে গিয়ে দেখা যায় গোলমেলে চিত্র। লিটনের দেশই বদলে দিয়েছে ক্রিকেটের সর্বোচ্চ সংস্থা!

ওয়ানডেতে ক্রিকেটারদের হালনাগাদ র‍্যাঙ্কিং নিয়ে করা নিউজটিতে লিটনকে শ্রীলঙ্কার ক্রিকেটার হিসেবে উল্লেখ করে আইসিসি। বাংলাদেশের ডানহাতি এ ব্যাটসম্যানকে নিয়ে করা মন্তব্যটির বাংলা করলে যা দাঁড়ায়, ‘শ্রীলঙ্কার ব্যাটসম্যান লিটন দাস আফগানিস্তান বনাম বাংলাদেশের মধ্যকার ওডিআই সিরিজে সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক ছিলেন। এছাড়া তিনি ক্যারিয়ারসেরা ৩২ নম্বর অবস্থানে রয়েছেন।’

এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত আইসিসির ওয়েবসাইটে ভুলটি সংশোধন করতে দেখা যায়নি।
আফগান সিরিজে ব্যাট হাতে দারুণ পারফরম্যান্স দেখিয়েছেন লিটন। এক সেঞ্চুরি ও এক হাফ সেঞ্চুরিতে সিরিজের সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক ছিলেন সিরিজসেরা নির্বাচিত হওয়া লিটন। ক্যারিয়ার সেরা ৫৯২ রেটিং নিয়ে ওয়ানডে র‍্যাঙ্কিংয়ের ৩২ নম্বর অবস্থানে রয়েছেন লিটন। এটাই লিটনের ক্যারিয়ারসেরা অবস্থান।

লিটনের উন্নতি হলেও র‍্যাঙ্কিংয়ে অবনতি হয়েছে তামিম-মুশফিকের। সিরিজের আগে ১১ নম্বরে থাকা মুশফিক সিরিজে পারেননি ভালো খেলতে। মাত্র একটি অর্ধশতক রানের ইনিংস খেলা মুশফিকের রেটিং পয়েন্ট কমে হয়েছে ৭১০। তাতেই ১১ নম্বর থেকে ছিটকে ১৩তে চলে গেছেন তিনি। পতন হয়েছে তামিম ইকবালের। ব্যাট হাতে দুঃস্বপ্নের সিরিজ কাটানো তামিম র‍্যাঙ্কিংয়ে পিছিয়েছেন দুই ধাপ। নতুন র‍্যাঙ্কিংয়ে তামিম আছেন ২৩ নম্বরে।

বাংলাদেশের বিরুদ্ধে সেঞ্চুরি হাঁকানো রহমানউল্লাহ গুরবাজেরও অবস্থানের উন্নতি হয়েছে। ক্যারিয়ারসেরা ৫৩৮ রেটিং পয়েন্ট নিয়ে তিনি উঠে এসেছেন ৪৮তম অবস্থানে।
বোলিং র‍্যাঙ্কিংয়ে পিছিয়েছেন মেহেদী মিরাজও। সিরিজে তিন ম্যাচে ৩ উইকেট পাওয়া বোলার রয়েছেন সাতে। আফগান স্পিনার রশীদ রয়েছেন সেরা দশে। নবম স্থানে অবস্থান করছেন তিনি। ওয়ানডে ব্যাটারদের র‍্যাঙ্কিংয়ে শীর্ষেই আছেন পাকিস্তানের অধিনায়ক বাবর আজম। তার রেটিং পয়েন্ট ৮৭৩। ৭৩৭ রেটিং পয়েন্ট নিয়ে বোলারদের মধ্যে শীর্ষে অবস্থান করছেন নিউজিল্যান্ডের ট্রেন্ট বোল্ট।

You May Also Like