রাশিয়ার সব ক্লাব ও জাতীয় দলকে নিষিদ্ধ করল ফিফা-উয়েফা

আন্তর্জাতিক অলিম্পিক কমিটির ডাকে সাড়া দিল ফিফা ও উয়েফা। ইউক্রেনে আক্রমণের প্রেক্ষিতে রাশিয়ার সকল ক্লাব ও জাতীয় দলকে সব ধরনের প্রতিযোগিতা থেকে নিষিদ্ধ করল সংস্থা দুটি। সংবাদমাধ্যম সিএনএনের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বিশ্ব ও ইউরোপিয়ান ফুটবলের সর্বোচ্চ নিয়ন্তা সংস্থা দুটি সোমবার যৌথ বিবৃতিতে এই সিদ্ধান্তের কথা জানায়। পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত চলবে এই নিষেধাজ্ঞা।

নিষেধাজ্ঞার ফলে কাতার বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের প্লে-অফে খেলতে পারবে না রাশিয়ার ছেলেদের দল। ২০২২ ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপে খেলতে পারবে না রাশিয়ার মেয়েরা।

প্রতিবেদনে আরও বলা হয়েছে, ইউরোপা লিগ থেকে ছিটকে গেল ক্লাব স্পার্তাক মস্কো। গত শুক্রবার শেষ ষোলোর ড্রয়ে লাইপজিগকে প্রতিপক্ষ হিসেবে পেয়েছিল তারা। এর ফলে জার্মান দলটি লড়াইয়ে না নেমেই উঠে যাবে কোয়ার্টার-ফাইনালে।

রাশিয়ার গ্যাস কোম্পানি গাজপ্রমের সঙ্গে স্পন্সরশিপ চুক্তিও বাতিল করেছে উয়েফা। চ্যাম্পিয়ন্স লিগ ও ইউরো ২০২৪ আসরের স্পন্সর ছিল গাজপ্রম।

বিশ্বকাপ বাছাইয়ে প্লে-অফে প্রাথমিক সূচি অনুযায়ী আগামী ২৪ মার্চ পোল্যান্ডের বিপক্ষে ঘরের মাঠে খেলার কথা ছিল রাশিয়ার। ম্যাচটি রাশিয়া জিতলে সেখানেই ২৯ মার্চ সুইডেন অথবা চেক রিপাবলিকের মুখোমুখি হতো তারা।

উয়েফা গত শুক্রবার রাশিয়া ও ইউক্রেইনের ক্লাব ও জাতীয় দলকে পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত তাদের হোম ম্যাচগুলো ওই অঞ্চলের বাইরে নিরপেক্ষ ভেন্যুতে খেলার নির্দেশ দেয়।

পরে রোববার ফিফাও রশিয়াকে নিরপেক্ষ ভেন্যুতে খেলার নির্দেশ দেয়। তবে নিজেদের পতাকা ও সঙ্গীত ছাড়া ফুটবল ইউনিয়ন অব রাশিয়া নামে খেলতে বলা হয় তাদের।

ইউক্রেইনে হামলার পর শুরুতে রাশিয়ায় বাছাইয়ের ম্যাচ আয়োজনের বিপক্ষে একযোগে অবস্থান নেয় পোল্যান্ড, সুইডেন ও চেক রিপাবলিক। পরে আরও কঠোর অবস্থান নিয়ে তিন দেশের ফুটবল ফেডারেশন জানিয়ে দেয়, রাশিয়ার বিপক্ষে খেলবে না তারা। এমনকি সেটা নিরপেক্ষ ভেন্যুতেও নয়, এমন অবস্থায় ফিফার ওই সিদ্ধান্ত কড়া সমালোচনার মুখে পড়ে।

আন্তর্জাতিক অলিম্পিক কমিটির (আইওসি) কার্যনির্বাহী বোর্ড সোমবার রাশিয়া ও যুদ্ধে তাদের সহযোগী বেলারুশের ক্রীড়াবিদ ও কর্মকর্তাদের বিভিন্ন প্রতিযোগিতায় নিষিদ্ধ করার জন্য সুপারিশ করে। এর কয়েক ঘন্টা পরই নিষেধাজ্ঞার বিষয়টি জানাল ফিফা ও উয়েফা।

এর আগে রাশিয়ার সেন্ট পিটার্সবুর্গ থেকে চলতি মৌসুমের চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনাল প্যারিসে সরিয়ে নেয় উয়েফা।

বিভিন্ন ক্লাবও নিয়েছে নানা পদক্ষেপ। রাশিয়ার জাতীয় এয়ারলাইন এরোফ্লোটের সঙ্গে স্পন্সরশিপ চুক্তি বাতিল করেছে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। গাজপ্রমের সঙ্গে একই চুক্তি বাতিল করেছে বুন্ডেসলিগার দল শালকে।

দুই প্রতিবেশী দেশের কয়েক সপ্তাহের ক্রমবর্ধমান রাজনৈতিক উত্তেজনার মধ্যে গত বৃহস্পতিবার রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের ঘোষণার পর ইউক্রেইনের বিরুদ্ধে স্থল, আকাশ ও সমুদ্রে পথে সর্বাত্মক আক্রমণ শুরু করে রুশ বাহিনী।

You May Also Like