ইতিহাস গড়েছে পিএসএল, প্রতি দলের আয় শুনলে চোখ কপালে উঠবে!

‘কষ্ট করলে কেষ্ট মেলে’- রমিজ রাজা চাইলে একথা এখন বলতেই পারেন। কারণ গত বছরের সেপ্টেম্বরে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (পিসিবি) চেয়ারম্যান হওয়ার পর দেশের ক্রিকেটের উন্নতিতে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন রমিজ।

তারই ধারাবাহিকতায় ২০২২ পিএসএল আয়োজন করলেন অত্যন্ত জাঁকজমকপূর্ণভাবে। সপ্তম পিএসএলে আগের সব মৌসুমের চেয়ে রেকর্ড পরিমাণ অর্থ লাভ হয়েছে, দাবি করছেন পিসিবির বর্তমান চেয়ারম্যান।

সোমবার সংবাদ সম্মেলনে এক বিবৃতিতে রমিজ বলেছেন, ‘এবারের পিএসএলে ৭১ শতাংশ বেশি লাভ হয়েছে। প্রতিটি ফ্র্যাঞ্চাইজিই প্রায় ৯০ কোটি পাকিস্তানি রুপি করে আয় করেছে, যা পিএসএল ইতিহাসে সর্বোচ্চ।’

পিএসএলের সফল আয়োজনের জন্য দর্শকদের প্রশংসায় ভাসিয়েছেন রমিজ৷ এ ব্যাপারে পিসিবি চেয়ারম্যানের বক্তব্য, ‘পিএসএলের সপ্তম আসর এত জমজমাট হয়েছে দর্শকদের কারণেই। এটা মেনে নিতেই হবে। সত্যি বলতে, পেশাগত ক্রিকেট জীবনে, বিশেষ করে লাহোরে এত উজ্জীবিত, ক্রিকেট পাগল দর্শক আমার চোখে পড়েনি। পিসিবির পক্ষ থেকে আমি ক্রিকেট ভক্তদের ধন্যবাদ জানাই যারা শুধুমাত্র পিএসএল সফল হতেই ভূমিকা রাখেননি, একই সঙ্গে পাকিস্তানের ক্রিকেট প্রেম সমগ্র বিশ্বের সামনে ফুটিয়ে তুলেছেন।’

রমিজ ধন্যবাদ জানিয়েছেন সমস্ত স্পন্সর কোম্পানি, খেলোয়াড়, ফ্র্যাঞ্চাইজি, মেডিকেল টিম, আইন শৃঙ্খলা বাহিনী, প্রশাসন, ধারাভাষ্যকার, গ্রাউন্ড স্টাফদেরও। যাদের নিরলস প্রচেষ্টায় পিএসএল এত সফলভাবে আয়োজিত হয়েছে বলে মনে করছেন পিসিবি চেয়ারম্যান। ২০২৩ সাল থেকে আরও জাঁকজমকপূর্ণ পিএসএল আয়োজনের আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন রমিজ।

You May Also Like

About the Author: