যোগ্যতার থেকে অনেক বেশি টাকা পেয়েছেন এই ৩ ক্রিকেটার

আইপিএল ২০২১ নিলামে ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলির মধ্যে আরও একটি আকর্ষণীয় বিডিং যুদ্ধের সাক্ষী হয়েছে। নিলামটি গত ১৮ ফেব্রুয়ারি অনুষ্ঠিত হয়েছিল, যেখানে আটটি ফ্র্যাঞ্চাইজি অংশ নিয়েছিল। আর এই আটটি ফ্র্যাঞ্চাইজি নিজেদের স্কোয়াডে মোট ৫৭ জন খেলোয়াড় নির্বাচন করেছে, যাদের নিতে মোট খরচ হয়েছে ১৪৫.৩০ কোটি টাকা। আর এর মধ্যে ক্রিস মরিস আইপিএল নিলামের আগের সমস্ত রেকর্ড ভেঙে দিয়েছেন যখন তাকে ১৬.২৫ টাকায় কিনেছিল রাজস্থান রয়্যালস।

যোগ্যতার থেকে অনেক বেশি অর্থ পেয়ে গিয়েছেন এই তিন খেলোয়াড়, এমনটা দেখে অখুশি ক্রিকেটপ্রেমীরা 2

এদিকে কাইল জেমিসন এবং গ্লেন ম্যাক্সওয়েল, যাদের কিনেছিল রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরু, যথাক্রমে ১৫ কোটি টাকা এবং ১৪.২৫ কোটি টাকায়। এমন অনেক প্লেয়ার ছিল তাদের জন্য ভারী বিড তোলা হয়েছিল, যা তাদের জন্য অতিরিক্ত হিসেবেই ধরা যেতে পারে। এখানে আমরা এমন তিনজন খেলোয়াড়কে দেখব যারা আইপিএল ২০২১ এর নিলামে অতিরিক্ত দাম পেয়েছিলেন।

যোগ্যতার থেকে অনেক বেশি অর্থ পেয়ে গিয়েছেন এই তিন খেলোয়াড়, এমনটা দেখে অখুশি ক্রিকেটপ্রেমীরা 3

১. কৃষ্ণাপ্পা গৌথম – ৯.২৫ কোটি টাকা

২০ লক্ষ টাকা বেস প্রাইস নিয়ে আসলেও চেন্নাই সুপার কিংস এই অভিজ্ঞ আনক্যাপড অলরাউন্ডারকে তোলে বিশাল অর্থে। আর এর জেরে সব থেকে বেশি বিড পাওয়া আনক্যাপড খেলোয়াড় হওয়ার রেকর্ড গড়লেন গৌথম। কিন্তু এত বেশি অর্থ পাওয়া তাঁর গত কয়েক বছরের পারফর্মেন্সের সাথে একেবারে সামঞ্জস্যপূর্ণ নয়। তিনি আইপিএল ২০১৮, ২০১৯, এবং ২০২০ মরশুমে মোট ২৪টি ম্যাচ খেলেছেন। সেই সময়কালে তিনি মোট ১৮৬ রান এবং ১৩ উইকেট দখল করতে সক্ষম হয়েছেন।

২. ঝাই রিচার্ডসন – ১৪ কোটি টাকা

ঝাই রিচার্ডসনকে আইপিএল ২০২১ এর নিলামে পাঞ্জাব কিংস ১৪ কোটি টাকার বিড দিয়ে নিয়েছে। একজন নবীন ক্রিকেটারের পক্ষে এই বিশাল পরিমাণ অবশ্যই অতিরিক্ত মূল্যের ক্রয় হিসাবে উপস্থিত হবে। অস্ট্রেলিয়ার হয়ে কেবল দুই টেস্ট, ১২টি ওয়ানডে এবং ৯টি টি টোয়েন্টি খেলেও ঝাই রিচার্ডসনের খুব কম আন্তর্জাতিক এক্সপোজার রয়েছে। উপরোক্ত সমস্ত বিষয় বিবেচনায় নিয়ে, ঝাই রিচার্ডসন অবশ্যই আইপিএল ২০২১ নিলামে একটি অতিরিক্ত মূল্যের খেলোয়াড়।

৩. রাইলি মেরেডিথ – আট কোটি টাকা

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের কোনও অভিজ্ঞতা না থাকা রাইলি মেরেডিথ আইপিএল ২০২১ নিলামে আর একজন অতিরিক্ত দামের খেলোয়াড়। তদুপরি, রাইলির এখনও পর্যন্ত কোনও আন্তর্জাতিক অভিজ্ঞতা নেই এবং তিনি কেবল ঘরোয়া লিগেই খেলেছেন। রাইলি মেরিডিথের নিলাম শুরু হয়েছিল ৪০ লক্ষ বেস প্রাইস দিয়ে। তবে পাঞ্জাব কিংস বিড যুদ্ধের শেষে তার মূল্য বাড়িয়ে আট কোটি টাকা করেছে। ২৪ বছর বয়সী এই ক্রিকেটারের জন্য এটি প্রত্যাশার চেয়ে অনেক বেশি দাম।

সংশ্লিষ্ট খবর

Leave a Comment