পাকিস্তানকে হটিয়ে টাইগারদের সামনে র‌্যাংকিংয়ে ষষ্ঠ স্থানে উঠার হাতছানি; দেখেনিন হিসাব-নিকাশ

বিসিবি বস নাজমুল হাসান পাপনকে প্রশ্ন করা হয়েছিল আপনি বোর্ড প্রেসিডেন্ট থাকাকালীন বাংলাদেশ ওয়ানডে দলকে কোথায় রেখে যেতে চান। বিসিবি সভাপতির উত্তর ছিল”আমা’র লক্ষ্য সামনের বছরগু’লোতে বাংলাদেশ দলকে ওয়ানডেতে শীর্ষ পাঁচটি দলের মধ্যে দেখতে চাই।

সেই ২০১৫ সালে পাকিস্তানকে হোয়াইটওয়াশ করে ওয়ানডে র্যাঙ্কিংয়ে সপ্তম স্থানে নিজের জায়গা পাকাপোক্ত করেছিল টাইগাররা।
এরপর থেকে ওয়ানডেতে টাইগাররা সমীহ জাগানো একটি দল। তবে এই সাত বছরে র্যাঙ্কিংয়ের কোন পরিবর্তন হয়নি টাইগারদের। মাঝে দুই সপ্তাহের জন্য পাকিস্তানকে সরিয়ে ষষ্ঠ স্থানে উঠে এসেছিল টাইগাররা তবে সেটি লম্বা সময় ধরে রাখতে পারেনি।

টাইগারদের সামনে আবারও ষষ্ঠ স্থানে উঠার হাতছানি। আফগানদের বিপক্ষে সিরিজের শেষ ম্যাচটি জিতলেই পাকিস্তানকে সরিয়ে ষষ্ঠ স্থানে উঠে যাব’ে টাইগাররা। আপাতদৃষ্টিতে কাজটি খুব বেশি কঠিন নয়। প্রথম দুই ম্যাচ জিতে টাইগারদের আ’ত্মবিশ্বা’স যেখানে আকাশচুম্বী, আফগানরা সেখানে মনস্তাত্ত্বিকভাবে অনেক বেশি পিছিয়ে পড়েছে। ফলে আফগানদের হারালেই বোর্ড প্রেসিডেন্টের স্বপ্নের দিকে আরো এক ধাপ এগিয়ে যাব’ে বাংলাদেশ।

আপাতত ৯৩ পয়েন্ট নিয়ে ষষ্ঠ স্থানে অবস্থান করছে পাকিস্তান। ৯২ পয়েন্ট নিয়ে ঠিক তার নিচে সপ্তম স্থানে বাংলাদেশের অবস্থান। অর্থাৎ পাকিস্তানের সাথে বাংলাদেশের পয়েন্টের ব্যবধান মাত্র এক। তবে আফগানদের হারালেই এ পয়েন্টের ব্যবধান গু’ছিয়ে পাকিস্তানকে টপকে যাব’ে টাইগাররা।

নিশ্চয়ই র্যাঙ্কিংয়ে এ ধরনের উন্নতি টাইগারদের ক্রিকেট পরাশক্তিতে রূপান্তরি হওয়াকে বিশ্বের অন্যান্য দলগু’লোর কাছে আরো বেশি গ্রহণযোগ্য করে তুলবে। এছাড়া ওয়ানডে সুপার লিগ পয়েন্টস টেবিলে ১০০ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে রয়েছে টাইগাররা।

এদিক দিয়েও নিজেদের শক্তিমত্তাকে বিশ্বের কাছে নতুনভাবে জানান দিচ্ছে বাংলাদেশ।র্যাঙ্কিংয় এবং পয়েন্টস টেবিলকে যদি উন্নতির মাপকাঠি ধ’রা হয় তাহলে ওয়ানডে ক্রিকে’টে সঠিক পথেই আছে টাইগাররা।

You May Also Like