টি-২০ দলে থাকা ক্রিকেটারদের উড়িয়ে আনা হলো চট্টগ্রামে, যদিও সিরিজ হবে ঢাকায়

আফগানিস্তানের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজের সব ম্যাচই হবে চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে। এরপর আগামী ৩ মার্চ থেকে দুই ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজের খেলাগুলো হবে দেশের হোম অব ক্রিকেট মিরপুর শেরে বাংলা জাতীয় স্টেডিয়ামে।
কিন্তু তার আগে ওয়ানডে দলে না থাকা টি-টোয়েন্টি স্কোয়াডের ৪ জন খেলোয়াড়কে উড়িয়ে আনা হয়েছে চট্টগ্রামে। আজ (বৃহস্পতিবার) রাতে বিশেষ ফ্লাইটে ঢাকা থেকে চট্টগ্রামে এসেছেন মুনিম শাহরিয়ার, শহিদুল ইসলাম, শেখ মেহেদি হাসান ও মোহাম্মদ নাইম শেখ।

টি-টোয়েন্টি সিরিজ হবে ঢাকায় কিন্তু সেই স্কোয়াডের খেলোয়াড়দের কেন আনা হলো চট্টগ্রামে? উত্তর দিয়েছেন বাংলাদেশ দলের টিম ডিরেক্টর খালেদ মাহমুদ সুজন। ওয়ানডে দলের সঙ্গে রেখে অনুশীলনের জন্য উড়িয়ে আনা হয়েছে এ চার ক্রিকেটারকে।
সুজন বলেছেন, ‘আজ রাতে টি-টোয়েন্টি দলের চারজনকেও চট্টগ্রামে নিয়ে এসেছি। দলের সঙ্গে থেকে ওরা যেনো অনুশীলন করতে পারে সেকারণেই মূলতঃ আনা হয়েছে ওদের। কারণ ঢাকায় ফেরার পর অনুশীলনের কোনো সময়ই থাকবে না। একদিন বিরতি দিয়েই টি-টোয়েন্টি সিরিজ শুরু।’

শুক্রবার (২৫) বগুড়া চলে যাবে বাংলাদেশ টাইগার্সের বহর। দলের ২৩ ক্রিকেটার ছাড়াও সেই বহরে থাকবেন স্থানীয় কোচরা। ফলে ঢাকায় অনুশীলনের জন্য কোনো কোচ বা সাপোর্টিং স্টাফও পাবেন না মুনিম, শহিদুল, মেহেদি, নাইমরা। তাই জাতীয় দলের সঙ্গে রেখেই অনুশীলন করানো হবে তাদের।

উল্লেখ্য, আগামী ২৮ ফেব্রুয়ারি শেষ হবে চলতি ওয়ানডে সিরিজ। পরদিন ঢাকায় ফিরবে দুই দল। মাঝে শুধু ২ ফেব্রুয়ারি থাকবে অনুশীলনের সময়। কারণ ৩ তারিখ থেকেই শুরু হয়ে যাবে দুই ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ।
আফগানিস্তানের বিপক্ষে বাংলাদেশ টি-টোয়েন্টি স্কোয়াডমাহমুদউল্লাহ রিয়াদ (অধিনায়ক), লিটন কুমার দাস, মুনিম শাহরিয়ার, সাকিব আল হাসান, মুশফিকুর রহিম, আফিফ হোসেন, শেখ মেহেদি হাসান, ইয়াসির আলী চৌধুরী রাব্বি, মোস্তাফিজুর রহমান, তাসকিন আহমেদ, শরিফুল ইসলাম, নাসুম আহমেদ, শহিদুল ইসলাম ও মোহামদ নাঈম শেখ।

You May Also Like