দক্ষিণ আফ্রিকার সফরকে সামনে রেখে বড় দু:সংবাদ দিলো সাকিব

টেস্ট সিরিজ থেকে আগেও একাধিকবার বিরতি নিয়েছিলেন সাকিব আল হাসান। সাদা বলের ক্যারিয়ার লম্বা করতে বেছে বেছে টেস্ট খেলার কথাও নানাভাবে জানিয়ে আসছেন তিনি। গত বছর আইপিএলের কারণে শ্রীলঙ্কায় টেস্ট সিরিজ খেলতে যাননি বাংলাদেশের শীর্ষ তারকা। এখন পর্যন্ত খবর দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষেও আসছে টেস্ট সিরিজে তাকে দেখা যাবে না। নিলামে তাকে কেউ দলে নিলে ওই সময়টায় তিনি খেলবেন আইপিএলে।

আগামী মার্চে তিন ওয়ানডে ও দুই টেস্টের সিরিজ খেলতে দক্ষিণ আফ্রিকায় যাবে বাংলাদেশ দল। ১৮ মার্চ থেকে শুরু হয়ে সিরিজটি চলবে ১২ এপ্রিল পর্যন্ত। ওয়ানডে সিরিজটি খেললেও টেস্টের সময়টায় সাকিব নিজেকে আইপিএলের জন্য ফাঁকা রেখেছেন।
১৮, ২০ ও ২৩ মার্চ শেষ হয়ে যাবে তিন ম্যাচের ওয়ানডে। আইপিএল শুরু হবে ২৭ মার্চ। প্রোটিয়াদের বিপক্ষে বাংলাদেশের প্রথম টেস্ট শুরু হবে ৩১ মার্চ, দ্বিতীয় টেস্ট ৮ থেকে ১২ এপ্রিল। এই সময়টায় আইপিএলের প্রথম দিকের অনেকগুলো ম্যাচ হয়ে যাওয়ার কথা। শুধু মাত্র ওয়ানডে সিরিজ খেললে আইপিএলের শুরু থেকেই থাকতে পারবেন তিনি।

আইপিএলের নিলাম সামনে রেখে তালিকায় থাকা ক্রিকেটারদের ফাঁকা সময়ের একটা সূচি দলগুলোর কাছে পাঠানো হয়েছে। তাতে সাকিব নিজেকে আইপিএলের শুরুর সময়টায় নিজেকে ফাঁকা রেখেছেন। যখন কিনা দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে আছে বাংলাদেশের টেস্ট সিরিজ।

এই ব্যাপারে যোগাযোগ করা হলে বিসিবি ক্রিকেট পরিচালনা বিভাগের চেয়ারম্যান জালাল ইউনুসও দ্য ডেইলি স্টারকে দক্ষিণ আফ্রিকায় সাকিবের কেবল ওয়ানডে খেলার কথা নিশ্চিত করেছেন, ‘এখনো পর্যন্ত শুধু মাত্র দক্ষিণ আফ্রিকায় শুধু ওয়ানডেতে তাকে পাওয়া যাবে।’
দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে টেস্ট না খেললেও ঘরের মাঠে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে সাকিব টেস্ট খেলবেন। ৮ মে থেকে ২৩ মে পর্যন্ত নিজেকে ফাঁকা রাখেননি সাকিব। ওই সময়টায় ঘরের মাঠে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে বাংলাদেশের দুই টেস্টের সিরিজ খেলার কথা।

বাংলাদেশের আরেক ক্রিকেটার মোস্তাফিজুর রহমান আইপিএলের পুরো সময়টাতেই নিজেকে উন্মুক্ত রেখেছেন। তার পেছনে অবশ্য আছে সহজ যুক্তিও। টেস্ট দলে মূলত বিবেচিত হন না মোস্তাফিজ। আইপিএল চলাকালীন নেই বাংলাদেশের কোন সাদা বলের সিরিজ। কাজেই সুযোগ পেলে অনায়াসে পুরো আইপিএল খেলতে পারেন তিনি। নিলামে থাকা বাংলাদেশের আরও তিন ক্রিকেটার লিটন দাস, তাসকিন আহমেদ ও শরিফুল ইসলাম আইপিএলের পুরো সময়টাতেই জাতীয় দলের খেলায় ব্যস্ত থাকবেন। আইপিএলের দলগুলোর কাছে তাদের জাতীয় দলের ব্যস্ততার কথা অবহিত করা হয়েছে।

১২ ও ১৩ ফেব্রুয়ারি ১০ দল নিয়ে হবে এবারের আইপিএলের মেগা নিলাম। সেখানে বাংলাদেশ থেকে দল পাওয়ার দৌড়ে আছেন সাকিব ও মোস্তাফিজই। আইপিএলের সব শেষ আসরে কলকাতা নাইট রাইডার্সে খেলেছিলেন সাকিব। তবে খুব একটা ভালো পারফর্ম করতে পারেননি। চলতি বিপিএলে অবশ্য দারুণ ছন্দে খেলতে দেখা যাচ্ছে সাকিবকে। ফরচুন বরিশালের হয়ে ব্যাটে-বলে রাখছেন নৈপুণ্য।

You May Also Like

About the Author: