338

ব্যাটিং ঝড়: অনেক দিন পর ব্যাটিংয়ে নেমেই স্বভাব সুলোভ ব্যাটিং করলেন লিটন

ঢাকার শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামে স্লো উইকেটের খুব একটা সুবিধা করতে পারেননি সাবেক প্রোটিয়া অধিনায়ক ফাফ ডু প্লেসিস। তবে চট্টগ্রামের পর ব্যাট হাতে ছন্দে ফেরে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স’র ব্যাটসম্যানরা।

jwppfOn
jwppfOn
jwppfOn
jwppfOn
jwppfOn

প্রথম দুই ম্যাচে না খেলা লিটন দাসও ফেরার ম্যাচে রান পেয়েছেন। লিটনের ৩৪ বলে ৫টি চার ও ১ ছয়ে ৪৭ রানের ইনিংস খেলে সাজঘরে ফেরার মধ্য দিয়ে ভাঙে লিটন-প্লেসির ৮০ রানের জুটি। নাসুম আহমেদের বলে সাব্বির রহমানের হাতে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন লিটন। এর আগে ওপেনার মাহমুদুল হাসান জয়ও সাব্বিরের হাতে ক্যাচ দেন নাসুমের বলে ১ রান করে।আজ দিনের প্রথম ম্যাচে টস জিতে কুমিল্লাকে ব্যাটিংয়ের আমন্ত্রণ জানান চট্টগ্রামের অধিনায়ক নাইম ইসলাম। লিটনের বিদায়ের পর ডু প্লেসি একপাস আগলে রাখেন। দলের অধিনায়ক ইমরুল কায়েস এদিন মাত্র ১ রান করে বোল্ড হন বেনি হাওয়েলের বলে।

jwppfOn
jwppfOn
jwppfOn
jwppfOn
jwppfOn

ডু প্লেসি শেষ পর্যন্ত অপরাজিত থেকে খেলেন ৫৫ বলে ৮টি চার ও ৩টি ছয়ে ৮৩ রানের ইনিংস। ডেলপোর্ট ছিলেন বেশ আক্রমণাত্নক। খেলেন ২২ বলে ৩টি চার ও ২টি ছয়ে ৪৬ রানের ইনিংস। দুজনের জুটি থেকে আসে ৪৯ বলে ৯৭ রান। সব মিলে ৩ উইকেটে ১৮৩ রান তুলেছে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স।চট্টগ্রামের পক্ষে বেশ খরুচে বোলিং করে শরিফুল ইসলাম। শেষ ওভারেই দেন ২৩ রান। চার ওভারে ২৮ রান দিয়ে ছিলেন উইকেট শূন্য। এছাড়া ২ উইকেট নেন নাসুম, ১ উইকেট নেন বেনি হাওয়েল।

jwppfOn
jwppfOn
jwppfOn
jwppfOn
jwppfOn

কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স একাদশ: ক্যামেরন ডেলপোর্ট, মাহমুদুল হাসান জয়, ফাফ ডু প্লেসি, ইমরুল কায়েস (অধিনায়ক), লিটন দাস, করিম জানাত, আরিফুল হক, নাহিদুল ইসলাম, শহিদুল ইসলাম, তানভীর ইসলাম ও মুস্তাফিজুর রহমান।চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স একাদশ : কেনার লুইস, সাব্বির রহমান, আফিফ হোসেন ধ্রুব, বেনি হাওয়েল, মেহেদী হাসান মিরাজ, নাঈম ইসলাম (অধিনায়ক), উইল জ্যাকস, শরিফুল ইসলাম, মৃত্যুঞ্জয় চৌধুরী, রেজাউর রহমান রাজা ও নাসুম আহমেদ।