বিপিএলে নামি-দামী ক্রিকেটারদের নিয়ে সবচেয়ে শক্তিশালী দল বরিশাল, দেখেনিন চূড়ান্ত স্কোয়াড

একগুচ্ছ তারকা ক্রিকেটারকে দলে ভেড়ায় বিপিএলের অষ্টম আসরের শিরোপা জয়ের অন্যতম দাবিদার ফরচুন বরিশাল। এবারও বরিশাল সমর্থকদের বিপিএল শিরোপার খরা ঘোচাতে বদ্ধপরিকর দলটি। বরিশালে এমন কিছু ক্রিকেটার আছেন যারা টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট খেলছেন।এর আগে ফোর্ট টি-টোয়েন্টি বরিশালে বঙ্গবন্ধু নামে একটি দল ছিল। একই সংস্থা এখন ফ্র্যাঞ্চাইজি মালিকের অধীনে বিপিএল পরিচালনা করে অংশগ্রহণ করছে।

প্লেয়ার্স ড্রাফটের বেশ আগেই তারকা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসানকে দলভুক্ত করেছিল বরিশাল। ডিরেক্ট সাইনিংয়ে আরও দলভুক্ত করে আফগানিস্তানের মুজিব উর রহমান, শ্রীলঙ্কার দানুশকা গুনাথিলাকা (এনওসি না পাওয়ায় খেলতে পারবেন না) ও ওয়েস্ট ইন্ডিজের ক্রিস গেইলকে।

প্লেয়ার্স ড্রাফটে দলটি স্কোয়াডে ভিড়িয়েছে কাজী নুরুল হাসান সোহান, নাজমুল হোসেন শান্ত, তাইজুল ইসলাম, নাঈম হাসানের মত জাতীয় দলের তারকাদের। এছাড়াও বরিশালে ঠাই পেয়েছেন মেহেদী হাসান রানা, ফজলে মাহমুদ রাব্বি, তৌহিদ হৃদয়, জিয়াউর রহমান, শফিকুল ইসলাম, সৈকত আলী, সানজামুল ইসলাম, সালমান হোসেন ইমন ও ইরফান শুক্কুর।

বিদেশি ক্রিকেটারদের মধ্যে প্লেয়ার্স ড্রাফটে স্কোয়াডে ডাক পান ওয়েস্ট ইন্ডিজের ওবেদ ম্যাককয় ও আলজারি জোসেফ এবং শ্রীলঙ্কার নিরোশান ডিকওয়েলা।

ড্রাফটের পর বরিশাল নিয়েছে আরও তিন ক্রিকেটারকে। এর মধ্যে চমকপ্রদ নাম ডোয়াইন ব্রাভো। সরাসরি চুক্তিতে দলভুক্ত হওয়া গুনাথিলাকা এনওসি না পাওয়ায় খেলতে পারবেন না। তার জায়গায় অন্তর্ভুক্ত করা হয় ব্রাভোকে। এছাড়া প্রিমিয়ার লিগে চার-ছক্কার ফুলঝুরি দেখানো মুনিম শাহরিয়ারকে ড্রাফটের পর দলভুক্ত করে বরিশাল। সর্বশেষ খেলোয়াড় হিসেবে নেওয়া হয়েছে ইংলিশ চায়নাম্যান জ্যাকব বেনেডিক্ট লিনটট।

প্লেয়ার্স ড্রাফটে ফরচুন বরিশাল ছিল সবচেয়ে খরুচে দল। শুধু ড্রাফটে খেলোয়াড় কিনতেই দলটি খরচ করেছে ৪ কোটি ২৮ লাখ টাকা। ২১ জানুয়ারি উদ্বোধনী ম্যাচে চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সের মুখোমুখি হয়ে বিপিএল যাত্রা শুরু করবে ফরচুন বরিশাল।

একনজরে ফরচুন বরিশাল স্কোয়াড

সরাসরি চুক্তি

সাকিব আল হাসান, মুজিব উর রহমান (আফগানিস্তান) ও ক্রিস গেইল (ওয়েস্ট ইন্ডিজ)।

ড্রাফট থেকে

কাজী নুরুল হাসান সোহান, নাজমুল হোসেন শান্ত, মেহেদী হাসান রানা, ফজলে মাহমুদ রাব্বি, ওবেদ ম্যাককয় (ওয়েস্ট ইন্ডিজ), আলজারি জোসেফ (ওয়েস্ট ইন্ডিজ), তৌহিদ হৃদয়, জিয়াউর রহমান, শফিকুল ইসলাম, সৈকত আলী, নিরোশান ডিকওয়েলা (শ্রীলঙ্কা), নাঈম হাসান, তাইজুল ইসলাম, সালমান হোসেন ইমন, ইরফান শুক্কুর ও সানজামুল ইসলাম।

ড্রাফটের পর ডোয়াইন ব্রাভো (ওয়েস্ট ইন্ডিজ), মুনিম শাহরিয়ার ও জ্যাকব বেনেডিক্ট লিনটট (ইংল্যান্ড)।

You May Also Like