ব্রেকিং নিউজ : ক্যারিবীয়দের বিপক্ষে নতুন এক ইতিহাস তৈরি করলো অয়ারল্যান্ড

জয়ের সম্ভাবনা ছিল প্রথম ম্যাচেও। কিন্তু ওয়েস্ট ইন্ডিজের দুর্দান্ত বোলিংয়ের সামনে শেষপর্যন্ত মাত্র ২৪ রানে হেরে যায় তারা। প্রথম ম্যাচ হেরে সিরিজটি শুরু করলেও পরের দুই ম্যাচে আর ভুল করেনি আয়ারল্যান্ড। ক্যারিবীয়দের বিপক্ষে শেষ দুই ম্যাচ জিতে ইতিহাস গড়েছে আইরিশরা।

রোববার জ্যামাইকার স্যাবিনা পার্কে তিন ম্যাচ সিরিজের শেষ ওয়ানডেতে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ২ উইকেটে জিতেছে আয়ারল্যান্ড। আগে ব্যাট করা ওয়েস্ট ইন্ডিজ ৪৪ ওভারেই অলআউট হয়ে যায় ২১২ রান করে। জবাবে ৮ উইকেট হারালেও ৪৪.৫ ওভারে লক্ষ্যে পৌঁছে যায় পল স্টারলিংয়ের দল।

যার সুবাদে প্রথমবারের মতো দেশের বাইরে টেস্ট খেলুড়ে কোনো দলের বিপক্ষে সিরিজ জয়ের স্বাদ পেলো তারা। আইরিশদের এ রূপকথার মূল নায়ক অলরাউন্ডার অ্যান্ডি ম্যাকব্রাইন। সিরিজে ১২৮ রানের সঙ্গে ১০টি উইকেট নিয়েছেন তিনি। শেষ ম্যাচে ৪ উইকেট নেওয়ার পর ব্যাট হাতেও ৫৯ রান করেন।

ক্যারিবীয়দের ছুড়ে দেওয়া ২১৩ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে প্রথম বলেই সাজঘরে ফিরে যান আইরিশ বাঁহাতি ওপেনার উইলিয়াম পোর্টারফিল্ড। তবে দ্বিতীয় ও তৃতীয় উইকেট জুটিতেই জয়ের ভিত পেয়ে যায় তারা। বলের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে ১২.৫ ওভারে ৭৩ রান যোগ করেন স্টারলিং ও ম্যাকব্রাইন।

ইনিংসের ১৩তম ওভারে আউট হওয়ার আগে ৩৮ বলে ৪৪ রান করেন অধিনায়ক স্টারলিং। এরপর চার নম্বরে নামা হ্যারি ট্যাক্টরের সঙ্গে ৭৯ রানের জুটি গড়েন ম্যাকব্রাইন। অলরাউন্ড নৈপুণ্যে উজ্জ্বল ম্যাকব্রাইনের ব্যাট থেকে আসে ৫৯ রান। আউট হওয়ার আগে ট্যাক্টর খেলেন ৫৮ রানের ইনিংস।

একপর্যায়ে ৪ উইকেটে ১৯০ রান করে ফেলে আয়ারল্যান্ড। জয়ের জন্য বাকি ছিল আর মাত্র ২৩ রান। যখন ১৮ রানের ব্যবধানে আরও ৪ উইকেট হারিয়ে ফেলে তারা। তবে এতে জয় পেতে কোনো সমস্যা হয়নি। শেষ পর্যন্ত ৩১ বল হাতে ম্যাচ ও সিরিজ নিজেদের করে নেয় আইরিশরা।ম্যাচের প্রথম ইনিংসে ব্যাটিংয়ের শুরুটা দুর্দান্ত ছিল ওয়েস্ট ইন্ডিজের। উদ্বোধনী জুটিতে মাত্র ১১ ওভারেই ৭২ রান যোগ করে ফেলেন দুই ওপেনার শাই হোপ ও জাস্টিন গ্রিভস। আক্রমণাত্মক ব্যাটিংয়ে মাত্র ৩৯ বলে ৫৩ রানের ইনিংস খেলে সাজঘরে ফিরে যান হোপ।

তার বিদায়ের পরই তাসের ঘরের মতো ভেঙে পড়ে ক্যারিবীয় ব্যাটিং লাইনআপ। বিনা উইকেটে ৭২ থেকে ৭ উইকেটে ১১৯ রানের দলে পরিণত হয় তারা। হতাশ করেন নিকোলাস পুরান (২), শামার ব্রুকস (১), রস্টোন চেজ (১৯), কাইরন পোলার্ডরা (৩)। মনে হচ্ছিল ১৫০ রানও করতে পারবে না স্বাগতিকরা।

সেখান থেকে নিচের সারির ব্যাটারদের কল্যাণে দুইশ পেরোয় ওয়েস্ট ইন্ডিজ। সর্বোচ্চ ৪৪ রান করেন সাবেক অধিনায়ক জেসন হোল্ডার। এছাড়া রোমারিও শেফার্ড ১৩, আকিল হোসেন ২৩ ও ওডিয়ান স্মিথ খেলেন ২০ রানের ইনিংস। যার সুবাদে ২১২ রানে থামে ওয়েস্ট ইন্ডিজের ইনিংস।আয়ারল্যান্ডের পক্ষে ১০ ওভারে দুই মেইডেনসহ মাত্র ২৮ রান খরচায় ৪ উইকেট নেন ম্যাকব্রাইন। এছাড়া ক্রেইগ ইয়ং শিকার করেন ৪৩ রানের ৩ উইকেট।

You May Also Like