আমি ভালো পারফর্ম করেও কারো সাহায্য পাইনি, আমার ওপর অবিচার হয়েছেঃ ইমরুল

আসন্ন ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে টেস্ট সিরিজে দর্শক হয়েই থাকতে হবে ইমরুল কায়েসকে। তারপরও আক্ষেপ নেই বাঁহাতি এই ব্যাটসম্যানের। ইমরুলের বিশ্বাস, কেউ কারও ক্যারিয়ার শেষ করতে পারে না। তাই আবারও দলে ফিরতে লড়াই শুরু করেছেন তিনি।

দেশের হয়ে ইমরুল শেষ টেস্ট খেলেছেন ২০১৯ সালে ভারত সফরে। এরপর পাকিস্তান এবং জিম্বাবুয়ে সিরিজে আবারও বাদ। সর্বশেষ ওয়ানডে খেলেছেন ২০১৮ সালে আর টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটে দেশকে প্রতিনিধিত্ব করেছেন তারও এক বছর আগে। এসবের মাঝেও ফেরার লড়াইয়ে হার মানতে নারাজ ইমরুল।

এদিকে টেস্টে ২০১৫ সালে শেষবার হাফ সেঞ্চুরি পেয়েছিলেন ইমরুল। এরপরের ৪ বছর সুযোগ পেয়েও সেটাকে কাজে লাগাতে পারেননি এই ব্যাটসম্যান। লঙ্গার ভার্সনে মাত্র ২৫ গড়ে রান এই ক্রিকেটার তাই নিজেকে ফেরাতে প্রতিনিয়ত অনুশীলন করে চলেছেন। সঙ্গে জিমেও নিয়মিত সময় দিচ্ছেন।

বাঁহাতি এই ব্যাটসম্যানের বিশ্বাস, ১২ বছরের দাড় করানো এই ক্যারিয়ার এক-দুইদিনে শেষ হয়ে যাবে না। আর বাদ পরা মানে যে ক্যারিয়ার শেষ হয়ে যাওয়া তা মানতে নারাজ তিনি। তাই দলে ফিরতে আপাতত ঘরোয়া ক্রিকেটেই নজর তার।

ক্রিকফ্রেঞ্জিকে ইমরুল বলেন, ‘আমার সবসময় জেদ কাজ করে যে আমাকে বাদ দিয়া হয়েছে আমি আবারও প্রমাণ করব নিজেকে। এরপর আবারও ফিরব। আমি একটা জিনিষ বিশ্বাস করি একদিন বা দুইদিনে আমার ক্যারিয়ার দাঁড়ায়নি।’

তিনি আরও বলেন, ‘তাহলে কেন এক দুইবার বাদ পরলে ক্রিকেট থেকে সরে যাব। আমার ক্যারিয়ার এটা, আমি জানি কখন শেষ করব। কেউ কারও ক্যারিয়ার শেষ করতে পারে না। হয়তো আপনি বাদ পরেছেন কিন্তু এর মানে এই না যে আপনার ক্যারিয়ার শেষ হয়ে গিয়েছে। আমি চেষ্টা করে যাব, পারফর্ম করব বাকিটা ওপরওয়ালার ইচ্ছা।

সংশ্লিষ্ট খবর

Leave a Comment