1245

বাংলাদেশ দলে ব্যাটিং কোচের দায়িত্ব পেয়ে যা বললেন সিডন্স

টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে কখনোই ভালো মানের পাওয়ার হিটার দেখা যায়নি বাংলাদেশের ক্রিকেটে। পারফরম্যান্সে এসবের খেসারতও দিয়েছে বাংলাদেশ। শেষবারের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপসহ কোনো বৈশ্বিক ইভেন্টে বলার মতো অর্জন নেই বাংলাদেশের। সাম্প্রতিক সময়ে ব্যাটিং পরামর্শকের দায়িত্ব দিয়ে পুরানো প্রধান কোচ জেমি সিডন্সকে ফেরাচ্ছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। প্রায় ১১ বছর পর বাংলাদেশের ব্যাটারদের দায়িত্ব নিয়ে সিডন্স জানালেন, এদেশেও পাওয়ার হিটার তৈরি করা সম্ভব।

GLeZpht
GLeZpht
GLeZpht
GLeZpht
GLeZpht

২০০৭ থেকে ২০১১ সাল পর্যন্ত বাংলাদেশ দলের প্রধান কোচ ছিলেন জেমি সিডন্স। সেই সময়ে সাকিব আল হাসান, তামিম ইকবাল, মুশফিকুর রহিমদের দীক্ষা দিয়েছিলেন তিনি। টাইগারদের পারফরম্যান্সও উঠতি ছিল তখন। কোচ হিসেবে দারুণ সুনাম অর্জন করেছিলেন সিডন্স।

GLeZpht
GLeZpht
GLeZpht
GLeZpht
GLeZpht

যদিও টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে সেই সময়ে বা বর্তমানে- কখনোই সেভাবে ডালপালা মেলতে পারেনি বাংলাদেশের ব্যাটাররা। ব্যর্থতার চূড়ান্ত রূপ দেখা যায় মাস দুয়েক আগে শেষ হওয়া টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে। ওমান ও পাপুয়া নিউগিনি বাদে ছয়টি দলের বিপক্ষেই হারে বাংলাদেশ।ক্রীড়া বিশ্লেষকসহ সংশ্লিষ্টদের চোখে পড়ে পাওয়ার হিটারের অভাব। এই অভাব দূর করতে চান সিডন্স। বাংলাদেশেও পাওয়ার হিটার তৈরি করা সম্ভব বলে মনে করছেন এই অস্ট্রেলিয়ান কোচ।

GLeZpht
GLeZpht
GLeZpht
GLeZpht
GLeZpht

তিনি বলেন, ‘টি–টোয়েন্টি শক্তির খেলা। দেশের বাইরে যদি আমরা ভালো দলগুলোকে চোখ রাঙাতে চাই, আমাদের তাহলে কিছু শক্তিশালী ব্যাটসম্যান প্রয়োজন হবে। আমরা দেখছি, ঘরের মাঠে বাংলাদেশ কম স্কোর রেখে ম্যাচ জিততে পারছে, কিন্তু দেশের বাইরে গিয়ে কাজটা কঠিন হবে।’

GLeZpht
GLeZpht
GLeZpht
GLeZpht
GLeZpht

‘আমার ইচ্ছা প্রধান কোচের সঙ্গে পরামর্শ করে ফিটনেস ট্রেনারের সহায়তায় পাওয়ার হিটিং নিয়ে কাজ করার। বাংলাদেশেও পাওয়ার হিটার তৈরি করা সম্ভব। এখন তো বাউন্ডারিই টি–টোয়েন্টি ম্যাচ জেতায়, জোরে মারতে পারাটা গুরুত্বপূর্ণ।’

GLeZpht
GLeZpht
GLeZpht
GLeZpht
GLeZpht

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের প্রথম পর্বে তুলনামূলক দুর্বল দল স্কটল্যান্ডের কাছেও ধরাশায়ী হয় বাংলাদেশ। সুপার টুয়েলভে একে একে শ্রীলঙ্কা, ইংল্যান্ড, ওয়েস্ট ইন্ডিজ, দক্ষিণ আফ্রিকা ও অস্ট্রেলিয়ার কাছে হারে বাংলাদেশ।