রেফারিকে হুমকি দিয়ে যা বললেন মেসির আর্জেন্টাইন সতীর্থ

Messi AP

লাওতারো আকোস্তা নামটা এখন হয়তো অতটা পরিচিত ঠেকবে না। কিন্তু ১০-১২ বছর আগে প্রতিভাবান আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ড হিসেবে তাঁর বেশ ভালোই নামডাক ছিল। আর্জেন্টাইন ক্লাব লানুসের হয়ে আলো ছড়িয়ে ২০০৮ সালে নাম লিখিয়েছিলেন স্প্যানিশ ক্লাব সেভিয়ায়।

GLeZpht
GLeZpht
GLeZpht
GLeZpht
GLeZpht

সতীর্থ হয়েছিলেন আদ্রিয়ানো, লুইস ফাবিয়ানো, ইভান রাকিতিচ, হেসুস নাভাসদের মতো একাধিক তারকার। কিন্তু সেভিয়ায় সেভাবে নিজের প্রতিভার প্রতি সুবিচার করতে পারেননি, আবারও ফিরেছেন আর্জেন্টিনায়।

GLeZpht
GLeZpht
GLeZpht
GLeZpht
GLeZpht

বোকা জুনিয়র্স ঘুরে এখন খেলছেন নিজের সাবেক ক্লাব লানুসের হয়েই। সেখানেই এক আজগুবি কাণ্ড ঘটিয়ে খবরের শিরোনাম হয়েছেন এই আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ড।

GLeZpht
GLeZpht
GLeZpht
GLeZpht
GLeZpht

বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, আর্জেন্টিনার শীর্ষ বিভাগের এক রেফারি অভিযোগ করেছেন, আকোস্তা তাঁকে হত্যার হুমকি দিয়েছেন। কেবল মুখে অভিযোগ করেই থামেননি রেফারি, আনুষ্ঠানিকভাবে পুলিশের কাছেও অভিযোগ করেছেন তিনি।

GLeZpht
GLeZpht
GLeZpht
GLeZpht
GLeZpht

ভুক্তভোগী রেফারির নাম দারিও হেরেরা। ভদ্রলোকের ওপর সেদিন দায়িত্ব ছিল লানুস বনাম রেসিং ম্যাচ পরিচালনা করার। ম্যাচটা ৩-১ গোলে জেতে রেসিং।
ফলে এই নিয়ে টানা চার ম্যাচ জয়হীন থাকে লানুস। স্বাভাবিকভাবেই, আকোস্তাদের মেজাজ খারাপ ছিল। সে কারণেই কি না, হুট করে রেফারিকে খুনের হুমকিই দিয়ে বসলেন তিনি!

GLeZpht
GLeZpht
GLeZpht
GLeZpht
GLeZpht

হেরেরা জানিয়েছেন, উল্টোপাল্টা ভাষায় তাঁকে গালাগালি করেছেন আকোস্তা। গালাগালি করার পরেই দিয়েছেন হুমকি। পুলিশি রিপোর্টে হেরেরা সেসব কথা জানিয়েছেন, ‘তুমি দুর্নীতিগ্রস্ত।

GLeZpht
GLeZpht
GLeZpht
GLeZpht
GLeZpht

এর পরে কখনো যদি তোমাকে রেফারিগিরি করতে দেখি, একদম খুন করে ফেলব!’ ম্যাচ শেষেই পুলিশের কাছে আনুষ্ঠানিকভাবে অভিযোগ দায়ের করেন হেরেরা।
আর্জেন্টিনার রেফারিদের সংস্থাও আকোস্তার হুমকিতে চটেছে। ৩৩ বছর বয়সী আকোস্তার দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেছে তারা। সংস্থার পরিচালক ফেদেরিকো বেলিগোয় এক আর্জেন্টাইন টিভি চ্যানেলে এসে বলেছেন, ‘এভাবে চলতে দেওয়া যায় না। আকোস্তা যা করেছে, তা সহ্য করা যায় না।’

GLeZpht
GLeZpht
GLeZpht
GLeZpht
GLeZpht

২০১৭ সালে আর্জেন্টিনার জার্সি গায়ে দুটি বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের সৌভাগ্য হয়েছিল আকোস্তার। উরুগুয়ে আর ভেনেজুয়েলার বিপক্ষে ম্যাচ দুটি খেলেছিলেন তিনি।

You May Also Like