ব্রেকিং নিউজঃ পাকিস্তান সিরিজের দলে একধিক চমক বাদ মুশফিক

PicsArt 11 16 11.51.12

পাকিস্তানের বিপক্ষে তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজের জন্য বাংলাদেশ দল ঘোষণা হবে দ্রুতই। তবে এর আগে মুশফিকুর রহিমকে নিয়ে গুঞ্জন শুরু হয়েছে। অভিজ্ঞ এই ক্রিকেটারকে বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে খেলা পাকিস্তানের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজে নাও দেখা যেতে পারে!

GLeZpht
GLeZpht
GLeZpht
GLeZpht
GLeZpht

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে বাংলাদেশ মোটেও প্রত্যাশা পূরণ করতে পারেনি। হতাশার বিশ্বকাপ মিশন শেষে দেশে ফিরে বেশ কদিন ধরেই পুরো দমে অনুশীলন করছেন ক্রিকেটাররা।

GLeZpht
GLeZpht
GLeZpht
GLeZpht
GLeZpht

মুশফিকুর রহিম, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদসহ চার ক্রিকেটার আরব আমিরাত থেকে একটু দেরিতে দেশে ফেরেন। ফেরার পর অনুশীলন শুরু করলেও মুশফিক একটা জায়গায় ব্যতিক্রম। সোমবার তাকে মিরপুরে আলাদা অনুশীলন করতে দেখা গেছে। লাল বলে অনুশীলনেই তিনি ব্যস্ত থাকছেন। আর এতেই টি-টোয়েন্টি সিরিজে তার না খেলার গুঞ্জন শুরু হয়েছে।

GLeZpht
GLeZpht
GLeZpht
GLeZpht
GLeZpht

বিসিবির একটি সুত্রও বলছে আপাতত পাকিস্তান সিরিজে মুশফিককে ছাড়াই দল ঘোষণা করবে বিসিবি। দলে থাকবে না আরেক উইকেটরক্ষক লিটন দাসও। প্রধান উইকেটরক্ষক হিসেবে থাকবেন নুরুল হাসান সোহান। আর তার ব্যাকআপ তথা দ্বিতীয় উইকেটরক্ষক হিসেবে দলে সুযোগ পাবেন অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপজয়ী পারভেজ হোসাইন ইমন।

GLeZpht
GLeZpht
GLeZpht
GLeZpht
GLeZpht

৩৪ বছর বয়সী মুশফিক এখন পর্যন্ত ৯৯টি আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি খেলেছেন। দেশের হয়ে তৃতীয় সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক তিনি। অবশ্য সবশেষ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপটা মোটেও ভালো কাটেনি তার। ৮ ম্যাচে মাত্র ১৪৪ রান করেছেন।

GLeZpht
GLeZpht
GLeZpht
GLeZpht
GLeZpht

বিশ্বকাপ ব্যর্থতা ও ইনজুরি মিলিয়ে পাকিস্তান সিরিজে কিছু পরিবর্তন আসবে এটা নিশ্চিত। সাকিব আল হাসান ও সাইফউদ্দিন ইনজুরির কারণে ছিটকে গেছেন আগেই। তামিম ইকবালকে পাওয়া যাচ্ছে না এই সিরিজেও।

এদিকে মুশফিকের মতো টি-টোয়েন্টি সিরিজের আগে অনুশীলনে নেই সৌম্য সরকার ও লিটন দাসও। দুজনই নিজ বিভাগের হয়ে খেলছেন জাতীয় লিগে।

GLeZpht
GLeZpht
GLeZpht
GLeZpht
GLeZpht

বাংলাদেশ-পাকিস্তান সিরিজের প্রথম টি-টোয়েন্টি ১৯ নভেম্বর। পরদিন দ্বিতীয় এবং ২২ নভেম্বর তৃতীয় ও শেষ টি-টোয়েন্টি। সবগুলো ম্যাচই হবে মিরপুরে। ২৬ নভেম্বর চট্টগ্রামে শুরু হবে প্রথম টেস্ট। ৪ ডিসেম্বর থেকে ঢাকায় দ্বিতীয় ও শেষ টেস্ট।

You May Also Like