জিম্বাবুয়ের ৬ ব্যাটারকে খালি হাতে ফিরিয়ে রেকর্ড গড়লেন নাহিদা-তৃষ্ণা

বাংলাদেশের বোলারদের সামনে দাঁড়াতেই পারেনি জিম্বাবুয়ের ব্যাটাররা। তাতে টানা তৃতীয় ও শেষ ওয়ানডেতেও দাপুটে এক জয় তুলে নিয়েছে বাংলাদেশ। লাল-সবুজের বোলিং তোপে স্বাগতিক জিম্বাবুয়ে অলআউট হয়েছে ৭২ রানে। স্বাগতিকদের এতই বেহাল দশা ছিল যে ছয় ব্যাটসম্যানকে রানের খাতা খুলতে দেননি নাহিদা আক্তার ও ফারিহা ইসলাম তৃষ্ণা। জবাবে সেই রান তিন উইকেট হারিয়ে ১৯০ বল বাকি থাকতেই টপকে গেছে বাংলাদেশ নারী ক্রিকেট দল।

এই জয়ে তিন ম্যাচ সিরিজে জিম্বাবুয়েকে হোয়াইটওয়াশ করার কৃতিত্ব দেখিয়েছে বাংলাদেশ। বাছাই পর্বে যা আত্মবিশ্বাসের জ্বালানী হিসেবেই কাজে দেবে।

দুই ম্যাচ বিশ্রামের পর নতুন অধিনায়ক নিগার সুলতানা খেলতে নেমেছিলেন। টস হারলেও পরে সেটি আশীর্বাদ হয়েই আসে! আগে ব্যাটিং করতে নেমে বাংলাদেশের বোলারদের সামনে স্বাগতিক ব্যাটাররা দাঁড়াতেই পারেনি। প্রথম আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলতে নেমে বাজিমাত করেছেন বাঁহাতি পেসার ফারিহা ইসলাম তৃষ্ণা।

অভিজ্ঞ জাহানারাকে বিশ্রামে দিয়ে সুযোগ দেওয়া হয়েছিল তাকে। সুযোগটা ভালো মতোই কাজে লাগিয়েছেন এই পেসার। ৩.২ ওভারে মাত্র ১৭ রান খরচ করে তুলে নেন দুটি উইকেট। জিম্বাবুয়ের হয়ে একা লড়াই করা ওপেনার শার্ন মায়ার্সকেও ফিরিয়েছেন এই বাঁহাতি। দলের ৭২ রানের মধ্যে মায়ার্স একাই খেলেছেন ৩৯ রানের ইনিংস। তৃষ্ণার দ্বিতীয় শিকার ছিলেন ফ্রান্সিসকা চিপারে (০)।

তবে বাংলাদেশের সবচেয়ে সফল বোলার ছিলেন বাঁহাতি স্পিনার নাহিদা আক্তার। ১০ ওভারে ২১ রান দিয়ে তুলে নিয়েছেন ৫টি উইকেট। যার মধ্যে তিন ব্যাটারকে রানের খাতা খোলার আগেই সাজঘরে পাঠিয়েছেন! তৃষ্ণা ও নাহিদার ৭ উইকেট শিকারের পর বাকি তিন উইকেটের একটি ছিল রান আউট। বাকি দুটি উইকেট নিয়েছেন রুমানা আহমেদ। সবমিলিয়ে বাংলাদেশের বোলিং তোপে স্বাগতিকরা ২৭.২ ওভারেই অলআউট হয়েছে ৭২ রানে।

জবাবে ৭৩ রানের সহজ লক্ষ্যে খেলতে নেমে বাংলাদেশ ৩ উইকেট হারিয়ে জয়ের লক্ষ্যে পৌঁছে যায়। নিয়মিত ওপেনার শারমিন আক্তারকে বিশ্রামে পাঠিয়ে শেষ ম্যাচে সুযোগ দেওয়া হয় নুজহাত তাসনিয়াকে। সুযোগটা কাজে লাগাতে পারেননি তিনি। মাত্র ১০ রানে সাজঘরে ফিরেছেন। আগের ম্যাচে হাফসেঞ্চুরি পাওয়া মোর্শেদা আজ ৩৯ রানে অপরাজিত ছিলেন। দুই ম্যাচ পর খেলতে নামা অধিনায়ক নিগারও ১২ রানের বেশি করতে পারেননি।

জয় থেকে ৯ রান দূরে থাকতেই দুটি উইকেট হারায় বাংলাদেশ। নিগারের পর সোবহানা মোস্তারী (১) রানে আউট হন। শেষ পর্যন্ত ১৮.২ ওভারে ৩ উইকেট হারিয়ে জয় নিশ্চিত করে বাংলাদেশ।

সংশ্লিষ্ট খবর