যে সমীকরণে ইংল্যান্ড-অস্ট্রেলিয়ার গ্রুপে খেলবে বাংলাদেশ

বাংলাদেশ ক্রিকেট দল জিতে আনন্দে ভাসায় দেশের মানুষকে, আবার হেরেও যায়। হার-জিত তো খেলারই অংশ। পৃথিবীতে কী এমন একটি দল বা দেশ খুঁজে পাওয়া যাবে, যারা কেবলই জেতে! জয়ের সঙ্গে পরাজয় ব্যাপারটি না থাকলে তো খেলারই জন্ম হতো না!

নতুন খবর হচ্ছে, টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের প্রথম পর্বে বি গ্রুপে রানার্স আপ হলে ইংল্যান্ড এবং অস্ট্রেলিয়ার ‘গ্রুপ-১’-এ খেলতে হবে সাকিব আল হাসান- মুস্তাফিজুর রহমানদের বাংলাদেশকে। প্রথমে অবশ্য আইসিসি জানিয়েছিল ভিন্ন কথা।

তাদের নিয়ম অনুযায়ী, টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের প্রথম পর্বে ‘বি গ্রুপে’ চ্যাম্পিয়ন বা রানার্সআপ যা-ই হোক না কেন, বাংলাদেশ সরাসরি চলে যাওয়ার কথা ‘গ্রুপ-২’ তে। যেখানে আছে ভারত-পাকিস্তানের মতো শক্তিশালী দল। কিন্তু আসর শুরুর তিন দিন পর আরেকটি মেইল পাঠায় আইসিসি।

যেখানকার নতুন নিয়ম পড়ে বোঝা যায়, ‘বি গ্রুপে’ চ্যাম্পিয়ন হলে ‘গ্রুপ-২’ তে অর্থাৎ ভারত-পাকিস্তানে যাবে বাংলাদেশ। আর ‘বি গ্রুপে’ রানার্স আপ হলে ‘গ্রুপ-১’ অর্থাৎ, ইংল্যান্ড-অস্ট্রেলিয়ার গ্রুপে খেলতে হবে বাংলাদেশকে। যেখানে আরও আছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ এবং দক্ষিণ আফ্রিকার মতো বড় দল। ইতোমধ্যেই স্কটল্যান্ডের কাছে হেরেছে বাংলাদেশ।

এরপর অবশ্য ওমানের বিপক্ষে জিতেছে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের দল। শেষ ম্যাচে, আগামি ২১ অক্টোবর পাপুয়া নিউ গিনির বিপক্ষে নামবে লাল-সবুজের দল। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সুপার-১২ তে যেতে হলে সেই ম্যাচে অবশ্যই জিততে হবে বাংলাদেশকে। এরপর তাকিয়ে থাকতে হবে ওমান এবং স্কটল্যান্ডের ম্যাচের দিকেও।

You May Also Like

About the Author: